• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    বদ্ধ ঘরে মিললো গোপালগঞ্জের এই দম্পতির লাশ, রহস্য

    ডেস্ক | ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ৯:৫৫ অপরাহ্ণ

    বদ্ধ ঘরে মিললো গোপালগঞ্জের এই দম্পতির লাশ, রহস্য

    অভাবের সংসারে প্রেম-প্রণয়ের দুই বছরের মাথায় মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে নিয়েছেন স্বামী-স্ত্রী। ফরিদপুর শহরের পূর্ব খাবাসপুর মহল্লার লঞ্চঘাট এলাকার একটি ভাড়া বাসায় তাদের মৃত্যু হয়। প্রাথমিক অবস্থায় ধারণা করা হয় সংসারের টানা-পড়েনে পড়ে তারা মৃত্যুকে গ্রহণ করেন।


    এদিকে এ ঘটনায় স্মৃতি বণিকের ভাই নিলয় বণিক মঙ্গলবার অজ্ঞাতদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।


    সোমবার রাত ৮টার দিকে ফরিদপুর কোতয়ালী থানার পুলিশ ঘরের দরজা ভেঙে লাশ দুটি উদ্ধার করে।

    মৃত স্বামী ও স্ত্রীর নাম রাজীব বিশ্বাস (৩৪) ও স্মৃতি বণিক (২২)।

    এরা দুজন গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলার বাটিকামারী এলাকার বাসিন্দা। স্মৃতি বণিক মুকসুদপুরের বাটিকামারী এলাকার খোকন বণিকের মেয়ে।

    রাজিব বণিকের গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর উপজেলায়। তিনি ফরিদপুর সদর উপজেলার মমিন খাঁর হাটে অবস্থিত একটি কলেজে শিক্ষক হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন বলে জানা গেছে।

    পূর্ব খাবাসপুরের লঞ্চঘাট মহল্লার বাড়ির মালিক শওকত সরদার জানান, বছর খানেক আগে ওই দম্পতি তার বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে থাকতে শুরু করে। ওই সময় তাদের মধ্যে রাজিব কলেজে শিক্ষকতা আর তার স্ত্রী টিউশনি করেন বলে তারা বাড়িটি ভাড়া নেন।

    ওই বাড়ির অপর এক ভাড়াটিয়া ফারুক শিকদার বলেন, সন্ধ্যার দিকে সোনালীর মাসি তাদের ঘরের একটি দরজা বন্ধসহ অপর দরজায় তালা দেয়া দেখতে পান। এ সময় তিনি রাজিবের স্ত্রীকে ডাকলেও তারা দরজা খোলেনি কেউ। এক পর্যায়ে বাজার থেকে লোক এনে তালা ভাঙলেও ভেতর থেকে দরজা বন্ধ থাকায় তা খোলা সম্ভব হয়নি। পরে তার মাসি ঘরের একটি জানালা ভাঙলে দেখতে পান ঘরের মধ্যে গলায় রশি নেয়া অবস্থায় রাজিবের লাশ ঝুলছে। আর তার স্ত্রী সোনালীর মৃতদেহ বিছানায় পড়ে রয়েছে।

    এ দিকে ফারুক শিকদারের স্ত্রী আছিয়া বলেন, ওই দম্পতি বেশিরভাগ সময় ঘরেই কাটাতো। ব্যবহারেও তারা অমায়িক ছিলেন। আমার বাচ্চারা দুপুরে বদ্ধ ঘরে ওই দুজনকে ঝগড়া করতে শুনেছি।

    খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসা সোনালীর মেসো গোপাল পোদ্দার জানান, দুই বছর আগে রাজিব ও সোনালী প্রেম করে একে অপরের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। এরপর থেকেই তারা পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন ছিলো। সম্প্রতি কথা প্রসঙ্গে রাজিব তাকে জানায় সে চরের একটি কলেজে শিক্ষক হিসেবে যোগ দিয়েছে। এরপর থেকে আর তার সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি রাজিবের।

    ফরিদপুর কোতয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বেলাল হোসেন জানান, পুলিশ দরজা ভেঙে ঝুলন্ত অবস্থায় রাজীবের লাশ এবং শয্যায় পড়ে থাকা অবস্থায় স্বপ্নার লাশ উদ্ধার করে।

    তিনি বলেন, যে ঘর থেকে লাশ উদ্ধার করা হয় সেটি ভিতর থেকে বন্ধ ছিলো। লাশ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

    এ ঘটনায় নিহত সৃতি বণিকের ভাই নিলয় বনিক মঙ্গলবার অজ্ঞাতদের আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673