বুধবার, জুন ৩০, ২০২১

রানা প্লাজার রেশমার কথা ভেবে আশায় বুক বেঁধেছেন যুক্তরাষ্ট্রের মেয়র!

  |   বুধবার, ৩০ জুন ২০২১ | প্রিন্ট  

রানা প্লাজার রেশমার কথা ভেবে আশায় বুক বেঁধেছেন যুক্তরাষ্ট্রের মেয়র!

যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে (স্থানীয় সময়) বৃহস্পতিবার একটি ১২ তলা আবাসিক ভবন আংশিকভাবে ধসে পড়লে অন্তত ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে নিখোঁজ হয়েছেন কমপক্ষে দেড়শো মানুষ। অঙ্গরাজ্যটির মায়ামির পার্শ্ববর্তী সার্ফসাইড এলাকায় উক্ত দুর্ঘটনা ঘটে।
নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, উদ্ধার তৎপরতা এখনো চলছে। উদ্ধারকর্মীরা প্রাণপণ চেষ্টা করছেন এখনো কেউ যদি জীবিত থেকে থাকেন তবে তাকে উদ্ধার করতে। দুর্ঘটনার ছয়দিন পেরিয়ে গেলেও নিখোঁজ ওই ১৫০ জনের পরিবার ও তাদের বন্ধুরা জানিয়েছেন, তারা প্রিয়জনদের সন্ধান পেতে মরিয়া এবং তাদের জীবিত ফিরে পাওয়ার আশায় রয়েছেন।
এদিকে, সার্ফসাইড মেয়র চার্লস বারকেট এ ব্যাপারে সেভেন নিউজ মায়ামিকে জানান যে, তিনি হাল ছাড়ছেন না। তিনি বেশকিছু উদাহরণের দিকে ইঙ্গিত করেন যেগুলোতে কয়েকদিন পরও একইরকম পরিস্থিতিতে বেঁচে থাকা ব্যক্তিদের জীবিত উদ্ধার করা হয়েছিল। তিনি বলেন, “এদের মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য উদাহরণটি হলো ২০১৩ সালের মে মাসে বাংলাদেশের একটি ঘটনা। সেসময় একজন নারীকে (রেশমা) একটি কারখানার (রানা প্লাজা ভবনের) ধ্বংসাবশেষ থেকে ১৭ দিন পর উদ্ধার করা হয়।”
উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে বাংলাদেশের সাভারে নয় তলা ভবন রানা প্লাজা ধসের ঘটনায় এগারো শ’র বেশি শ্রমিক মারা যান, যাদের বেশিরভাগই ছিলেন তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিক।
ভবনটিতে ফাটল থাকার কারণে ওই ভবন ব্যবহার না করার সতর্কবার্তা থাকলেও তা উপেক্ষা করা হয়েছিল। ওই ভবনের এক পোশাক তৈরির কারখানায় কাজ করতেন পোশাক শ্রমিক রেশমা বেগম। উদ্ধার তৎপরতার একেবারে শেষের দিকে ১৭ দিন পর ধ্বংসস্তূপের নীচ থেকে রেশমাকে জীবিত উদ্ধারের ঘটনা ব্যাপক বিস্ময় ও চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছিল।


Posted ১২:৫৩ পিএম | বুধবার, ৩০ জুন ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement