• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ব্রিজ যখন মরন ফাঁদ

    আজকের অগ্রবাণী ডেস্ক: | ২৩ মার্চ ২০১৭ | ১১:১৭ অপরাহ্ণ

    ব্রিজ যখন মরন ফাঁদ

    বরিশালের গৌরনদী, উজিরপুর ও আগৈলঝাড়া উপজেলার পাঁচটি লোহার আয়রন ব্রিজ ধ্বসে যাওয়ায় এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন ওই পাঁচটি ব্রিজ দিয়ে শত শত কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীসহ হাজার হাজার মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করতে গিয়ে ছোট বড় দুর্ঘটনার স্বীকার হচ্ছেন। অথচ ব্রিজগুলো মেরামতের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কোন মাথা ব্যাথাই নেই।


    সূত্র মতে, ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের পাশে গৌরনদীর কটকস্থল গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা মো. হাবিবুর রহমান মিয়ার বাড়ির সম্মুখে আয়রন ব্রিজটি নড়বড়ে হওয়ায় যানচলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। স্থানীয়রা বিকল্প হিসেবে ব্রিজের ওপর কাঠ বিছিয়ে চলাচল করলেও শিশুরা ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ দিয়ে যাতায়াত করতে গিয়ে প্রায়ই ছোট-বড় দুর্ঘটনার স্বীকার হচ্ছে।


    বর্তমানে ব্রিজটির অবস্থা খুবই করুণ। ওই ব্রিজ দিয়েক কটকস্থল, গোরক্ষডোবা, মৈস্তারকান্দি, তাঁরাকুপি গ্রামের শত শত মানুষ প্রতিনিয়ত যাতায়াত করছে। আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা-শিহিপাশা সড়কের উত্তর শিহিপাশা পশ্চিমপাড়া গ্রামের কালাচাঁন সরদারের বাড়ির সামনের আয়রন ব্রিজের স্লাব ধ্বসে পরায় ওই ব্রিজ দিয়ে দীর্ঘদিন থেকে ছোটবড় যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

    স্থানীয়রা বিকল্প হিসেবে ব্রিজের ওপর কাঠ বিছিয়ে চলাচল করলেও শিশুরা ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ দিয়ে যাতায়াত করতে গিয়ে প্রায়ই ছোট-বড় দুর্ঘটনার স্বীকার হচ্ছে। বর্তমানে ব্রিজটির অবস্থা খুবই করুণ।

    স্থানীয়রা জানায়, ব্রিজ দুইটি মৃত্যু ফাঁদে পরিণত হওয়ায় দক্ষিণ হারতা গ্রামসহ আশপাশের পাঁচটি গ্রামের মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা বেশ ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। ভূক্তভোগী গ্রামবাসী জরুরি ভিত্তিতে মরণ ফাঁদে পরিণত হওয়া চারটি ব্রিজ সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট উধ্বর্তন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4669