• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    বুমরাহ কোটিপতি, তবুও অটোচালক দাদু!

    অনলাইন ডেস্ক: | ০৩ জুলাই ২০১৭ | ১১:১৮ অপরাহ্ণ

    বুমরাহ কোটিপতি, তবুও অটোচালক দাদু!

    জসপ্রীত বুমরাহ এখন ভারতীয় ক্রিকেটের তরুণ তারকা। ডেথ ওভারে তাঁকে সামলাতে হিমশিম খান বিপক্ষের ব্যাটসম্যানরা। তাঁর ইয়র্কারে নাস্তানাবুদ হয়ে যেতে হয় অনেক তাবড় ব্যাটসম্যানকেও। এরইমধ্যে কোটিপতি বনে গেছেন। এহেন জসপ্রীত বুমরাহর দাদা সন্তোখ সিংহ বুমরাহ এখন নিদারুণ আর্থিক কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। অটো চালিয়ে পার হয় দিন।


    বৃদ্ধ সন্তোখের এখন একটাই আশা, তাঁর বিখ্যাত ক্রিকেটার নাতির সঙ্গে যদি একবার সাক্ষাৎ হয়। ভুবনখ্যাত নাতির সঙ্গে দেখা হলেই বৃদ্ধ সন্তোখ নাতিকে বুকে টেনে নেবেন। আদর করবেন ‘ছোট্ট’ নাতিকে। তাহলেই বৃদ্ধের মনে জমে থাকা যাবতীয় দুঃখ-কষ্ট সব উধাও হয়ে যাবে।

    ajkerograbani.com

    আর্থিক কষ্টে দিন কাটালেও সন্তোখ কিন্তু ভুবনখ্যাত ভারতীয় পেসারের কাছ থেকে আর্থিক সাহায্য চান না। বরং নাতির ভালবাসা চান। তাহলেই বৃদ্ধের মন খুশিতে ভরে উঠবে। অশীতিপর বৃদ্ধ মনে করবেন, বড় হয়ে গেলেও তাঁর নাতি ভুলে যাননি সন্তোখকে। নিজের অবস্থার উন্নতির জন্য এবং ভারত-বিখ্যাত বুমরাহর সঙ্গে সাক্ষাৎ করার জন্য উত্তরাখণ্ডের উধম সিংহ নগর জেলার মহকুমা শাসক নরেশ দুর্গাপলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। তাঁর আর্থিক কষ্টের কথাও তুলে ধরেছেন। কী হবে তার জবাব দেবে সময়।

    সব ঠিকঠাক থাকলে আজ এই অবস্থায় পৌঁছতেন না সন্তোখ। আমদাবাদে তিনটি কারখানার মালিক ছিলেন বুমরাহর দাদু। বোঝাই যাচ্ছে অবস্থা রীতিমতো ভালই ছিল। ২০০১-এ বুমরাহর বাবা যশবীর মারা যান। তখন বুমরাহর বয়স মাত্র সাত। মা দলজিৎ একার হাতে ছেলেকে মানুষ করেন। ২০০৬ সালে বাধ্য হয়ে কারখানাগুলো বিক্রি করে দিতে হয় সন্তোখকে। তার পরেই জীবনের অন্য দিক দেখেন সন্তোখ। এখন প্রবল আর্থিক কষ্টে ভুগছেন সন্তোখ। অটো চালিয়ে দিন কাটাচ্ছেন তিনি। মহকুমা শাসকও আশ্বস্ত করেছেন বৃদ্ধকে। বুমরাহর সঙ্গে যাতে দাদুর সাক্ষাৎ হয়, সেই চেষ্টাও করা হবে বলে জানিয়েছেন মহকুমা শাসক।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757