রবিবার, আগস্ট ১৫, ২০২১

রাবি শিক্ষার্থীর পুঁজিবিহীন উদ্যোগ, বছর ঘুরতেই বিক্রি ২৩ লাখ টাকা

ডেস্ক রিপোর্ট   |   রবিবার, ১৫ আগস্ট ২০২১ | প্রিন্ট  

রাবি শিক্ষার্থীর পুঁজিবিহীন উদ্যোগ, বছর ঘুরতেই বিক্রি ২৩ লাখ টাকা

শুরুটা ২০২০ সালের মাঝামাঝি সময়। একদিকে করোনা মহামারির কারণে সারাদেশে লকডাউন। অন্যদিকে গ্রীষ্মের শুরতে সুপার সাইক্লোন আম্ফানের হানা। আমের শহর খ্যাত রাজশাহীর অঞ্চলের আম চাষিরা বেশ ক্ষতিগ্রস্ত। এত ক্ষয়ক্ষতির পরেও কৃষকদের যা অবশিষ্ট ছিলো তা দেশব্যাপী লকডাউনের কারণে বিক্রি হবে কিনা, তা নিয়ে নানান শঙ্কা।

সেই ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী শরীফ মাহমুদ। আম বিক্রির জন্য নিজের ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দেন। সেদিনই অর্ডার পান ৭০ মণ আমের। পরে সরাসরি কৃষকদের বাগান থেকে আম সংগ্রহ করে ডেলিভারি দেন। সে বছরে ৪০০ মণের বেশি আম ডেলিভারি করেছেন ক্রেতাদের কাছে। এভাবেই শুরু হয়েছিলো তার অনলাইন ব্যবসা।


সে বছরই নিজের স্বপ্নের অনলাইন ব্যবসাকে বড় করার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ‘ঘরোয়া বাজার’ নামে একটি পেজ ও গ্রুপ খুলেন সঙ্গে ওয়েবসাইট। পরের বছর ২০২১ সালে শীতের সময় রাজশাহীর খাঁটি খেজুরের গুড় এবং গাওয়া ঘি বিক্রিতে বেশ সাড়া পান। এছাড়াও কাস্টমাইজ টি-শার্ট, হুডি, পাঞ্জাবি নিয়েও কাজ করেছেন বেশ সফলতার সঙ্গে।

চলতি বছরে আমের মৌসুমে আবারো শুরু করেন অনলাইনে আম বিক্রি। মৌসুম শেষে বিক্রি করেছেন ৭০০ মণের অধিক আম। যার বাজার মূল্য প্রায় ২৩ লাখ টাকা। সেখান থেকে লাভের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ টাকার অধিক।


শরীফ বলেন, পুঁজি ছিলো আমার সৎ ইচ্ছা ও বিশ্বাস। মুনাফার তেমন আশা ছিলো না। একদম শূন্য হাতে শুরু করেছিলাম। নিজের পরিচিত কৃষকদের থেকে আম সংগ্রহ করে অনলাইনে বিক্রির বিজ্ঞাপন দিতাম। ক্রেতারা অর্ডার করার সময় দাম পরিশোধ করে দিতো। সেই টাকা দিয়েই কৃষকদের মূল্য পরিশোধ করতাম। যার কারণে আমার তেমন পুঁজি লাগেনি।

অনলাইন ব্যবসার মাধ্যমে শরীফ নিজে হয়েছেন সাবলম্বী। পাশাপাশি এবছর আমের মৌসুমে তিনজন বেকার যুবকের সাময়িক কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছিলেন। সেই সঙ্গে করোনা মহামারিতে আমের ন্যায্য দাম না পাওয়া কৃষকদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

ভবিষ্যত পরিকল্পনা সর্ম্পকে এই উদ্যোক্তা বলেন, মানুষের চাহিদা অনুযায়ী সহজে ও স্বল্প সময়ে কিভাবে পণ্য পৌঁছে দেয়া যায় সেটাই মূলত লক্ষ্য। এছাড়াও ওয়েবসাইট এবং অ্যাপের মাধ্যমে খাঁটি, নির্ভেজাল পণ্য যাতে ক্রেতারা ক্রয় করতে পারে সেদিকেও অগ্রসর হচ্ছি। সেই সঙ্গে বর্তমানে নতুন কিছু করার প্রস্তুতি নিচ্ছি। অতীতে যেসব পণ্য নিয়ে কাজ করেছি, বর্তমানে করছি সেগুলোর পাশাপাশি নতুন নতুন পণ্য যুক্ত করতেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

Posted ১:৪২ অপরাহ্ণ | রবিবার, ১৫ আগস্ট ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]