• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    মসজিদ ভেঙ্গে মন্দির করার নির্দেশ দিয়েছিলেন এই চেয়ারম্যান মকিম

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৭ জানুয়ারি ২০১৯ | ৯:৩১ পূর্বাহ্ণ

    মসজিদ ভেঙ্গে মন্দির করার নির্দেশ দিয়েছিলেন এই চেয়ারম্যান মকিম

    গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ২ নং পারুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ মকিমুল ইসলাম মকিম। যার বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই। জায়গা দখল, মাদক বিক্রি, মাটি কাটার ভ্যাকু মেশিন চুরির অভিযোগ তো রয়েছেই। চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রির অভিযোগে একাধিকবার শালিসও হয়েছে তার বিরুদ্ধে।


    তার বিরুদ্ধে রয়েছে পারুলিয়া ইউনিয়নের সোনাডাঙ্গা গ্রামে মসজিদ ভেঙ্গে মন্দির করার নির্দেশ দেওয়ার মতো মারাত্মক অভিযোগ।


    এলাকাবাসীরা বলেন, পারিবারিক জমিজমা ক্রয় সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মসজিদ ভেঙ্গে মন্দির করার নির্দেশ দেন মকিম।

    জানা যায়, চেয়ারম্যান শেখ মকিমুল ইসলাম মকিম তার চাচা মোরাদ হোসেনের কাছ থেকে একখণ্ড জমি ক্রয় করতে চেয়েছিলেন এবং টাকা পরে দিবে বলে সেই জমি তার নামে রেজিস্টারি করাতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তার চাচা সেই জমি তাকে না দিয়ে নগদ টাকার বিনিময়ে মকিম চেয়ারম্যানের বড় ভাই শেখ মতিন এর নিকট বিক্রয় করেন। শেখ মতিন (চেয়ারম্যানের বড় ভাই) তার চাচার নিকট থেকে ক্রয়কৃত জমির ৩ শতক জমি মসজিদে দান করেন।

    চেয়ারম্যান শেখ মকিমুল ইসলাম মকিমকে জমি না দেওয়ায় রাগান্বিত হয়ে তিনি জনসম্মুখে বলেন, এ জমি যদি মসজিদে দান করা হয় তাহলে আমি মসজিদ ভেঙ্গে এখানে মন্দির নির্মাণ করবো।

    তার এমন নির্দেশনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চরম উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। নিজেকে রক্ষার্থে চেয়ারম্যান তার বাংলোর ভিতরে দরজা জানালা আটকিয়ে অবরুদ্ধ অবস্থায় অবস্থান করে জনরোষ থেকে বাঁচেন।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673