• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    মুখ বন্ধ করে দুই ঘণ্টা বসে থেকে ইউটিউবে ভাইরাল

    | ০৪ আগস্ট ২০২০ | ৯:০৫ অপরাহ্ণ

    মুখ বন্ধ করে দুই ঘণ্টা বসে থেকে ইউটিউবে ভাইরাল

    করোনাভাইরাসের এই সংকটময় মুহূর্তে মানুষ সময় কাটানোর জন্য ইউটিউবে বা ফেসবুক ভিডিও দেখছেন বেশ। অন্যদিকে মানুষকে বিনোদন দেয়ার জন্য ভিডিও নির্মাণও বেড়েছে। যেহেতু মানুষ এখন দিনের অনেকটা সময় ইউটিউবে কাটাচ্ছে, তাই ভিডিওগুলোও কয়েকদিনের মধ্যে লাখ লাখ ভিউ অতিক্রম করছে। কিন্তু সম্প্রতি ইউটিউবে এমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে, একজন মুখ বন্ধ করে দুই ঘণ্টা বসে আছেন।


    ভাইরাল হওয়া লোকটি ইন্দোনেশিয়ার এক ইউটিউবার। তিনি নিজের ভিডিও শেয়ার করেছেন। শিরোনাম ‘2 JAM nggak ngapa-ngapain’ (দুই ঘণ্টায় কিছুই করিনি)।

    ajkerograbani.com

    গত ১০ জুলাই ভিডিওটি ইউটিউবে শেয়ার করেন ইউটিউবার মুহাম্মদ দিদিত। এখনো পর্যন্ত ওই ভিডিওটি আড়াই ২ মিলিয়নেরও বেশি মানুষ দেখেছেন। এই প্রসঙ্গে বলে রাখি, দিদিতের ইউটিউব চ্যানেলের নাম ‘sobat miskin official’, যেখানে তার ৩১ হাজারের বেশি সাবস্ক্রাইবার আছে।

    ভিডিওটির দর্শকরা অনেকে অনুমান করার চেষ্টা করেছেন যে, দুই দুই ঘণ্টার মধ্যে দিদিত ঠিক কী করছিলেন। আবার কেউ কেউ গুনে দেখছিলেন দিদিত কতবার চোখের পলক ফেলেছেন। অন্যদিকে কিছু মানুষ ভেবেছেন দিদিত হয়তো ভুলবশত রেকর্ড বাটন প্রেস করেছেন। তবে অনেকেই মন্তব্য করেছেন কীভাবে লাখ লাখ দর্শক এই ভিডিওটি দেখতে উৎসাহিত হয়েছেন।

    এই বিষয়ে দিদিত বলেছেন, ইন্দোনেশীয় সমাজ তাকে শিক্ষা-বিষয়ক ভিডিও বানাতে জোর করেছে, ফলে অনিচ্ছা সত্ত্বেও ভারাক্রান্ত মন নিয়ে তিনি এই ভিডিও তৈরি করেছেন এবং সেটি দর্শকের দৃষ্টিভঙ্গির ওপর ছেড়ে দিয়েছেন। আপনার যদি হাতে অঢেল সময় থাকে তবে দু-ঘণ্টার এই ভিডিওটি অবশ্যই একবার দেখবেন!

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিয়ে করাই তার নেশা!

    ২১ জুলাই ২০১৭

    কে এই নারী, তার বাবা কে?

    ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757