রবিবার ২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ভালো থেকো বাংলাদেশ

গিয়াস উদ্দিন   |   শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ | প্রিন্ট  

ভালো থেকো বাংলাদেশ

এই মূহুর্তে করোনা নিয়ে সারা বিশ্ববাসী আতঙ্কগ্রস্থ, উদগ্রীব আর চরম উৎকন্ঠার ভিতর দিয়ে দিন অতিবাহিত করছে। সবার ভিতরে একটা গভীর অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। সবাই ভীত সন্ত্রস্ত। এই বুঝি আমার কোনো আপনজন বা আমি সংক্রমিত হলাম। এই অজানা ভয়ে আমরা সবাই আতংকিত। এতে করে আমরা মনস্তাত্বিক ভাবে অসুস্থ হয়ে যাচ্ছি। কোনো কিছু নিয়ে মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত হলে আমাদের ভিতরে সেই রোগে সংক্রমিত হবার উপদ্রব দেখা যায়। অর্থাৎ শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়। এতে করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা বেড়ে যায় কয়েক গুন।
অতিরিক্ত দুশ্চিন্তায় হৃদপিন্ডে ক্ষতের সৃষ্টি হয়। সে জন্য দেখা যাবে করোনা থেকে মুক্তি পাবার পরেও আমাদের হৃদরোগে আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা দেখা দিবে।
করনীয় / খাদ্যাভাস:
আমাদের দৈনন্দিন খাদ্য তালিকায় প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, স্নেহ, ভিটামিন সি জাতীয় পদার্থ বেশি রাখতে হবে।
যেমন দুধ, ডিম, মাংস, মাছ, সবজি, ফলমূল। একজন মানুষ পানি খেয়ে ৩ দিন বেঁচে থাকতে পারে। কিন্তু শুধু দুধ খেয়ে সারা জীবন বেঁচে থাকতে পারে। দুধ অত্যন্ত সুস্বাদু খাবার। বেহেশতীয় খাবার। নবীজির প্রিয় খাবার ছিল দুধ। দুধে রয়েছে প্রচন্ড প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, স্নেহ জাতীয় পদার্থ। ক্যালসিয়াম হৃদপিন্ডের কার্যক্ষমতা বাড়ায়। শরীরে এন্টি অক্সিডেন তৈরি করে যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। তাই গরম দুধ খেলে করোনা থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে। তাছাড়াও বেশি করে ফলমূল, মাছ, মাংস খেতে হবে।
শুধু আতঙ্কিত হলেই চলবে না। সচেতনতার পাশাপাশি নিরাপদে থাকতে হবে। তবেই করোনা থেকে মুক্তি মিলবে। যেটা সকলে মিলে নিরাপদ দূরত্বে থেকে সম্ভব। আসুন সকলে করোনা প্রতিরোধে সচেতন হই এবং অন্যকে সচেতন করি।
ভালো থেকো বাংলাদেশ।

Facebook Comments Box


Posted ১১:০৭ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১