• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ভারতের জঙ্গল থেকে টারজান বালিকা উদ্ধার!

    অগ্রবাণী ডেস্ক: | ০৭ এপ্রিল ২০১৭ | ৬:২৯ অপরাহ্ণ

    ভারতের জঙ্গল থেকে টারজান বালিকা উদ্ধার!

    বয়স বড়জোর ৮ বছর। দুই হাত, দুই পা সবই আছে। কিন্তু হাঁটার সময় দুই পায়ের সঙ্গে হাত দুটিকেও পায়ের মতো ব্যবহার করতে পছন্দ করে। কথা না বলে জন্তুদের কর্কশ শব্দ ব্যবহার করে বানরের মতো মনের ভাব প্রকাশ করছে। অনেকটা বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্লাসিক দ্য জঙ্গল বুকের কিশোরী চরিত্র ‘মোগলি’র মতো। এমন এক মানবশিশুর খোঁজ পাওয়া গেল ভারতের উত্তরপ্রদেশের কাটারনিঘাট অভয়ারণ্যে।


    ঘন জঙ্গল থেকে উদ্ধার করে আপাতত তাকে রাখা হয়েছে বাহরাইচ জেলা হাসপাতালে। সেখানেই ছোট শিশুটিকে মানুষ হওয়ার শিক্ষা দেওয়া হচ্ছে। গত জানুয়ারি মাসে মোতিপুর অভয়ারণ্যে প্রথম এই আশ্চর্য শিশুটির গতিবিধি টের পায় গ্রামবাসীরা। উদ্ধারের সময় শিশুটি ছিল নগ্ন, মাথার চুল ছিল জট পাকানো, হিংস্র জন্তুর মতো লম্বা লম্বা হাত-পায়ের নখ, বানর দলের সাথেই খেলা করছিল এবং নিজের পরিবারের সদস্যদের মতোই বন্য জন্তুদের সঙ্গেই স্বচ্ছন্দে ছিল সে। আশ্চর্য শিশুটির খোঁজ পেয়েই খবর যায় স্থানীয় থানায়।


    তাকে উদ্ধারের সময় বাঁদরের দল তাদের দিকে তেড়ে আসে। ছোট শিশুটিও মানুষ দেখতেই ভয়ে গুটিয়ে যায়। অনেক কষ্টে জঙ্গল থেকে নিয়ে আসা হয়েছে লোকালয়ে।

    জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দীনেশ ত্রিপাঠি জানান, মেয়েটির সারা গায়ে আঁচড়ের দাগ। আমাদের প্রথম কাজ হল তাকে উপযুক্ত চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে তোলা এবং তার বাবা-মায়ের সন্ধান করা। গত দুই মাস ধরে তাকে সুস্থ করে তোলার ও ভয় কাটানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে বাহরাইচ হাসপাতাল। দুই মাস আগে আমরা যখন শিশুটিকে উদ্ধার করতে গিয়ে তাকে ডাকি তখন কয়েকটি বাঁদর আমাদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। এরপর কোন রকমে তাকে উদ্ধার করে জঙ্গল ছেড়ে বেরিয়ে আসি।

    হাসপাতালের সুপার ডি.কে.সিং জানান, মেয়েটি কোনো কথাও বলতে পারছে না এবং আমাদের ভাষাও বুঝতে পারছে না। গত কয়েকবছর ধরে সে জন্তুদের সঙ্গে সময় কাটিয়েছে এবং তাই তাদের মতোই আচরণ করছে। যদিও এখন সে অনেকটাই ভাল আছে এবং আস্তে আস্তে যে হাসপাতালের ওয়ার্ড বয়, নার্স, ও অন্যান্য মেডিকেল স্টাফদের চিনতে পারছে। নতুন এই পরিবেশ মানিয়ে নেওয়ারও চেষ্টা করছে। যদিও হাসপাতালে হাঁটার সময় চারটি হাত-পা কেই সে ব্যবহার করছে। মনে করা হচ্ছে, একেবারের জন্মের পর থেকেই ওই বাচ্চাটিকে জঙ্গল এলাকায় বড় হয়েছে।

    সিং আরও জানান, মানুষের মতো আচরণ করতে পারবে বা ভাষা শিখতে পারবে এমন একটি প্রতিষ্ঠানে তাকে পাঠানোর প্রস্তাব রেখেছিলাম। কিন্তু উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ তা মঞ্জুর করেনি।

    ইতিমধ্যেই শিশুটির বাবা-মায়ের খোঁজে বিভিন্ন পত্রিকায় শিশুটির প্রকাশ করে বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছে। যদিও গত দুই মাস আগে দেওয়া সেই বিজ্ঞাপনে এখনও তেমন কোনও সাড়া মেলেনি।

    -এলএস

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিয়ে করাই তার নেশা!

    ২১ জুলাই ২০১৭

    কে এই নারী, তার বাবা কে?

    ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4669