বৃহস্পতিবার, জুন ১৮, ২০২০

ব্যাংকে ‘ভালো’ গ্রাহকের সুদে ছাড় থাকছে না আর

ডেস্ক   |   বৃহস্পতিবার, ১৮ জুন ২০২০ | প্রিন্ট  

ব্যাংকে ‘ভালো’ গ্রাহকের সুদে ছাড় থাকছে না আর

খেলাপি গ্রাহকদের জন্য একের পর এক সুবিধা দিলেও ‘ভালো’ ঋণগ্রহীতাদের সঙ্গে বিরূপ আচরণ করছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এতদিন ‘ভালো’ ঋণগ্রহীতারা তাদের ঋণের বিপরীতে ১০ শতাংশ ছাড় পেতেন। কিন্তু এবার সেই সুবিধা তুলে নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। আগে ‘ভালো’ কোনো গ্রাহকের কাছ থেকে ১০০ টাকা সুদ পাওনা হলে তা আদায় করে ১০ টাকা ফেরত দিতে হতো। গ্রাহক ‘ভালো’ ঋণগ্রহীতা হলে প্রতি বছর এই সুবিধা পেতেন।
প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী, ২০১৯ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এ সুবিধা পাবেন ‘ভালো’ ঋণগ্রহীতা। এরপর তাদের জন্য এ সুবিধা আর থাকছে না। তবে ভালো ঋণগ্রহীতা চিহ্নিতকরণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।
এক্ষেত্রে চলমান ঋণে গ্রহীতার ঋণ হিসাব সংশ্লিষ্ট বছরের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত এবং অব্যবহিত পূর্ববর্তী ৪টি ত্রৈমাসিকে অশ্রেণীকৃত-স্ট্যান্ডার্ড অবস্থায় থাকলে এবং নবায়ন পত্রের শর্তানুসারে উক্ত ঋণ হিসাবে লেনদেন সন্তোষজনক হলে সংশ্লিষ্ট গ্রাহক ভালো ঋণ/বিনিয়োগ গ্রহীতা হিসেবে বিবেচিত হবেন।
তলবী ঋণের গ্রহীতা সংশ্লিষ্ট বছরের ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত এবং অব্যবহিত পূর্ববর্তী ৪টি ত্রৈমাসিকে সকল তলবী ঋণের অশ্রেণীকৃত-স্ট্যান্ডার্ড অবস্থায় সমন্বিত হলে সংশ্লিষ্ট গ্রাহক ভালো ঋণ গ্রহীতা হিসেবে বিবেচিত হবেন।
আর মেয়াদী ঋণ গ্রহীতার ঋণ হিসাবে বিগত ১২ মাসের সকল কিস্তি নির্ধারিত তারিখের মধ্যে নিয়মিতভাবে পরিশোধিত হলে এবং অব্যবহিত পূর্ববর্তী ৪টি ত্রৈমাসিকে অশ্রেণীকৃত-স্ট্যান্ডার্ড অবস্থায় থাকলে সংশ্লিষ্ট গ্রাহক ভালো ঋণ গ্রহীতা হিসেবে বিবেচিত হবেন।
কোনো ঋণগ্রহীতার একাধিক ঋণ থাকলে প্রতিটি ঋণের জন্য উল্লিখিত শর্তসমূহ পরিপালন করলেই কেবল সংশ্লিষ্ট ঋণগ্রহীতা ‘ভালো’ ঋণগ্রহীতা হিসেবে বিবেচিত হবেন।
তবে সকল ক্ষেত্রেই কোনো ব্যাংকে বিগত ১২ মাসে কোনো গ্রাহক বা তার স্বার্থ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের নামে বিরূপমানে শ্রেণীকৃত ঋণ থাকলে উক্ত গ্রাহক ভালো ঋণগ্রহীতা হিসেবে বিবেচিত হবেন না।
যৌক্তিক কারণে ঋণ/বিনিয়োগ হিসাব প্রথমবার পুনঃতফসিল/পুনর্গঠনের মাধ্যমে নিয়মিত করা হলে ওপরে বর্ণিত শর্তাবলী পরিপালন সাপেক্ষে উক্ত ঋণ গ্রহীতাকে ভালো ঋণ গ্রহীতা হিসেবে বিবেচনা করা যাবে বলে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে।
তিন বছর বা তদূর্ধ্ব সময়কাল ধরে ভালো ঋণগ্রহীতা হিসেবে চিহ্নিত গ্রাহকদের ছবি, প্রোফাইল ইত্যাদির সমন্বয়ে ব্যাংক বিশেষ বুকলেট/ম্যাগাজিন প্রকাশ করতে পারবে।
এক্ষেত্রে প্রথম প্রকাশের ক্ষেত্রে ভালো ঋণ গ্রহীতাদের সংখ্যা অধিক হলে অপেক্ষাকৃত দীর্ঘসময় ধরে যে সকল ঋণগ্রহীতা ভালো ঋণগ্রহীতা হিসেবে চিহ্নিত হবেন তাদের নাম বিশেষ বুকলেট/ম্যাগাজিনে অন্তর্ভূক্তকরণে অগ্রাধিকার পাবে।
এছাড়া ব্যাংক বার্ষিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ভালো ঋণগ্রহীতাদের পুরস্কার প্রদান করতে তাদেরকে সম্মাননার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবে বলেও বলা হয়েছে প্রজ্ঞাপনে।


Posted ৯:৩৩ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৮ জুন ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]