শুক্রবার, মার্চ ১৩, ২০২০

বিদেশফেরত ব্যক্তিরা ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে না থাকলে ব্যবস্থা: আইইডিসিআর

ডেস্ক   |   শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

বিদেশফেরত ব্যক্তিরা ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে না থাকলে ব্যবস্থা: আইইডিসিআর

বিদেশফেরত ব্যক্তিরা ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা না মানলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান-আইইডিসিআরে’র পরিচালক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।
শুক্রবার (১৩ মার্চ) সকালে আইইডিসিআরের অডিটোরিয়ামে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি। একই সঙ্গে বিদেশফেরতদের সামাজিকভাবে হেয় না করারও আহ্বান জানান তিনি।
সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, ‘যারা বিদেশ থেকে আসছেন, তারা অন্তত ১৪ দিন নিজের ঘরে থাকুন। অনেকেই সংক্রমণ রোধে সরকারের নির্দেশনা মানছেন না। এখন পর্যন্ত সরকার সহানুভূতিশীল পদক্ষেপ নিয়েছে। মানুষ নির্দেশনা না মানলে শক্ত পদক্ষেপ নিতে পারে। আমরা চাই আপনাদের সহযোগিতা, সবাই মিলে এই ব্যাধি মোকাবিলা করব। সংক্রমণ ব্যাধি প্রতিরোধে আইন আছে, চাইলে সে আইন প্রয়োগ করতে পারি।’
সমাবেশ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দিয়ে ফ্লোরা বলেন, ‘নিয়মিত দুই হাত ধুবেন। আক্রান্তদের এড়িয়ে চলুন, হাত মেলাবেন না। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বিদেশ ভ্রমণ থেকে দূরে থাকুন। প্রয়োজন না হলে সমাবেশ থেকে বিরত থাকুন।’
সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, সপ্তাহ খানেক আগে বাংলাদেশে যে তিনজনকে করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছিল তাদের দুজন সুস্থ হয়েছেন। ইতিমধ্যে একজন বাড়িতে চলে গেছেন। সুস্থ আরেকজন বাড়ি যাননি। কারণ তার পরিবারের একজন অসুস্থ ও বাড়িতে পরিবারের সদস্যরা সবাই কোয়ারেন্টাইনে আছেন। সেজন্য তাকে হাসপাতালেই রাখা হয়েছে। বাকি আরেকজনের রিপোর্ট এখনও পজেটিভ আসেনি।
ফ্লোরা বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ অনুসা‌রে আক্রান্ত যেকোনো রোগীর ২৪ ঘণ্টার ব্যবধা‌নে দুবার নমুনা পরীক্ষার ফলাফ‌লে ভাইরা‌সের উপ‌স্থি‌তি নে‌গে‌টিভ পাওয়া গে‌লে ক‌রোনামুক্ত ঘোষণা করা যায়। সে বি‌বেচনায় দুজন রোগী‌কে ক‌রোনামুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। আক্রান্ত আরেক রোগীর একবার নে‌গে‌টিভ এ‌সে‌ছে, আরেকবার নে‌গে‌টিভ পাওয়া গে‌লে তা‌কেও ক‌রোনামুক্ত ঘোষণা করা হ‌বে।
দেশের বাইরে সিঙ্গাপুরে পাঁচজন এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইতালিতে এর আগে দুজন বাংলাদেশির মধ্যে নভেল করোনাভাইরাস ধরা পড়েছিল। তাদের মধ্যে সিঙ্গাপুরের চারজন ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। একজনের অবস্থা সঙ্কটাপন্ন, তার অবস্থার তেমন কোনো পরিবর্তন হয়নি।


Posted ৭:১১ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১