• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    মাইকেল জ্যাকসন : সার্চিং ফর নেভারল্যান্ড

    অনলাইন ডেস্ক | ৩১ মে ২০১৭ | ১১:২১ পূর্বাহ্ণ

    মাইকেল জ্যাকসন : সার্চিং ফর নেভারল্যান্ড

    প্রয়াত পপসম্রাট মাইকেল জ্যাকসনের জীবন নিয়ে ভক্তদের কৌতুহল অশেষ। সেই কৌতুহল কিছুটা হলেও মিটবে সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত বায়োপিক ‘মাইকেল জ্যাকসন : সার্চিং ফর নেভারল্যান্ড’ দেখলে।


    জ্যাকসনের দুই দেহরক্ষী বিল হুইটফিল্ড এবং হাভন বিয়ার্ডসের লেখা ২০১৪ সালে প্রকাশিত একই নামের জীবনী অবলম্বনে তৈরি হয়েছে সিনেমাটি। এতে মাইকেলের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ন্যাভি নামের তার বিখ্যাত বডি ডাবল, যাকে জীবদ্দশায় মাইকেল নিজেই ব্যবহার করেছেন বিভিন্ন ভিডিওতে।

    ajkerograbani.com

    ‘মাইকেল জ্যাকসন : সার্চিং ফর নেভারল্যান্ড’ থেকে কী কী জানা গেল?

    ১. সিনেমা দেখতে গেলে মাইকেল তার সঙ্গে নিয়ে যেতেন বাসায় তৈরি পিনাট বাটার এবং হট সস। এগুলো পপকর্নে মাখিয়ে খেতেন তিনি। নিজের তিন সন্তানকে নিয়ে চলচ্চিত্র উৎসবে যেতে পছন্দ করতেন তিনি। বিশেষ করে যেগুলোতে চার্লি চ্যাপলিনের সিনেমা দেখানো হত।

    ২. বাড়ির সামনে ভক্তদের ভীড় নিয়ে কিছু মনে করতেন না মাইকেল। পুলিশকে বলতেন, তার ভক্তদের যেন কোনো ক্ষতি না হয়!

    ৩. দুই দেহরক্ষী হাভন এবং বিল চুক্তির কারণে তাদের পরিবারকে কখনও বলতে পারেনি তারা মাইকেল জ্যাকসনের সঙ্গে কাজ করতেন। একারণে পরিবারের সঙ্গে তাদের সম্পর্কের অবনতিও ঘটে। বিল একবার মাইকেলরে সঙ্গে থাকার কারণে পরিবারের সঙ্গে বড়দিনও পালন করতে পারেননি।

    ৪. মৃত্যুর এক সপ্তাহ আগে দুই দেহরক্ষীকে মাইকেল বলেছিলেন স্বাস্থ্যের কারণে পরবর্তী লাইভ কনসার্টে অংশ নেওয়া হবে না তার।

    ৫. গণমাধ্যমের সামনে সন্তানদের চেহারা প্রকাশ করতে চাইতেন না মাইকেল। একারণে তাদেরকে মুখোশ পরিয়ে রাখতেন তিনি। মুখোশ পরার ব্যাপারটিকে বাচ্চাদের কাছে খেলার ছলে তুলে ধরতেন তিনি। এর ফলে বাচ্চারা খুশিমনেই খেলায় অংশ নিয়ে গণমাধ্যমের সামনে নিজেদের আসল পরিচয় লুকিয়ে রাখতো।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757