রবিবার, এপ্রিল ১৮, ২০২১

ফের অনিশ্চয়তায় প্রিমিয়ার লীগ ফুটবল

  |   রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১ | প্রিন্ট  

ফের অনিশ্চয়তায় প্রিমিয়ার লীগ ফুটবল

করোনাভাইরাসের কারণে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের সবশেষ আসর পরিত্যক্ত ঘোষণা করেছিল বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। বছর ঘুরে আবার করোনার প্রকোপ বেড়েছে। চলছে সর্বাত্মক লকডাউন। আবারো পরিত্যক্ত হওয়ার শঙ্কা জেগেছে চলমান আসর নিয়ে। যদিও বাফুফে চাইছে দ্রুততম সময়ে এক ভেন্যুতে হলেও লীগ শেষ করতে। ক্লাবগুলোর সঙ্গে লীগ কমিটির ভার্চ্যুয়াল সভা আজ।
প্রথম লেগ শেষ হয়েছে গত ৭ই মার্চ। গত ৯ই এপ্রিল থেকে দ্বিতীয় লেগ শুরুর কথা থাকলেও কঠোর নিষেধাজ্ঞা ও লকডাউনের জন্য ক্রমশ পিছিয়ে যাচ্ছে তা। চলমান পরিস্থিতির পাশাপাশি আবার আন্তর্জাতিক ফুটবলের ব্যস্ত সূচি রয়েছে মে-জুনে।
১৪ই মে এএফসি কাপের চূড়ান্ত পর্ব শুরু। ৩১শে মে থেকে ১৫ই জুন কাতারে জাতীয় দলের বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাই ম্যাচ। লীগে লম্বা ছেদ পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে আবার অনেকে সামগ্রিক প্রেক্ষাপটে এখানেই লীগের সমাপ্তি দেখছেন! তবে বাফুফে সিনিয়র সহ-সভাপতি ও লীগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী যে কোনো উপায়ে লীগ শেষ করতে চাইছেন। এ বিষয়ে তিনি বলেন, এবার সম্পূর্ণ লীগ শেষ হবে, এটা চূড়ান্ত। লীগের সমাপ্তি হতেই হবে। দেশের ফুটবলে ক্লাবগুলোর বিনিয়োগ সর্বোচ্চ পর্যায়ে।’ চলমান লকডাউন ২১শে এপ্রিল শেষ হচ্ছে। এরপর লকডাউন বর্ধিত না হলে বাফুফে লীগ আয়োজনের প্রস্তুতি নেবে। যদি লকডাউন আরো বাড়ে সেক্ষেত্রে কঠিন পরিস্থিতিতে পড়তে পারে বাফুফে। লকডাউনের সময়সীমা যত বাড়বে তখন ক্লাব ও জাতীয় দলের আন্তর্জাতিক সূচি আরো কাছাকাছি এসে পড়বে। এই প্রসঙ্গে বাফুফের লীগ কমিটির চেয়ারম্যান সালাম মুর্শেদী বলেন, ‘ লীগ কমিটির ভার্চুয়াল সভা করবো আজ। ক্লাবগুলোর মতামত নেয়ার পাশাপাশি তাদের বর্তমান অবস্থা জানাবো। যাতে আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে সুবিধা হয়।’ বাফুফের ঘোষণা অনুযায়ী লকডাউন শেষ হওয়ার এক সপ্তাহ পর লীগ শুরু হবে। তবে সেটা কতটুকু বাস্তব সম্মত তা এখনই বলা যাচ্ছে না। লীগ কমিটির চেয়ারম্যান বলেন, ‘লীগ পুনরায় শুরুর ব্যাপারে দুই-তিনটি বিষয় বিবেচনা করবো। ফুটবলাররা যাতে ফিট হয়ে লীগ খেলতে পারে। ফুটবলাররা আনফিট ও ইনজুরিতে পড়ুক সেটা আমাদের কারো কাম্য নয়। আরেকটি বিষয় ক্লাবগুলো যাতে সমস্যায় না পড়ে। খেলোয়াড় ও ক্লাবের স্বার্থ বিবেচনা করেই আমরা সুষ্ঠ মতো লীগ শেষ করার আশা করছি।’ লীগ কমিটির ভার্চুয়াল সভায় লীগের দ্বিতীয় লেগ শুরুর সুনির্দিষ্ট তারিখ ঘোষণা না হলেও কয়েকটি নীতিগত সিদ্ধান্ত আসতে পারে। বসুন্ধরা কিংস ও আবাহনীর এএফসি কাপ ম্যাচ রয়েছে। এএফসি কাপ চলার সময় অন্য ক্লাবগুলোর ম্যাচ চালিয়ে রাখার বিষয়টি প্রাধান্য পেতে পারে। কারণ, লীগের মেয়াদ বাড়লে ক্লাবগুলোর খরচও বাড়ে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের ভেন্যু এখন ঢাকা, কুমিল্লা, মুন্সিগঞ্জ ও টঙ্গী। করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় সব ভেন্যুই থাকবে নাকি কোনো সেন্ট্রাল ভেন্যুতে খেলা হবে সেটাও দেখার বিষয়। এসসব নিয়ে সালাম মুশের্দী বলেন, আমাদের সবার আগে লক্ষ্য থাকবে লীগটা দ্রুততম সময়ের মধ্যে শেষ করা। সেটা করতে যদি এক ভেন্যুতে লীগের বাদবাকি ম্যাচ আয়োজন করতে হয় আমরা তাই করবো। কিন্তু লীগটা শেষ করতে চাই।’


Posted ৫:৪৯ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar