• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    বাউফলে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে তরুণীকে গণধর্ষণ!

    অনলাইন ডেস্ক | ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ৬:১১ অপরাহ্ণ

    বাউফলে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে তরুণীকে গণধর্ষণ!

    পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায় আজ শনিবার ঈদের দিন সকালে এক তরুণীকে (১৯) রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয়েছে। তরুণী বাদী হয়ে দুপুরে পাঁচজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলাটি করেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে কবির হোসেন (২৮) নামের এক ব্যক্তিকে স্থানীয় লোকজন পিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছেন।


    স্থানীয় লোকজন, পুলিশ ও মামলার সূত্রে জানা গেছে, ওই তরুণীর মা পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তরুণীটি তাঁর মায়ের সঙ্গেই ছিলেন। আজ ভোরে তিনি হাসপাতাল থেকে গ্রামের বাড়ির উদ্দেশে রওনা হন। তিনি ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলে করে যাওয়ার পথে পাঁচ যুবক মোটরসাইকেলটির গতি রোধ করেন। তাঁরা তরুণীর মুখ চেপে ধরে তুলে নিয়ে যান। আধা কিলোমিটার দূরের এক পরিত্যক্ত ভিটায় নিয়ে তাঁরা তাঁকে ধর্ষণ করেন। তরুণীর চিৎকারে স্থানীয় কয়েকজন যুবক এগিয়ে গেলে ওই পাঁচ যুবক পালানোর চেষ্টা করেন। তখন কবিরকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

    ajkerograbani.com

    প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কবির দাবি করেন, তিনি ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত নন। তাঁর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ঘটনার সঙ্গে জড়িত চার সন্দেহভাজন হলেন জাফর গাজী (৩০), মিজান সরদার (২৪), সিদ্দিক (৩০) ও মনজু (২৮)। তাঁরা সবাই ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেলের চালক।

    বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আযম খান ফারুকী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তরুণী পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করেছেন। একজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। বাকি চারজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। আর তরুণীর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

    গত ২৫ আগস্ট রাতে বগুড়া থেকে বাসে করে ময়মনসিংহ যাওয়ার পথে রূপা খাতুন নামের বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের এক কর্মীকে ধর্ষণের পর ঘাড় মটকে হত্যা করে টাঙ্গাইলের মধুপুরের বনে ফেলে দেওয়া হয়।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755