• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    প্রেম করার অপরাধে মেয়েটিকে কুপিয়ে মেরেই ফেললেন মা-ভাই!

    | ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ৬:৪৯ অপরাহ্ণ

    প্রেম করার অপরাধে মেয়েটিকে কুপিয়ে মেরেই ফেললেন মা-ভাই!

    প্রেম করার অপরাধে গাইবান্ধার সাঘাটার দক্ষিণ উল্লা গ্রামে কলেজছাত্রী আতিকা সুলতানাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছে পুলিশ। 


    এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা কলেজ শিক্ষক আমিনুল ইসলাম ক্বারী বাদী হয়ে তার স্ত্রী হামিদা ও বড় ছেলে তানজিনকে আসামি করে সাঘাটা থানায় হত্যা মামলা করেছেন।

    ajkerograbani.com

    সাঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বেলাল হোসেন জানান, আতিকার মা হামিদাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার ভাই তানজিন পলাতক। নিহত আতিকার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

    এর আগে শুক্রবার বিকেলে গাইবান্ধার সাঘাটার দক্ষিণ উল্লা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে আতিকা সুলতানার গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় রক্তাক্ত কম্বল, ছুরি জব্দ করে জিঙ্গাসাবাদের জন্য নিহত কলেজছাত্রীর মা হামিদা আক্তারকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

    দক্ষিণ উল্যা গ্রামের আতিকা সুলতানা উদয়ন মহিলা কলেজের এইচএসসিতে অধ্যয়নরত। তার বাবা আলহাজ আমিনুল ইসলাম ক্বারী একটি কলেজের শিক্ষক।

    ইউপি সদস্য জলিল জানান, শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে মোবাইলে খবর পেয়ে ওই বাড়িতে যান তিনি। সেখানে গিয়ে ওই বাড়ির গেট লাগানো দেখতে পান। ঘরে আতিকার মা কান্না করছিল। ডাকাডাকির পর গেট খুলে দিলে আতিকার মায়ের সারা শরীরে রক্ত দেখতে পান। কি হয়েছে জানতে চাইলে তিনি ঘরে ঢুকে দরজা লাগিয়ে দেন। পরে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ওই বাড়িতে গিয়ে আতিকার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে। বাড়ি থেকে রক্তাক্ত ছুরি, কম্বল জব্দ করে। অন্যদিকে আতিকার বড় ভাই তানজিনের ব্যবহৃত রক্তাক্ত পোশাক বাথরুমে পাওয়া গেলেও তাকে পাওয়া যায়নি। পরে আতিকার মাকে আটক করে পুলিশ।

    সাঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বেলাল হোসেন বলেন, শুক্রবার রাতেই থানায় মামলা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে প্রেম করার অপরাধে মা ও ভাই তাকে হত্যা করেছে। তদন্তে বিস্তারিত বেরিয়ে আসবে।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757