রবিবার, মার্চ ২৯, ২০২০

যুদ্ধ আইনে ভেন্টিলেটর তৈরির আদেশ ট্রাম্পের

ডেস্ক   |   রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

যুদ্ধ আইনে ভেন্টিলেটর তৈরির আদেশ ট্রাম্পের

করোনাভাইরাস আতঙ্কে গোটা বিশ্ব। আক্রান্তের দিক দিয়ে বিশ্বের সব দেশকে ছাড়িয়ে গিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এরই মধ্যে দেশটিতে লাখ ছাড়িয়েছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা। চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে সেখানকার হাসপাতালগুলো। করোনা রোগীদের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় যন্ত্র ভেন্টিলটরের সংকট দেখা দিয়েছে। এমন অবস্থায় যুদ্ধ আইনে ভেন্টিলেটর বানানোর নির্দেশ দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।
‘ডিফেন্স প্রোডাকশান অ্যাক্ট’ আইন প্রয়োগ করে গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থা জেনারেল মোটরসকে যত দ্রুত সম্ভব বেশি সংখ্যায় ভেন্টিলেটর তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এই আইন অনুযায়ী, দেশের বিপর্যয় সামলাতে প্রেসিডেন্ট তার বিশেষ ক্ষমতা প্রয়োগ করে কোনো সংস্থাকে সব কিছু ফেলে শুধুমাত্র যুদ্ধের সরঞ্জাম বানাতে বলতে পারেন।
শনিবার হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প সাংবাদিকদের জানান, এখন প্রয়োজন প্রচুর পরিমাণ ভেন্টিলেটর। সেজন্যই জেনারেল মোটরসকে সব কাজ ছেড়ে এই নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। দিন কয়েক আগেই ওই গাড়ি সংস্থার বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। টুইটারে অভিযোগ করেন, ৪০ হাজারের বদলে মাত্র ৬ হাজার ভেন্টিলেটর বানাবে বলে জানিয়েছে ওই সংস্থা। কিন্তু দেশ জুড়ে প্রতিদিন চাহিদা যেভাবে বাড়ছে, তাতে মাত্র ৬ হাজার ভেন্টিলেটরে কিছু হবে না। এখন যা পরিস্থিতি, তাতে শুধু নিউইয়র্কেই প্রয়োজন ৪০ হাজার ভেন্টিলেটর। এখনই সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৫ হাজার ছাড়িয়েছে।
ট্রাম্পের কথায়, ‘ওরা (জেনারেল মোটরস) আর্থিক লেনদনের বিষয় নিয়ে সময় নষ্ট করছিল। আপাতত ওদের সঙ্গে আমাদের কথাবার্তা সদর্থক হয়েছে। তবে আমাদের প্রয়োজনটা এখন এতটাই বেশি যে চুক্তির বাইরে গিয়েও কাজ করতে হতে পারে ওই সংস্থাকে।’
এর আগে বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জানান, ‘ফেডারেল ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট এজেন্সি’ বিভিন্ন প্রদেশের হাসপাতালে ছ’হাজার ভেন্টিলেটর দিয়েছে। করোনা সংক্রমণ সামলানোর মূল দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সকে।
তিনি জানিয়েছেন, কোন হাসপাতালে কত ভেন্টিলেটর রয়েছে, বিভিন্ন প্রদেশের গভর্নরেরা আপাতত তার খতিয়ান দেখছেন। দ্রুত উৎপাদন বাড়িয়ে আগামী ১০০ দিনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র বন্ধু দেশগুলিকে মোট ১ লক্ষ ভেন্টিলেটর সরবরাহ করতে সক্ষম হবে।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট জানান, ‘ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ভেন্টিলেটর চাইছিলেন। দুর্ভাগ্যের বিষয় তিনি নিজেও করোনায় আক্রান্ত। আশা করি, তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন। ইতালি, স্পেন, জার্মানিরও প্রচুর ভেন্টিলেটর প্রয়োজন। আমরা প্রচুর যন্ত্র বানাচ্ছি। যাতে দেশের মানুষদের সুস্থ করে তোলার পাশাপাশি বিশ্বের অন্য দেশের আক্রান্তদেরও পরিষেবা দিতে পারি।’


Posted ১১:২১ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]