• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ফেসবুক ও আমাদের প্রজন্ম

    মাহবুব হাসান বাবর | ২০ অক্টোবর ২০১৮ | ৬:১৪ অপরাহ্ণ

    ফেসবুক ও আমাদের প্রজন্ম

    ইদানিং আমরা ফেসবুক সংস্কৃতিতে আছি। আর এই সংস্কৃতির সাথে বেশীরভাগই যুক্ত আমাদের প্রজন্মরা।কেমন চলছে এই ফেসবুক সংস্কৃতি! প্রিয় পাঠক, আজ ফেসবুক অন করতেই একজন লোকের ছবি স্ক্রিনে ভেসে উঠলো। লোকটি আমার পরিচিত।বয়স ৫০ প্লাস।চেহারার হালসুরত অতো বেশী ভালোনা।কিন্তু তার ছবির কমেন্টস পড়ে অবাকই হচ্ছিলাম- হায় হ্যান্ডসাম, ইউ আর ছো হট, ইনবক্সে আসো, ওসাম, ফোন সেক্স করবা, লুকিং নাইছ, হেব্বি লাগছে, হ্যালো ক্রেজি বয় ইত্যাদি ইত্যাদি। এই হলো আমাদের থার্ড জেনারেশন। বেশ কয়েকদিন আগের আরেকটি ঘটনা। আমার এক দুঃসম্পর্কের আত্নিয়। সম্পর্কে আমার খালা হন। তিনি তিন সন্তানের জননী। বড় মেয়ে সবেমাত্র ডাক্তারি চান্স পেয়েছে। তার কোন এক সন্তান তার মায়ের ছবিটি ফেসবুকে আপলোড করলো। ঘন্টা চারেক পর ফেসবুকে ১১৪৪ টি লাইক। কিন্তু ৭৭ টি কমেন্টস পড়তেই বিস্মিত হতে হলো- হাই সেক্সি, মাথা গরম, ইউ আর হট, জটিল মাল,দারুন ফিগার, ঠিকানা আর ফোন নাম্বার দাও ডার্লিং ইত্যাদি নোংরা কমেন্টস। যদিও কিছু ভাল কমেন্টসও ছিলো। এই হচ্ছে আমাদের জেনারেশনের মন্তব্য। ইদানিং ফেসবুকে আরেকটি বিষয় লক্ষ্য করা যায়, তা হলো কিছু ভূয়া( Fake) আইডি খুলে অশ্লীলতাই শুধু ছড়াচ্ছে তা নয়। বরং এমন কিছু মন্তব্য লিখছে যা দেশ- জাতি- ধর্ম বর্নকে বিভ্রান্ত করছে। আজকাল একটি চক্র ফেসবুকে অনেক সুন্দর সুন্দর মেয়েদের ছবি কপি করে। পরে এইসব ছবির সাথে একটি লিংক দিয়ে দেয়। তারপর ছবির উপরে লিখে দেয়, এর সাথে যদি কেউ ফোন সেক্স, রিয়েল সেক্স কিংবা টেক্সট সেক্স করতে চাও নিচের মোবাইল নম্বরে ফোন দাও। আরো লেখা থাকে এই নম্বরে বিভিন্ন অংকের বিকাশ করো। এই ছবিগুলো হতে পারে আমার স্ত্রী বা বোন অথবা মেয়ের কিংবা কোন স্বজনের। এই চক্রটি অন্যের ছবি ব্যাবহার করে নোংরা মেয়েদের দিয়ে ফোনে কথা বলিয়ে এসব কাজ করছে। আর তার শিকার হচ্ছে আমাদের প্রজন্মরা। প্রিয় পাঠক, আরো কিছু আইডি দেখবেন ছদ্মনামে যেমন- বুনো মানুষ,ভালবাসার কছম, অচেনা বালক, এন্জেল অমুক তমুক সেক্সি মেয়ে,,রাজকন্যা,শেষ বিকেলের আলো, ভবঘুরে, বাপের হোটেল,নাম পরে দিমু,অর্থহীন, বয়স যখন আঠারো, ভাবী ইন ঢাকা, সিলেটের মেয়েরা, মিষ্টি আপু, রসের বাইদানী, চটি গল্প ইত্যাদি ইত্যাদি নামের প্রোফাইলে গিয়ে কিছুই পাওয়া যায়না। এই আইডি গুলোর সাথে অশ্লীলতার একটা বিরাট যোগসূত্র আছে। এমনকি অনেক নামী- দামী লোকদের নামেও আইডি খুলে ব্লাকমেইল করছে। এ পর্যন্ত সাইবার ক্রাইমে যারা আটক হয়েছে তার সবই টিন এজ। প্রেমের ফাঁদ পেতে মোবাইলে স্টিল পিকচার, ভয়েস রেকর্ড কিংবা ভিডিওর শিকার হচ্ছে তরুন – তরুনীরা। একসময় এগুলো চলে যায় ফেসবুকে। এই