• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে ৫৩ কোটি টাকা জরিমানা

    অনলাইন ডেস্ক | ৩০ নভেম্বর ২০১৭ | ৭:২০ অপরাহ্ণ

    ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে ৫৩ কোটি টাকা জরিমানা

    ক্রিকেট বিশ্বে একটি বক্তব্য চাউর আছে যে, বিশ্ব ক্রিকেট সংস্থা আইসিসিতে প্রভাব খাটায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্র যেমন প্রভাব খাটায় ঠিক তেমনি। ভারতীয় বোর্ডের ইশারাতেই আইসিসিতে সব হয় এমনও বলা হয়ে খাকে। অথচ সেই ভারতীয় বোর্ডকেই কিনা জরিমানা করলো আইসিসি! খবরটা গুজব নয়, সত্যি। ছোটখাটো অঙ্ক নয়, মোটা অঙ্কের অর্থই ভারতীয় বোর্ডকে জরিমানা করেছে ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক সংস্থা।


    ভারতের স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ প্রতিযোগিতামূলক আয়োজনের নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান সিসিআই(কমপিটিশন কমিশন অব ইন্ডিয়া) এ জরিমানা করে। ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক জনপ্রিয় ক্রিকেট লিগ আইপিএলে(ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) অনিয়মিত ও বাজার-প্রতিযোগিতার পরিপন্থী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটিকে এই জরিমানা করা হয়।


    ভারতজুড়ে বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ প্রতিযোগিতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ২০০৩ সালে সিসিআই প্রতিষ্ঠা করা হয়। অটল বিহারি বাজপেয়ি সরকারের সময়ে পাস হয় প্রতিযোগিতা আইন ২০০২-এর অধীনে বিসিসিআইকে অভিযুক্ত করে আগেও ২০১৩ সালের শুরুতে জরিমানা করা হয়েছিল। তবে সেই অভিযোগের বিপরীতে আপিল করে জরিমানার হাত থেকে বেঁচে যায় বিসিসিআই। তবে বিষয়টি সে সময় নতুন করে খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

    ৪৪ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে সিসিআই প্রমাণ করেছে, বিসিসিআইয়ের গত তিন বছরের গড় সার্বিক আয়ের ৪.৪৮ শতাংশের সমান। সংবাদমাধ্যম সংক্রান্ত নীতি ঠিকভাবে মানেনি বিসিসিআই। মানা হয়নি ম্যাচ সম্প্রচার সংক্রান্ত নির্দেশিকাও। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের মতো বড় বোর্ডের কাছ থেকে এমন ভুল প্রত্যাশিত নয় বলে মন্তব্য করেছে ওই বোর্ড।

    প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘এ কথা প্রমাণিত যে বিসিসিআই জেনেশুনেই আইপিএলের টিভি সম্প্রচারের নিলামে অংশগ্রহণকারীদের বাণিজ্যিক স্বার্থ, একই সঙ্গে নিজেদের অর্থনৈতিক স্বার্থও রক্ষা করেছে।’

    আইপিএলের দলগুলোর মালিকানার ক্ষেত্রে স্বেচ্ছাচারী ভূমিকা পালন করেছে বিসিসিআই। সিসিআইয়ের দাবি, দলগুলোর মালিকানা চুক্তিতে মালিকপক্ষের কোনো দাবি বা প্রস্তাব আমলে নেওয়া হয়নি। তারা লিখেছে, ‘১০ বছর ধরে আইপিএলের একচেটিয়া ব্যবসা নিশ্চিত করার পর অন্য কোনো লিগ শুরু করার প্রস্তাব পাওয়ার কথা নয়।’ ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ ধরনের কাজকে অন্যদের বাজারে প্রবেশের ক্ষেত্রে বাধা হিসেবে দেখছেন, যা সুষ্ঠু প্রতিযোগিতার পরিপন্থী।

    এই জরিমানার পরিপ্রেক্ষিতে বিসিসিআইয়ের কোনো মন্তব্য এ পর্যন্ত জানা যায়নি। পুনঃতদন্তে বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ার পর আপিল করার সম্ভাবনাও ক্ষীণ।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673