• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    মধ্যরাতে বিতর্কিত বিল পাস করালেন অমিত শাহ

    ডেস্ক | ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ

    মধ্যরাতে বিতর্কিত বিল পাস করালেন অমিত শাহ

    নজিরবিহীন ঘটনা ঘটলো ভারতের লোকসভায়। সোমবার মধ্যরাতে লোকসভায় পাস হলো নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি)। সাত ঘণ্টা বিতর্কের শেষে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানিয়ে দেন, ওই বিল পাস হওয়ার ফলে প্রতিবেশী তিন দেশের অমুসলিম সংখ্যালঘু শরণার্থীরা দেশের নাগরিকত্ব পাবেন। কিন্তু ওই আইনের সঙ্গে এ দেশের মুসলিমদের কোনও সম্পর্ক নেই। ওই আইন পাস হলে দেশের মুসলিম সমাজের কোনও সমস্যা হবে না। ওই বিল নিয়ে নিজের বক্তব্য শেষ করার সময়েই শাহ জানিয়ে দেন, খুব দ্রুত গোটা দেশে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) আনা হবে।


    সোমবার দুপুরে লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশ করেন অমিত। এর প্রতিবাদ শুরু করেন বিরোধীদলগুলোর এমপিরা। আলোচনায় অনেকেই অমিতের সঙ্গে তুলনা করেনন জার্মানির নাৎসি প্রধানের। কারও প্রশ্ন, বেছে বেছে কেন মুসলিমরাই বাদ? আপনি তো শুধু সংখ্যালঘুদেরই নিশানা করছেন? সংবিধান শিকেয় তুলে দিয়েছেন! বিল পেশ হওয়া মাত্র বিরোধীদের এমন প্রতিবাদের মুখে পড়বেন তা হয়তো ভাবেননি শাহ। জম্মু-কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ রদের প্রস্তাব সংসদে নিয়ে আসার সময়ও বিরোধীদের আক্রমণে এতটা অস্থির হননি, যেমনটা গতকাল হয়েছেন তিনি। শেষ পর্যন্ত অবশ্য ৩১১-৮০ ভোটে বিলটি পাস করিয়ে নিতে সক্ষম হন মোদির ডান হাত হিসেবে পরিচিত অমিত।


    সোমবার সাত ঘণ্টা বিল নিয়ে আলোচনার শেষে যখন ভোটাভুটি হয় তখন ঘড়ির কাঁটা মাঝরাত পেরিয়ে গেছে। বিরোধীরা যখন বলছেন, এক মধ্যরাতে স্বাধীনতা পেয়েছিল ভারত। আর এক মধ্যরাতে তা হারাল। তখন অমিত শাহের দাবি, ‘‘আগামিকাল সোনালি সূর্য উঠবে।’’

    বিলটি পাশের পর শাহকে অভিনন্দন জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আগামী বুধবার রাজ্যসভায় নাগরিকত্ব বিল পেশ করা হবে বলে জানিয়েছে ভারতের সংবাদ মাধ্যমগুলো।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4669