• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    মুখের কোন অংশ অবিকল বাবা-মায়ের মতো হয়

    অনলাইন ডেস্ক | ২১ এপ্রিল ২০১৭ | ৯:১২ পূর্বাহ্ণ

    মুখের কোন অংশ অবিকল বাবা-মায়ের মতো হয়

    একদম বাবার মুখ বসানো। বা চোখ দুটো একদম মায়ের মতো। সদ্যজাত শিশুদের দেখে এমন কথা আত্মীয় স্বজন, প্রতিবেশীরা বলেই থাকেন। বড় হতে হতে আমরা প্রত্যেকেই নিজের মতো দেখতে হলেও বাবা, মায়ের মুখের আদল বা কোনও না কোনও মিল ঠিক খুঁজে পাওয়া যায়ই। কারও থুতনিটা মায়ের মতো, তো কারও হাসিটা অবিকল বাবার মতো থেকেই যায়। যাদের সঙ্গে বাবা বা মায়ের মুখের সে ভাবে কোনও মিল থাকে না, গভীর ভাবে খুঁটিয়ে দেখলে তাদেরও মুখের কোনও না কোনও অংশের সঙ্গে বাবা, মায়ের পাওয়া যায়ই।


    মুখের ঠিক কোন অংশের সঙ্গে বাবা, মায়ের মিল সবচেয়ে প্রকট হয় বলুন তো? গবেষকরা জানাচ্ছেন, নাকের শেষ প্রান্ত, ঠোঁটের উপর-নীচ, গালের হা়ড় ও চোখের ভিতরের দিকের কোনায় জিনের প্রভাব সবচেয়ে বেশি লক্ষ করা যায়। এই গবেষণার জন্য ১,০০০ জন যমজ মহিলার ৩-ডি ফেস মডেল নিয়ে পরীক্ষা করেন লন্ডনের কিঙ্গস কলেজের অধ্যাপক ও এই বিষয়ের মুখ্য গবেষক জিওভানি মন্টানা। তিনি বলেন, মুখের আদলে আমাদের জিনের প্রভাব স্পষ্ট থাকে। বাবা, মায়ের সঙ্গে আমাদের মিল থাকে। আইডেন্টিক্যাল টুইনদের তো অনেক সময় আলাদা ভাবে চেনাই যায় না।

    ajkerograbani.com

    মন্টানা বলেন, ‘‘মুখের ঠিক কোন অংশে সবচেয়ে বেশি জিনের প্রভাব লক্ষ করা যায় এত দিন পর্যন্ত তা বিশ্লেষণ করা বেশ কষ্টসাধ্য ছিল। থ্রি-ডি ক্যামেরার সাহায্যে যমজদের মুখের ছবি স্ক্যান করে ও স্ট্যাটিসটিক্যাল অ্যালগরিদমের সাহায্যে ফেস হেরিটেবিলিটি ম্যাপ তৈরি করা হয়েছে। যার থেকে বোঝা সম্ভব হয়েছে ঠিক কোন কোন অংশে বাবা, মায়ের মুখের সঙ্গে, আইডেন্টিক্যাল না হওয়া সত্ত্বেও যমজ ভাই, বোনের মুখের সঙ্গে অবিকল মিল থাকে।’’

    সায়েন্টিফিক জার্নাল রিপোর্টে এই গবেষণার ফল প্রকাশিত হয়েছে।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিয়ে করাই তার নেশা!

    ২১ জুলাই ২০১৭

    কে এই নারী, তার বাবা কে?

    ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757