হচ্ছে আমাদের ফেসবুক সংস্কৃতি। পাল্লা দিয়ে ছবি তুলে আপলোড করছে সবাই- এই আমার কুকুরের ছবি,আমি যখন বাথরুমে, আজ কলার খোসা ভর্তা দিয়ে ডিনার হবে। কেউ কেউ সং সেজে ঢং মেরে সে ছবিও আপলোড করছে। এ এক বিরাট বিনোদন। ঘুম থেকে জেগে ফেসবুক। কটা এস এম এস, কটা নোটিফিকেশন এগুলো নিয়েই দিন শুরু। রাত তিনটে পর্যন্ত ফেসবুক সংস্কৃতি। গতকাল একটা স্টাটাসে আমার এক ফেসবুক বন্ধু লিখেছে,বাথরুমে গিয়ে দেখি পানি নেই।বিপত্তিতে পড়লাম। অবশেষে আন্ডার ওয়ার খুলে পানির কাজটা করলাম। আসলেই প্রাইভেসি দিনদিন ওঠে গেছে। কবরে সেলফি, নামাজে দাড়িয়ে সেলফি। বেডরুমের সেলফিতো কমন হয়ে গেছে। যে যে যা করছে তার সেলফি দিচ্ছে। খাদ্য অখাদ্য যা হোক চলছে তার ছবি পোষ্ট। য়ে কার আগে কি জানাবে ফেসবুকে তাই নিয়ে সবাই ব্যাস্ত। হাল সময়ে আরেক বিড়ম্বনা কিছু মেয়েদের সেক্সি লাইভ। নগ্ন কিংবা অর্ধনগ্ন হয়ে লাইভে আসা। তারপর কত রকমের শব্দ করা। অঙ্গভঙ্গি নাড়ানো। কমেন্টসে গেলে বোঝা যায় যুব সমাজের মধুর বানী। বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম হলো ফেসবুক। সার্চ অপারেটিং ওয়েবসাইট গুগল। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই যা দেখতে চাই তাই পেয়ে যাই। কিন্তু আমাদের প্রজন্মরা খোঁজে পর্ন ভিডিও, পর্ন পিকচার, অথবা চটি গল্প। সম্প্রতি একটি বেসরকারী সংস্থা গবেষনা করে দেখেছে, অষ্টম শ্রেনী থেকে একাদশ শ্রেনীর ছাত্র-ছাত্রীরা পর্ন আসক্তির সাথে যুক্ত। এই প্রজন্মকে রক্ষা করতে পারেন পিতা মাতা কিংবা অভিভাবক। তার আদরের সন্তানের হাতে যে েএনড্রোয়েড মোবাইলটি দিয়েছেন সেটার সঠিক ব্যাবহার হচ্ছে কিনা একটু দেখুন, ইন্টারনেট সংযোগে সে কি দেখছে, রাতের ভিডিও কল কিংবা ভাইবার, স্কাইপি কিংবা অন্য সংযোগে কাদের সাথে কি বলছে, ফেসবুক আসক্তিতে অাছে কিনা, মেমোরি কার্ডে কোন ধরনের ডকুমেন্ট আছে। প্রিয় পাঠক, আপনার প্রিয় সন্তানটি ইদানিং আরেকটি সংস্কৃতির সাথে জড়াতে পারে, তাহলো Short word. অথ্যাৎ এই প্রজন্মরা যখন বাসায় থাকে তারা সবার সামনে কিছু সংক্ষেপ কথা বন্ধু বান্ধবের সাথে বলে থাকে যেমন – pp( personal problem), ab( baba assay), psk( phone sex korba), gb( go bed), ov( viber on)ইত্যাদি ইত্যাদি। প্রিয় প্রজন্ম তোমাদের দিকে তাকিয়ে আছে বাবা- মা, দেশ- জাতি। নেতিবাচক সংস্কৃতি বাদ দিয়ে ইতিবাচক সংস্কৃতিতে ফিরে আসো। তোমাদের জন্যই তৈরী হয়েছে ফেসবুক, টুইটর, ভাইবার, স্কাইপির মতো আরো কিছু যোগাযোগের আর বিশ্বকে হাতের মুঠোয় আনার দৃঢ় সংকল্প। ভালোটা গ্রহন করো, মন্দটা ছুড়ে ফেলে দাও। তোমরাই হবে আগামীর রবীন্দ্রনাথ, প্লেটো, গোর্কি, মাদার তেরেসা। প্রিয় প্রজন্ম,তোমরাই হবে আগামীর নেতৃত্ব। তোমরাই হবে আগামীর রাষ্ট্র নায়ক।


    Facebook Comments


    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4669