• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ভার্চ্যুয়াল রিয়ালিটি হেডসেটের জনপ্রিয়তা বাড়ছে

    অনলাইন ডেস্ক | ২১ এপ্রিল ২০১৭ | ১১:১০ পূর্বাহ্ণ

    ভার্চ্যুয়াল রিয়ালিটি হেডসেটের জনপ্রিয়তা বাড়ছে

    ভার্চ্যুয়াল রিয়্যালিটির হেডসেট বর্তমান সময়ে জনপ্রিয় একটি ডিভাইস। আন্তর্জাতিক প্রযুক্তি বাজারে ইতোমধ্যে সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়েছে ডিভাইসটি। আমাদের দেশেও রয়েছে এর প্রচুর জনপ্রিয়তা। দেশের বাজারে অনেকগুলো ভার্চ্যুয়াল হেডসেট পাওয়া যাচ্ছে। চাইলে অনলাইনের মাধ্যমেও ঘরে বসে অর্ডার করতে পারবেন। কয়েকটি ভার্চ্যুয়াল রিয়্যালিটির হেডসেট নিয়েই আমাদের এবারের আয়োজন।


    ভার্চ্যুয়াল রিয়্যালিটির হেডসেট তৈরি করছে ফেসবুক, গুগল ও সনির মতো বেশ কয়েকটি বড় প্রতিষ্ঠান। এ ক্ষেত্রে হার্ডওয়্যারের বাজারে শুধু শীর্ষে যাওয়ায় লক্ষ্য নয়, বরং প্রতিষ্ঠানগুলো নতুন সফটওয়্যার ও প্ল্যাটফর্মে আগে থেকেই এগিয়ে থাকার জন্য ভিআর নিয়ে কাজ করছিল। এসারের স্টারব্রিজ, ফেসবুকের অকুলাস, এইচটিসি ভাইভ, স্যামসাং ও সনি ইন্টারঅ্যাকটিভ মিলে ‘গ্লোবাল ভার্চ্যুয়াল রিয়্যালিটি অ্যাসোসিয়েশন’ (জিভিআরএ) নামের একটি অলাভজনক সংস্থা গড়েছে। এই সংগঠন ভার্চ্যুয়াল রিয়্যালিটি গবেষণা, প্রযুক্তি উন্নয়ন ও সব ভার্চ্যুয়াল রিয়্যালিটি নির্মাতা ও গ্রাহককে এক জায়গায় আনতে কাজ করছে।

    ajkerograbani.com

    প্রযুক্তি বিষয়ক বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, এ বছরই আরও উন্নত ভিআর প্রযুক্তি হাতে পাবেন গ্রাহকেরা। জানুয়ারিতে স্পেনের বার্সেলোনায় অনুষ্ঠেয় কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস শোতে দেখা যাবে ভিআরের নানা উন্নত সংস্করণ। যে ভিআরগুলো দেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে এমন কয়েকটি ভিআর হেডসেট সম্পর্কে আলোচনা করা যেতে পারে।

    গুগল ডেড্রিম ভিউ

    এ বছরের অক্টোবরে পিক্সেল ও পিক্সেল এক্সএল নামে স্মার্টফোন বাজারে ছাড়ে গুগল। ওই ফোনের সঙ্গে ভিআর হেডসেটের ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি। ডেড্রিম ভিউ নামের গুগলের এই মডেল ডেড্রিম প্ল্যাটফর্ম ও ভিআর প্রযুক্তির জন্য উন্মুক্ত করে গুগল। এর দাম ৭৯ মার্কিন ডলার। গুগলের নতুন স্মার্টফোন এই হেডসেটের সামনে রাখলে তা এনএফসি প্রযুক্তির মাধ্যমে কাজ করে। এটি সেট করা সহজ। কম খরচে ভিআর অভিজ্ঞতা দিতে এই হেডসেট বাজারে এনেছে গুগল। এখন ডেড্রিম ভিউয়ের জন্য কিছু অ্যাপ ও গেম রয়েছে। এর মধ্যে ইউটিউব, হুলু, হোম রান ডার্বি ডেড্রিম সফটওয়্যারে চালানো যায়।

    প্লেস্টেশন ভিআর

    এ বছরে ভিআরের দুনিয়ায় অন্যতম আকর্ষণ ছিল সনির এই প্লেস্টেশন ভিআর। এটি প্লেস্টেশন ফোর সমর্থন করে। এর দাম ৩৯৯ মার্কিন ডলার। পূর্ণাঙ্গ অভিজ্ঞতা পেতে এই ভিআরের পাশাপাশি প্লেস্টেশন ফোর ও মোশন ট্র্যাকিং কন্ট্রোলার প্রয়োজন হবে। আগামী বছর এই ভিআরের জন্য বেশ কিছু কনটেন্ট ও গেম উন্মুক্ত করবে সনি।

