বৃহস্পতিবার, জুন ১৬, ২০২২

ভয়াবহ রূপ নিয়েছে প্রতারণা, চাঞ্চল্যকর তথ্য দিল ডিবি

ডেস্ক রিপোর্ট   |   বৃহস্পতিবার, ১৬ জুন ২০২২ | প্রিন্ট  

ভয়াবহ রূপ নিয়েছে প্রতারণা, চাঞ্চল্যকর তথ্য দিল ডিবি

দেশে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে প্রতারণা। এমন কোনো খাত নেই যেখানে প্রতারকরা তাদের জাল বিস্তার করেনি। মোবাইল ব্যাংকিং থেকে শুরু করে অনলাইনে পণ্য বিক্রি, চাকরির প্রলোভন এমনকি কথিত তন্ত্রমন্ত্র সাধনার নামে সিদ্ধিলাভ সর্বত্রই প্রতারণা।

প্রতারণার এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগের তথ্যে। ডিবি বলছে, গত আড়াই বছরে তাদের তদন্ত করা মোট মামলার ৭৫ শতাংশই প্রতারণা সংক্রান্ত। ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে প্রতারণার মাত্রা দিন দিন বাড়ছে।


রংপুরের পীরগঞ্জে বসেই ২১ বছর বয়সী রেজওয়ানুল শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিবের নামে ভুয়া ফেসবুক খুলে প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নিয়েছেন লাখ লাখ টাকা। ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে প্রতারণা করায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে।

বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক ও টেলিভিশনের নামে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভুয়া পেজ খুলে প্রতারণার অভিযোগে মামলা হয়েছে মাসুদ আলম ওরফে শুভর বিরুদ্ধে। শুভ কিংবা রেজওয়ানুলের মতো এমন অসংখ্য প্রতারক প্রতিনিয়ত সাইবার স্পেসে ওঁত পেতে আছে।


ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষায়িত বিভাগ সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইমের যাত্রা শুরু ২০২০ সালে। অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে হওয়া মামলার তদন্ত করে বিভাগটি।

তথ্য বলছে, ২০২১ সালে তারা যত মামলা তদন্ত করেছে তার মধ্যে মোবাইল ব্যাংকিং সংক্রান্ত প্রতারণার মামলা ছিল ২৪.৭৫ ভাগ। অনলাইনে কেনাবেচা সংক্রান্ত প্রতারণা ৪ দশমিক ৪৪ ভাগ। পার্শ্বেল প্রতারণা ২ দশমিক ৪২ এবং অনলাইন মাধ্যম ব্যবহার করে অন্যান্য প্রতারণার মামলা ছিল ১৩ দশমিক ১০ ভাগ।

২০২১ এবং চলতি বছরের মে পর্যন্ত সবচয়ে বেশি মামলা প্রতারণা সংক্রান্ত। মোট মামলার ৭৫ শতাংশই প্রতারণার এবং ২০ থেকে ২৫ ভাগ মানহানিকর বক্তব্য ও মিথ্যা তথ্য প্রচারের।

সাইবার অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ তারিক বিন হাশিম বলেন, চাকরি সংক্রান্ত, বদলি, রেজাল্ট পরিবর্তনসহ অনেক ইস্যু থাকে। এগুলো জন্য মানুষ অণ্যের দ্বারস্ত হয়।

পুলিশ বলছে, ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে প্রতারণার সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, বর্তমান সময়ে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম প্রতারণার কাজে বেশি ব্যবহার হচ্ছে। বিভিন্ন জুয়াগুলো ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে চলছে।

অবৈধভাবে বাংলাদেশে বসবাসরত আফ্রিকান নাগরিকরা ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে পার্সেল প্রতারণার বাজার খুলেছে।

Posted ১২:৪৭ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৬ জুন ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]