• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    মহাসড়কে দুর্ঘটনা, না হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে সেবা গ্রীন লাইন

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৩ জুলাই ২০১৭ | ১১:৪৬ পূর্বাহ্ণ

    মহাসড়কে দুর্ঘটনা, না হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে সেবা গ্রীন লাইন

    সেবা গ্রীন লাইন নামক যমের দখলে ঢাকা খুলনা মহাসড়ক। আর সড়কের মৃত্যুদূত স্বয়ং গাড়ির চালক। তা না হলে অল্প দিনে কিভাবে এতগুলো দুর্ঘটনা ঘটালো সেবা গ্রীন লাইন পরিবহন।


    সবই কি দুর্ঘটনা? প্রতিরোধযোগ্য হওয়ার পরও যদি আমরা উদাসীন থাকি, কাঙ্ক্ষিত নীতি প্রণয়ন করে না এগোই, লাইসেন্সবিহীন সহকারীর হাতে তুলে দিই স্টিয়ারিং, তাহলে একে কি হতাকাণ্ড বলা যায় না?
    উন্নত বিশ্বের অনেক দেশ সঠিক নীতি ও কর্মসূচির মাধ্যমে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি কমিয়ে আনতে পেরেছে। জাতিসংঘের সদস্য দেশগুলোর মধ্যে অর্ধেক দেশ পর্যায়ক্রমে সড়ক দুর্ঘটনার সংখ্যা ও মৃত্যুর হার কমিয়ে এনেছে; কিন্তু বেড়েছে বাকি ৫০ শতাংশ দেশে- যার মধ্যে বাংলাদেশও রয়েছে। এই ব্যর্থতার দায়ভার মেনে নিয়ে আমরা যদি দ্রুত ব্যবস্থা না নিই, পরিস্থিতি সামনে আরো ভয়াবহ হয়ে উঠবে।

    ajkerograbani.com

    সেবা গ্রীন লাইন পরিবহনের যত দুর্ঘটনা

    এক, ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীর গেড়াখোলার পঞ্চবটিতে ২৯ জুন সেবা গ্রীন লাইনের ধাক্কায় মারা যান মাইক্রোবাসের যাত্রী বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার খুড়িয়াখালী গ্রামের সৌদি আরব প্রবাসী হালিম আকন (৪৩), তাঁর স্ত্রী আসমা বানু (৩৫), ছেলে শিহাব (৮) ও সুজন (১৭) এবং শ্যালক বাদল হাওলাদার (৩২)। বেপরোয়া গতির বাসটির মধ্যে ঢুকে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়।
    দুই, ২০১৫ সালের ৩ অক্টোবর ফরিদপুরের নগরকান্দায় গোপালগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী সেবা গ্রীন লাইন পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে বিপরীতমুখী একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে দুই বাসযাত্রী নিহত ও ২৫যাত্রী আহত হয়।
    তিন, ২০১৫ সালের ২১ নভেম্বর গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া থেকে ঢাকাগামী সেবা গ্রীন লাইন পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস গোপালগঞ্জ-টুঙ্গিপাড়া সড়কের মালেকের বাজারে রাস্তা পারাপারে সময় এক মাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে নিহত হন তিনি। তার কোলে থাকা সাত মাসের শিশুকন্যা গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা ওই শিশু কন্যাকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

    চার, ২০১৬ সালের ২৭ জানুয়ারি ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের চণ্ডিবরদী ব্রিজের কাছে শাজাহান ভূঁইয়া নামে এক মোটরসাইকেল চালক তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে একটি পার্শ্ব রাস্তা থেকে মহাসড়কে ওঠার সময় গোপালগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী সেবা গ্রীন লাইন পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস (ঢাকা মোট্রো ব-১৪-৮৮৮৭) তাদেরকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল চালক শাজাহান ভূঁইয়া (৩৫) নিহত হন। অপর আরোহী তাঁর স্ত্রী বৈশাখীকে আহত অবস্থায় মুকসুদপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
    পাঁচ, ২০১৬ সালের অক্টোবরে পিরোজপুরে সেবা গ্রীন লাইন (নং ব-১১-৬০৩৭) ও লোকাল সার্ভিস আল্লার দান দুটো গাড়ীই রং সাইড দিয়ে চলাচল করায় মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় থানা থেকে প্রায় এক কিঃমিঃ দূরে কালিগঙ্গা নদীর সেতুর উত্তর প্রান্তে দোলা কাউন্টারের কাছে। এসময় আল্লার দান গাড়ীর ৮ থেকে ১০ জন যাত্রী আহত হন।

    মিজানুর রহমান মানিক নামে একজন ফেসবুকে লিখেছেন, আপনার গন্তব্যে ৩০ মিনিট পরে যান, কিন্তু কোন দ্রুতগামী, বিশেষ করে সেবা গ্রীন লাইনের মতো কোন পরিবহনে যাতায়াত না করাই ভালো। সেবা গ্রীন লাইন পরিবহনকে না বলুন, নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তার কথা ভেবে।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757