    স্যামসাং গিয়ার ভিআর

    স্যামসাং গিয়ার ভিআর কেনার পরিকল্পনা করছেন? তাহলে এখনই বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ই-কমার্স প্লাটফর্ম অ্যামাজনে খোঁজ নিন। কারণ সাইটটিতে মাত্র ৪৫ ডলারে বিক্রি হচ্ছে ডিভাইসটি। মাত্র ৫২ দশমিক ৫১ ডলারে বিক্রি শুরু হয়ে গিয়ার ভিআরের। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রযুক্তি জায়ান্ট স্যামসাংয়ের ওয়েবসাইটেও দামটি এখনও ৯৯ দশমিক ৯৯ ডলারই রয়েছে।ফলে ডিভাইসটি কেনার ক্ষেত্রে অ্যামাজনই এখন সেরা অফার দিচ্ছে। তবে কবে নাগাদ অফারটি শেষ হবে তা জানানো হয়নি। ফলে যারা কিনতে চান তাদেরকে যত দ্রুত সম্ভব কিনে নেওয়াই ভালো! ডিভাইসটি গ্যালাক্সি এস৭, গ্যালাক্সি এস৭ এজ, গ্যালাক্সি নোট৫, গ্যালাক্সি এস৬, গ্যালাক্সি এস৬ এজ এবং গ্যালাতি্স এস৬ এজ প্লাস মডেলগুলো সমর্থন করে।

    অকুলাস রিফট

    ভিআরের দুনিয়ায় শীর্ষ প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ শুরু করেছিল অকুলাস। তবে ২০১৬ সালের মার্চ মাসের আগ পর্যন্ত বাণিজ্যিকভাবে কোনো পণ্য আনেনি প্রতিষ্ঠানটি। হাতে নড়াচড়া শনাক্ত করতে ফেসবুকের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানটি অকুলাস টাচ কন্ট্রোলার উন্মুক্ত করেছে। ৫৯৯ মার্কিন ডলার দামের এ পণ্য চালাতে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন উইন্ডোজ পিসি দরকার পড়ে।

    এইচটিসি ভাইভ

    এইচটিসির মোবাইল ফোন ব্যবসা ধুঁকলেও এর ভিআর ব্যবসা ঠিক পথে এগোচ্ছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকেরা। ২০১৬ সালের এপ্রিলে ভাইভ উন্মুক্ত করে প্রতিষ্ঠানটি। রিফটের মতোই এতে তারহীন হাতে ধরা কন্ট্রোলার রয়েছে। এ ছাড়া এটি ভালভের গেমিং হার্ডওয়্যার সমর্থন করে। তবে এতে শক্তিশালী পিসি সেটআপের দরকার পড়ে। এই হেডসেটে ভাইভ ফোন সার্ভিস নামের একটি ফিচার আছে, যাতে হেডসেট না খুলেই কল ও বার্তা আদান-প্রদান করা যায়।

    শাওমি এম১ ভি১

    এতে স্পিকার ও ব্লুটুথ রয়েছে। তবে স্মার্টফোনে টাইপ সি পোর্ট থাকলে ভিআরের মাধ্যমে কোনো কিছু দেখা যাবে। এর দাম পড়বে ৯৫০ টাকা।

    শাওমি ভি১ সি

    এর সঙ্গে কন্ট্রোলার রয়েছে। এতে আলাদা কাভার যুক্ত থাকায় পড়ে গিয়ে সহজে ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা কম। দাম পড়বে ১ হাজার ১০০ টাকা।

    ভিআর শাইনকন

    এতে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ৪.৪ থেকে ৫.৭ পর্যন্ত সাপোর্ট করে। ৬০০ থেকে ৬৫০ টাকার মধ্যে কেনা যাবে এটি।

    ভিআর ৭ ডিজি

    এর আবার দুটি ভার্সন রয়েছে। ভার্সন থ্রি ও ফাইভের দাম পড়বে যথাক্রমে ১ হাজার ২০০ ও ১ হাজার ৫০০ টাকা। এর মাধ্যমে ত্রিমাত্রিক মুভি ও ভিডিও সব দেখা যাবে।

    ম্যাঙ্গো ভিআর

    ম্যাঙ্গো ভিআর নামে একটি সস্তা দামে ভির পাওয়া যাচ্ছে দেশের বাজারে । অন্য ভিআরগুলোর তুলনায় এটি খুবই সস্তা হওয়াতে বেচাকেনা বেশি হচ্ছে এটি। এরদাম মাত্র ৪৯৯ টাকায়। । এর আগে এই ভিআরটি ৯৯৯ টাকায় বিক্রি হতো সম্প্রতি এটির মূল্য হ্রাস করা হয়েছে। এই ভিআর হেডসেটটি গুগল কার্ডবোর্ড ভিআরের মতই। এর মধ্যে স্মার্টফোন প্রবেশ করিয়ে ভার্চুয়াল দুনিয়ার স্বাদ পাওয়া যাবে। ডিভাইসটি দিয়ে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি গেমস খেলা যাবে। এটি দিয়ে ভার্চুয়াল মুভিও দেখা যাবে। এছাড়াও অনেক কোম্পানি মোবাইল সেটের সঙ্গে ভির উপহার দিচ্ছে।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757