শনিবার, এপ্রিল ১১, ২০২০

মুকসুদপুর থানায় কর্মরত ৬৬ জন পুলিশ সদস্য কোয়ারেন্টাইনে

তারিকুল ইসলামঃ   |   শনিবার, ১১ এপ্রিল ২০২০ | প্রিন্ট  

মুকসুদপুর থানায় কর্মরত ৬৬ জন পুলিশ সদস্য কোয়ারেন্টাইনে

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর থানার কনস্টেবল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ কারণে ওই থানায় কর্মরত ৬৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এর মধ্যে ওই থানার ওসি ও সেকেন্ড অফিসার নিজের বাসায় হোম কোয়ারেন্টানে থাকছেন।
এছাড়া ২৮ জন এসআই ও এএসআই এবং ৩৭ জন কনস্টেবল সরকারি মুকসুদপুর ডিগ্রি কলেজে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। শনিবার মুকসুদপুর থানার সবাইকে হোম কোয়ারেন্টাইনের বিষয়টি তদারকি করেছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আসলাম খান।
মুকসুদপুর থানার সেকেন্ড অফিসার এস.আই মিজানুর রহমান জানান, থানায় কর্মরত এক কনস্টেবল ( মহিউদ্দিন) গত ১ এপ্রিল সর্দি, জ্বর ও কাশিতে আক্রান্ত হন। গত ৬ এপ্রিল ছুটি নিয়ে তিনি মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় উপজেলার উথুলী ইউনিয়নের বীরবাসাইল কলাবাগান গ্রামের নিজ বাড়িতে যান। মানিকগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগ তার নমূনা সংগ্রহ করে ঢাকা পাঠায়।
শুক্রবার সন্ধ্যায় মানিকগঞ্জ স্বাস্থ্য বিভাগ রিপোর্ট হাতে পেয়ে ওই কনস্টেবল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে নিশ্চিত করে। শুক্রবার রাত থেকেই মুকসুদপুর থানায় কর্মরত ৬৬ জনকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে।
মুকসুদপুর থানার ওসি মীর মোঃ সাজেদুর রহমান জানান, তারা ৬৬ জন হোম কোয়ারেন্টাইন শুরু করেছেন। থানা সচল রাখতে ইতি মধ্যে এ থানায় অন্য জায়গা থেকে এসআই, এএসআই ও কনস্টেবল যোগদান করেছেন। সদ্য যোগদানকৃতরাই থানা চালাবেন বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা ।
গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন নিয়াজ মোহাম্মদ জানান, ওই থানার সবাই হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। আমরা ১ দিনে ১২ জনের নমুনা সংগ্রহ করতে পারি। তাই হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ১২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে শনিবার ঢাকা পাঠানো হয়েছে। পর্যায়ক্রমে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা পুলিশ সদস্যদের সবার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা পাঠানো হবে।


Posted ৪:২৪ পিএম | শনিবার, ১১ এপ্রিল ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement