• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ব্যবসা ও চাকরি করুন এশিয়ার ইউরোপখ্যাত মালয়েশিয়ায়

    আজকের অগ্রবাণী ডেস্ক: | ০২ এপ্রিল ২০১৭ | ৩:৫১ অপরাহ্ণ

    ব্যবসা ও চাকরি করুন এশিয়ার ইউরোপখ্যাত মালয়েশিয়ায়

    দক্ষিণ এশিয়ায় অর্থনৈতিকভাবে সবচেয়ে সমৃদ্ধ ও ব্যবসাবান্ধব দেশের নাম মালয়েশিয়া। মজবুত ও স্থিতিশীল অর্থনৈতিক কাঠামোর কারণে মালয়েশিয়াকে শুধু এশিয়া মহাদেশ নয়, সমগ্র পৃথিবীতে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে দেখা হয়।


    সঠিক পরিকল্পনা ও বাস্তবসম্মত ধারণা নিয়ে যে কেউ মালয়েশিয়ায় গিয়ে ব্যবসা করতে পারেন। মালয়েশিয়ার বাজারে যেমন রয়েছে বাংলাদেশের দক্ষ-অদক্ষ শ্রমিকদের ব্যাপক চাহিদা, ঠিক তেমনি স্বল্প, মাঝারি বা বড় পুঁজির ব্যবসায়ীদের রয়েছে নিরাপদে মূলধন বিনিয়োগের এক আদর্শ বাজার। কোনো প্রকার বিনিয়োগ ছাড়াই কোম্পানি রেজিস্ট্রেশন করে সহজে ভিসা নিয়ে মালয়েশিয়ায় যেকোনো বৈধ ব্যবসা করা যায়। এ জন্য দরকার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও পরিশ্রম করার মানসিকতা।


    নানাবিধ দেশি ও আন্তর্জাতিক কারণে প্রায় এক বছর মালয়েশিয়ায় বিজনেস মাইগ্রেশন করাটা প্রায় অসম্ভব হয়ে পড়ে। মালয়েশিয়ার প্রশাসন ও ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্টের অসহযোগিতার কারণে দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকা বিজনেস মাইগ্রেশন আবার চালু হয়েছে। নতুন কিছু আইন সংযোজন ও বিয়োজন করার পর বাংলাদেশিরা আবার বিজনেস মাইগ্রেশন করতে পারছেন।

    মালয়েশিয়ায় ব্যবসার ক্ষেত্রে বর্তমান অবস্থা, সুযোগ-সুবিধা ও নতুন আইন-কানুন সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আন্তর্জাতিক অভিবাসন আইন বিশেষজ্ঞ, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী, ওয়ার্ল্ড ওয়াইড মাইগ্রেশন কনসালট্যান্টস লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও দৈনিক ‘আজকের অগ্রবাণী’ পত্রিকার প্রধান সম্পাদক ড. শেখ সালাহউদ্দিন আহমেদ রাজুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।

    রাজু বলেন, স্বল্প বিনিয়োগকারীদের জন্য মালয়েশিয়া একটি ভালো বাজার। জমি ইজারা নিয়ে কৃষি খামার, মাছ চাষ, ডেইরি ফার্ম বা মানুষের প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী বিক্রয় করে উপার্জন করা যেতে পারে। এ ছাড়া সেবামূলক প্রতিষ্ঠান স্থাপন, গাড়ি ব্যবসা বা ছোট বা বড় হোটেল ব্যবসা করা যেতে পারে। চেইনশপের ফ্র্যাঞ্চাইজি নেওয়া, ইনফরমেশন টেকনোলজি (আইটি) ব্যবসা অথবা ফাস্টফুডের দোকান দিয়ে সহজেই ব্যবসা করা যায়।

    মালয়েশিয়ায় ব্যবসা করতে হলে প্রথমে একটি কোম্পানি খুলতে হবে। মালেয়শিয়ায় দুভাবে কোম্পানি খুলে ব্যবসা করা যায়। মালয়েশিয়ায় অফশোর কোম্পানির (আন্তর্জাতিক কোম্পানি) অধীনে ১০০ শতাংশ বিদেশি শেয়ারে ব্যবসা করা যায়। এ ছাড়া Sdn. Bhd. কোম্পানির মাধ্যমে কর্মসংস্থান পাসের (এমপ্লয়মেন্ট পাস) মাধ্যমে যে কেউ বৈধ ভিসা নিয়ে সপরিবারে বসবাস ও ব্যবসা করতে পারেন। মালয়েশিয়ায় এটি সংক্ষেপে SDN-BHD কোম্পানি নামে পরিচিত।

    আন্তর্জাতিক কোম্পানির অধীনে বিজনেস রেসিডেন্স ভিসা অথবা SDN-BHD কোম্পানির মাধ্যমে ব্যবসা করলে পাঁচ বছর পরে মালয়েশিয়ার নাগরিকত্ব (পিআর) সহজেইপাওয়া যায়। দুই বছর পর পর ভিসা নবায়ন করে আজীবন দেশটিতে বসবাস করা যায়।

    নতুন আইন অনুযায়ী প্রতিটি নিবন্ধিত কোম্পানিকে ESD-এর অধীনে নিবন্ধন করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এতে ফাইল বাতিল হওয়ার সুযোগ নেই। এতে সময় ও ব্যয় দুটোই বেড়ে গেছে, তবে বিষয়টি মোটেও অসম্ভব বা অবাস্তব নয়। তাই দেরি না করে শিক্ষাগত যোগ্যতার পূর্ণাঙ্গ জীবনবৃত্তান্তসহ সর্বশেষ সনদ ও ব্যাংক স্টেটমেন্ট নিয়ে আবেদন করা যায়। এরই মধ্যে ব্যবসার পরিকল্পনাটি প্রস্তাবনা আকারে তৈরি করে নিতে হবে।

    দ্য রেসিডেন্স পাস-ট্যালেন্ট (আরপি-টি) ভিসা

    মালয়েশিয়ায় প্রয়োজন ও যোগ্যতা অনুযায়ী নেওয়া যেতে পারে আরটিপি-ট্যালেন্ট ভিসা। নবায়নযোগ্য ভিসার মাধ্যমে ১০ বছরের অনুমোদনসহ পাঁচ বছরের স্টিকার নিয়ে দীর্ঘ সময় মালয়েশিয়ায় থাকা যায়। মূলত সবকিছুই নির্ভর করছে চাহিদা, দক্ষতার ওপর। কয়েক বছর ধরেই মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশের নাগরিকদের বিজনেস রেসিডেন্স ভিসাসহ অন্য ভিসা নিয়ে কাজ করছেন ড. শেখ সালাহউদ্দিন আহমেদ রাজু। তাঁর হাত ধরেই অনেকে নিয়েছেন মালয়েশিয়ার নাগরিকত্ব। কোম্পানি নিবন্ধন, ট্রেড লাইসেন্স, অ্যাকাউন্ট খোলা (এটিএম কার্ডসহ) সব ধরনের ব্যবসায় আইনগত সহযোগিতা করে আসছে তিনি।

    সালাউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘সততাই আমার একমাত্র পুঁজি। মিথ্যার আশ্রয় না নিয়ে সঠিক প্রক্রিয়া অনুসরণ করে কাগজপত্র দাখিল করলে কোনো প্রার্থীর আবেদনের ফাইল প্রত্যাখ্যাত হওয়ার আশঙ্কা থাকে না। এ ক্ষেত্রে সততাই বড় বিষয়।’

    মালয়েশিয়ায় নাগরিকত্ব পেতে এবং বিজনেস রেসিডেন্স ভিসা পেতে কী কী করতে হবে, সে বিষয়ে বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করা যাবে info@worldwidemigration.org ই-মেইল ঠিকানায়। আরো জানতে ভিজিট করা যাবে কোম্পানির ওয়েবসাইটে (www.wwbmc.com)। এ ছাড়া সব আপডেট জানা যাবে কোম্পানির ফেসবুক পাতায় (www.facebook.com/WorldwideMigrationConsultantsLtd)।

    সরাসরি ড. শেখ সালাহউদ্দিনের সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম হোয়াটসঅ্যাপ ও ভাইবারে কথা বলা যাবে +৬০১৪৩৩০০৬৩৯ নম্বরে। এ ছাড়া ঢাকার উত্তরায় ৭ নম্বর সেক্টরের ৫১, সোনারগাঁও জনপথে অবস্থিত খান টাওয়ারে ওয়ার্ল্ড ওয়াইড মাইগ্রেশন লিমিটেডের অফিসেও খোঁজ নেওয়া যেতে পারে। প্রাথমিক তথ্যর জন্য যোগাযোগ করা যাবে ০১৯৬৬০৪১৫৫৫, ০১৯৬৬০৪১৮৮৮ ও ০১৯৯৩৮৪৩৩৪০ নম্বরে।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4669