• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ফেসবুক প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীকে বিয়ে দিল স্বামী

    অগ্রবাণী ডেস্ক: | ০৩ এপ্রিল ২০১৭ | ৭:৩৪ অপরাহ্ণ

    ফেসবুক প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীকে বিয়ে দিল স্বামী

    সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীটিকে স্কুলে যাওয়া-আসার পথে ইভটিজিং করতেন রুস্তম চৌকিদার (২৫)। নানাভাবে কুপ্রস্তাব দিতেন। মেয়ের পরিবার বিষয়টি স্থানীয় গণ্যমান্যদের জানালে এ নিয়ে দেনদরবার হয়। পরে এলাকাবাসীর সিদ্ধান্তে আটমাস আগে সপ্তম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে (১৪) বিয়ে করেন রুস্তম। এবার সুখের সংসার সাজানোর পালা। কিন্তু এমনটা হলো না তাদের। বরং নিজের স্ত্রীকে তার ফেসবুকে পরিচয় হওয়া প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসিয়ে দিলেন বর্তমান স্বামী। এদিকে হাসিমুখেই স্বামীর তালাক গ্রহণ করে বিদায় নিল স্ত্রী।

    আর এমন এক বিরল ঘটনার সাক্ষী হল শরীয়তপুর সদর উপজেলার রুদ্রকর ইউনিয়নবাসী।


    রবিবার (২ মার্চ, ২০১৭) রাতে জেলার সদর উপজেলার রুদ্রকরের সোনামুখি গ্রামে প্রবাসী মো. সায়েম চৌকিদারের মেয়ে জাকিয়ার দ্বিতীয় বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে বলে জানা যায়। সে বর্তমানে সুবচনি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী।

    জানা যায়, উপজেলার রুদ্রকর ইউনিয়নের সোনামুখি গ্রামের প্রবাসী সায়েদ চৌকিদারের মেয়ে জাকিয়ার (১৪) সঙ্গে আটমাস পূর্বে বিয়ে হয় একই এলাকার হানিফ চৌকিদারের ছেলে রুস্তম চৌকিদারের। কেন নাবালক মেয়েকে পরিবার বিয়ে দিতে রাজি হয় তা জানা যায়নি। এদিকে বিয়ের কিছু দিন পর ফেসবুকে জাকিয়ার সঙ্গে পরিচয় হয় একই উপজেলার মনহর বাজার এলাকার মনুউল্লা চৌকিদারের ছেলে আসিফের (২৪) সঙ্গে। আস্তে আস্তে তাদের মধ্যে সম্পর্ক গভীর হতে থাকে। ফেসবুকে চলে চ্যাটিং। মেসেঞ্জারে আলাপন। এক পর্যায়ে তাদের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সম্পর্ক গভীর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মনে বাসনা জাগে একটু দেখা করার। একান্তে সময় কাটাবার। কিন্তু অন্যের স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করা তো এত সহজ নয়। কারও চোখে পড়লে রেহাই নেই। তাই রবিবার গভীর রাতে চুপি চুপি ফেসবুকের সেই প্রেমিক আসিফ দেখা করতে যায় জাকিয়ার বাড়িতে।

    কথায় বলে যেখানে বাঘের ভয়, সেখানে সন্ধ্যা হয়। ভাগ্যের নির্মম পরিহাস! জাকিয়া-আসিফের বেলায়ও হলো তাই। তারা যখন প্রেমের টানে রাত-দুপুরে একান্তে মিলিত হল, তখনই হাজির জাকিয়ার স্বামী রুস্তম। হাতেনাতে ধরে ফেললেন দু’জনকে। খবর দেন পাড়া-পড়শিদের। খবর পেয়ে ছুটে আসেন স্থানীয় ইউপি মেম্বার টুটুল ঢালী। উভয় পক্ষের সঙ্গে দেনদরবার শেষে স্বামীর উপস্থিতিতে ফেসবুকে পরিচয় হওয়া সেই প্রেমিক আসিফের সঙ্গে রেজিস্ট্রি ছাড়া বিয়ে সম্পন্ন করেন। এর আগে বিয়ের বয়স না হওয়ায় পূর্বের স্বামী রুস্তমের সঙ্গেও জাকিয়ার রেজিস্ট্রি ছাড়াই বিয়ে সম্পন্ন হয়েছিল।

    স্থানীয় ইউপি মেম্বার টুটুল ঢালী বলেন, জাকিয়া আমার প্রতিবেশি ভাগনি হয়। রবিবার রাতে ঘটনাটি শোনার পর জাকিয়াদের বাড়িতে আসি। পরে সাবেক স্বামী রুস্তম জাকিয়াকে খোলা তালাক দিলে আসিফ (ফেসবুকের প্রেমিক) জাকিয়াকে বিয়ে করে। রেজিস্ট্রি ছাড়াই বিয়ে সম্পন্ন করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কথাটি এড়িয়ে যান।

    রুদ্রকর ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান ঢালী বলেন, সরকার বাল্য বিয়ের ব্যাপারে আইন করেছে। কিন্তু সে আইন তারা না মেনে রেজিস্ট্রি ছাড়াই বিয়ে সম্পন করেছে বলে জানতে পেরেছি। এটা আইনভঙ্গ। এর সাজা হওয়া উচিত।

    এ ব্যাপারে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) জিয়াউর রহমান বলেন, এমন কোন বাল্য বিয়ের ঘটনা ঘটে থাকলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

    -এলএস

    Comments

    comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিয়ে করাই তার নেশা!

    ২১ জুলাই ২০১৭

    কে এই নারী, তার বাবা কে?

    ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী