• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    মন্ত্রীর বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

    আসিফ হাসান কাজল | ০৭ অক্টোবর ২০১৭ | ২:০৪ অপরাহ্ণ

    মন্ত্রীর বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

    খবরটা মুঠো ফোনে পেয়ে পৌছে গেলাম নতুন বাজারের মন্ত্রীর বাড়িতে। ভিড় জটলা ঠেলে গৃহ অভ্যন্তরে প্রবেশ করতেই দেখতে পেলাম উচু কেবিনে গাঁয়ে সাদা কাথাঁয় জড়ানো মৃত মেয়েটিকে, নাম অহনা শিকদার স্মিতা (২০)। খোলা মুখে তখনো মেয়ের মাথার চুলে হাত বুলিয়ে চলেছেন বরফ শরীরে দাঁড়িয়ে থাকা বাকরুদ্ধ এক বাবা। পাশেই মেয়ের শরীর ছুয়ে নিঃশব্দে ক্রন্দন চাপা আর্তনাদে কাঠ হয়ে দন্ডায়মান আছেন অহনার মা চোখময় সর্বত্র পানি মুখ বেয়ে গড়িয়ে পড়ছে মেঝেতে। অহনার মুখ জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে ফ্যাকাশে শুভ্রতা।

    “যদি কখনও একাকি বোধ কর, তাহলে তুমি চাঁদকে দেখ’- সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের টাইম লাইনে জীবন সম্পর্কে অহনার শেষ অভিব্যক্তি ছিল এটি। শুভ্র চাঁদ থাকবে চাঁদ মুখ থাকলো না! অহনার মায়ের মনে, এই শব্দই পুনঃপতন হচ্ছিল।


    গেল বৃহস্পতিবার ভারত থেকে মায়ের সাথে সবে মাত্র এসেছে বাংলাদেশে। এর মধ্যেই একদিনের কম ব্যাবধানে শুক্রবার সকালে মাগুরা নতুন বাজারের এই বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বিরেন শিকদারের ভাতিজি এবং মাগুরার বিহারি লাল কলেজের অধ্যক্ষ বিবেক শিকদারের একমাত্র মেয়ে।
    পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, অহনা ভারতে পড়াশোনা করতেন। শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে বাবা বিবেক শিকদার মেয়েকে অনুশাসন এর কিছুক্ষণ পরই অহনা মাগুরা শহরের নতুন বাজারের বাড়ির দোতলায় একটি ঘরে ফ্যানের সঙ্গে শাড়ি পেচিয়ে ফাঁস নেন।

    বাড়ির লোকজন জানতে পেরে দ্রুত তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। ততক্ষণে সব শেষ। কর্তব্যরত চিকিৎসক অহনাকে মৃত ঘোষণা করেন!

    পরিবারের কনিষ্ট মেয়ে ছিলেন অহনা, ছিলেন সকলের কাছেই অত্যন্ত প্রিয় মুখ। তার মৃত্যুতে পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি তার সহপাঠী, বন্ধু এবং প্রতিবশীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

    Comments

    comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিয়ে করাই তার নেশা!

    ২১ জুলাই ২০১৭

    কে এই নারী, তার বাবা কে?

    ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4344