রবিবার ১লা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৭ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রতন কাহারকে পাঁচ লাখ দিলেন বাদশাহ

ডেস্ক   |   মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০ | প্রিন্ট  

রতন কাহারকে পাঁচ লাখ দিলেন বাদশাহ

পশ্চিমবাংলার স্বভাব কবি ও লোকশিল্পী রতন কাহার। তার দুঃখ-কষ্টের সংসার। কিন্তু দারিদ্রের চেয়েও আজীবন তাকে বেশি বিঁধেছে স্বীকৃতি না পাওয়ার ব্যথা। ‘বড়লোকের বিটি লো’ বিতর্কে এবার অর্থের সঙ্গে স্বীকৃতিও পেলেন রতন কাহার। সোমবার লকডাউনের মাঝেই তার অ্যাকাউন্টে পাঁচ লাখ টাকা ট্রান্সফার করেছেন বলিউডের জনপ্রিয় র‌্যাপার বাদশাহ।
জীবনে প্রথমবার তার সঙ্গে ঘটা এমন ঘটনায় রতন কাহার শুধু বলেন, ‘আমার গানটা নাম পেল, এটাই বড় কথা বাবু।’ বাদশাকে তিনি সিউড়ি আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। একইসঙ্গে তিনি জনপ্রিয় এই র‌্যাপারকে দুটি গান উপহার দেয়ার কথাও জানিয়েছেন।
রতন কাহারকে প্রাপ্য সম্মান ও সাম্মানিক দেয়ার প্রতিশ্রুতি আগেই দিয়েছিলেন বাদশা। হোয়াটসঅ্যাপে কল করে রতন কাহারের সঙ্গে তিনি কথাও বলেন। জানান, লোকশিল্পীর কাজের স্বীকৃতি তো দেয়া হবেই, সেই সঙ্গে দুঃস্থ এ পরিবারটির পাশেও যথাসাধ্য থাকার চেষ্টা করবেন তিনি।
১৯৭২ সালে আকাশবাণীতে নিজের লেখা ‘বড়লোকের বিটি লো’ রেকর্ড করেছিলেন রতন কাহার। পরে সেই গান গেয়ে প্রতিষ্ঠিত হন শিল্পী স্বপ্না চক্রবর্তী। বলিউডে এই মুহূর্তে চার্ট বাস্টার বাদশার ‘গেন্দাফুল’ মিউজিক ভিডিওটি। সেখানে রতন কাহারের ‘বড়লোকের বিটি লো’র চারটি লাইন পাঞ্চ লাইন হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে।
মিউজিক ভিডিওটি রিলিজ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ট্রেন্ডিং হয়। একই সঙ্গে বিতর্কেও জড়ায়। লিরিসিস্ট হিসেবে রতন কাহারের নাম না থাকায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ ও নিন্দার ঝড় বইয়ে দেন নেটিজেনদের বড় একটা অংশ। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে, গত ৩১ মার্চ ‘গেন্দাফুল’ গান এবং বাংলার রতন কাহার প্রসঙ্গে মুখ খুলতে বাধ্য হন বাদশা।
সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও পোস্ট করে তিনি বলেন, ‘আমি ওই গান রচয়িতার নাম খোঁজার চেষ্টা করেছি। কিন্তু খুঁজে পাইনি। ২৬ মার্চ আমি জেনেছি, রতন কাহারের নাম। আমি জানি, উনি একজন মহান শিল্পী। শুনেছি উনার অর্থনৈতিক অবস্থাও ভালো নয়। তাই আমি উনাকে সম্মান দিয়ে সাহায্য করতে চেই।’
বাদশা দাবি করেন, একজন শিল্পী হিসেবে তিনি অন্য শিল্পীকে সম্মান করতেই শিখেছেন। ‘বড় লোকের বিটি লো’র ক্ষেত্রেও তার কোনো খারাপ অভিসন্ধি ছিল না। এরপর শিল্পীকে তার প্রাপ্য সম্মান দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন বাদশা। দ্বিতীয় ধাপে সরাসরি রতন কাহারের মেয়ে শ্রাবণীর মোবাইলে ভিডিও কল করে তার সঙ্গে কথাও বলেন।
এ সময় ভিডিও কলেই দুহাত তুলে বাদশাকে আশীর্বাদ করেন রতন কাহার। তার কথায়, ‘আমি দুহাত ভরে আশীর্বাদ করেছি বাদশাকে। বলেছি, আরও বড় হও। ওকে আমন্ত্রণ জানিয়েছি আমার এখানে আসার। গানও শুনিয়েছি, যাবার গান। বাদশাহ চাইলে তাকে আমি আরও গান লিখে দিতে পারি।’

Facebook Comments Box


Posted ৭:৫৬ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১