• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ভারতে বাংলাদেশির টাকা ছিনতাই করে বিপাকে ছিনতাইকারী

    অনলাইন ডেস্ক | ২০ আগস্ট ২০১৭ | ৯:৫৮ পূর্বাহ্ণ

    ভারতে বাংলাদেশির টাকা ছিনতাই করে বিপাকে ছিনতাইকারী

    এক ব্যক্তির টাকা ছিনতাইয়ের পর তাঁকে মেট্রো স্টেশনে পৌঁছে দিতে এসে পুলিশের হাতে ধরা পড়ে গেল ছিনতাইকারী নিজেই। গিরিশ পার্ক স্টেশনেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে মেট্রোরেল পুলিশ। এরপর তাকে গিরিশ পার্ক থানায় তুলে দেন মেট্রো কর্তৃপক্ষ।


    শনিবার দুপুর সাড়ে ৩টা নাগাদ গিরিশ পার্ক মেট্রো স্টেশনে এসে মেট্রোরেলের কর্তব্যরত পুলিশ কনস্টেবল অনুপ পোদ্দার এবং সুমিত হালদারের কাছে কাঁদতে শুরু করেন এক ব্যক্তি। নিজেকে বাংলাদেশের বাসিন্দা হিসেবে পরিচয় দিয়ে ওই ব্যক্তি জানান, তাঁর নাম সবুজ সাহা। বাড়ি বাংলাদেশের খুলনায়। দূরে এক যুবককে দেখিয়ে তিনি অভিযোগ করেন, তাঁর টাকা ছিনতাই করেছেন ওই ব্যক্তি।

    ajkerograbani.com

    অনুপ বলেন, ‘‘হঠাৎ এক যুবক এসে কাঁদতে শুরু করেন। এক যুবককে দেখিয়ে বলেন, তাঁর ২৩ হাজার টাকা ছিনতাই করে নিয়েছে ওই ব্যক্তি। এরপর দু’জনকেই ধরে স্টেশন মাস্টারের ঘরে পাঠিয়ে দিই আমরা।’’ এরপর পুলিশ এসে নিয়ে যায় ওই দু’জনকে। অভিযুক্ত যুবকের কাছ থেকে প্রায় ১৩ হাজার টাকা উদ্ধার হয়েছে। তার মধ্যে একটি বাংলাদেশি নোটও ছিল বলে খবর।

    গিরিশ পার্ক থানার এক তদন্তকারী আধিকারিক জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে জিশান আহমেদ নামে ওই অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। পুলিশকে সবুজ জানিয়েছেন, দমদম ক্যান্টনমেন্টে দিদির বাড়িতে উঠেছেন তিনি। এদিন দুপুরে শোভাবাজার মেট্রো থেকে বেরিয়ে একটি দোকানের সামনে চা খাচ্ছিলেন। জিশান নামে ওই যুবক এসে তাঁর সঙ্গে ভাব জমায়। এরপর একটি গলিতে নিয়ে গিয়ে সবুজকে মারধর করে তাঁর কাছ থেকে ২৩ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়।

    সবুজ বলেন, ‘‘এ শহরের কিছুই চিনি না, জানি না। শোভাবাজারে নামতেই ওই যুবক আমায় একটি গলিতে নিয়ে যায়। মারধর করে সঙ্গের সমস্ত টাকা নিয়ে নেয়। এরপর বুদ্ধি করে ওই যুবককে বলি, আমায় মেট্রো পর্যন্ত পৌঁছে দিন। মেট্রোয় ঢুকতেই পুলিশকে গোটা বিষয়টি জানাই। থানায় লিখিত অভিযোগও করেছি।’’

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755