সোমবার ১৮ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মাদ্রাসা ছাত্রীকে নির্মমভাবে হত্যা

ডেস্ক   |   বৃহস্পতিবার, ১৯ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

মাদ্রাসা ছাত্রীকে নির্মমভাবে হত্যা

নরসিংদীর পলাশে দশম শ্রেণীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে মাথায় একাধিক আঘাত করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে।
বুধবার পলাশ থানা পুলিশ গজারিয়া মধ্যপাড়া এলাকায় নিহতের নিজ বাড়ী থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে।
এ ঘটনায় নিহতের দুই ভাই ও দুই বোনকে সন্দেহজনক প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।
নিহত আফিয়া (১৬) পলাশ উপজেলার গজারিয়া মধ্যপাড়া গ্রামের আজাহার মিয়ার ছোট মেয়ে। সে গজারিয়া দাখিল মাদ্রাসার দশম শ্রেণীর ছাত্রী।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েক মাস আগে রাসেল নামে এক যুবকের সাথে প্রেমের সর্ম্পকে জড়িয়ে পরে আফিয়া। রাসেল আফিয়াকে বিয়ের করা জন্য আফিয়ার বাড়ীতে প্রস্তাব দেয়। কিন্তু রাসেল আগে থেকেই অন্য একটি মেয়েকে বিয়ে করার খবর জানতে পেরে আফিয়ার পরিবার এই সম্পর্ক মানতে পারছিল না। পরবর্তীতে আফিয়ার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি তার বড় ভাই আলম গত একমাস যাবৎ তার নিজের কাছে রেখে দেয়। মাঝে মধ্যে রাসেল ওই মোবাইলে ফোন দিলে ফোনটি আফিয়ার বড় ভাই আলম রিসিভ করত। এ নিয়ে আফিয়া ও তার পরিবারের মধ্য প্রায়ই ঝগড়া হত। ঘটনার দিন রাতে মঙ্গলবার আফিয়ার সাথে তার দুই বোন ও ঘরের একই রুমে তার দুই ভাই শাখায়ত ও আলমসহ দুই বোনের জামাই মোশারফ ও তারেক এক সাথেই ছিল।
তবে আশপাশের বাড়ীর লোকজন জানায়, গভীর রাতে নিহতের পিতা আজাহার ও নিহতের মায়ের চিৎকারে আশপাশের বাড়ীর লোকজন ছুটে আসলে কিছুই হয়নি বলে নিহতের পরিবার থেকে জানানো হয়। পরর্বতীতে ভোর সকালে আবার নিহতের পরিবারে কান্নাকাটির শব্দ পেয়ে আশপাশের বাড়ীর লোকজন ছুটে আসলে পরিবার থেকে জানানো হয় ঘরের সিঁধ কেটে কে বা কারা ঘুমন্ত অবস্থায় আফিয়াকে তুলে নিয়ে হত্যা করে বাড়ীর পাশে ফেলে রেখে চলে যায়।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। নিহত আফিয়ার মাথায় আঘাতের একাধিক চিহ্ন রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।
হত্যাকান্ডের খবর পেয়ে নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শাহেদ আহমেদ ঘটনারস্থল পরিদর্শন করেন।
পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন ওসি নাসির বলেন, এ হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন ও খুনিদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ সব রকম চেষ্টা করছে। থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

Facebook Comments Box


Posted ১০:০৯ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৯ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১