• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    রাশিয়ার উদ্বেগ বাড়িয়েছে যে নারী

    অগ্রবাণী ডেস্ক | ২০ এপ্রিল ২০১৭ | ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ

    রাশিয়ার উদ্বেগ বাড়িয়েছে যে নারী

    মারিয়া শারাপোভা। নিষিদ্ধ মেলডোনিয়াম সেবন করে হারিয়েছেন টেনিস জীবনের মহামূল্যবান সাড়ে চারশো দিন। ইয়েলেনা ইসিনবায়েভা। ডোপ না করেও নামতে পারেননি রিওতে। জেতা হয়নি প্রার্থিত তৃতীয় অলিম্পিক্স সোনা। রাষ্ট্রীয় ডোপিং-এর অপরাধে রাশিয়া নির্বাসিত হওয়ায়।


    মারিয়া এখন নির্বাসন পর্ব কাটিয়ে স্টুটগার্টে নতুন শুরুর অপেক্ষায়। আর ইয়েলেনা? অনেকেই জানেন না তাঁর কাঁধে মহাদায়িত্ব। পোল ভল্টে পাঁচ মিটার অতিক্রম করা একমাত্র মহিলাকে ভ্লাদিমির পুতিন সরকার ‘রাশদা’র চেয়ারম্যান করে দিয়েছে। ‘রাশদা’ হল, রাশিয়ার অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির সংক্ষিপ্ত নাম। ইসিনবায়েভা গোটা দেশ চষে বেড়াচ্ছেন। সরেজমিন দেখছেন কোনও অ্যাথলিট এখনও ডোপ করছেন কীনা। কিন্তু তাঁর অতি সক্রিয়তায় সমস্যায় পড়েছে রুশ অ্যাথলেটিক্স সংস্থা। যাঁদের একমাত্র লক্ষ্য আন্তর্জাতিক অ্যাথলেটিক্স সংস্থাকে সন্তুষ্ট করে ওয়াডার সবুজ সঙ্কেত আদায়। যাতে রুশ অ্যাথলিটরা মূলস্রোতে ফিরতে পারে। কিন্তু ইসিনবায়েভা যত্রতত্র আন্তর্জাতিক ফেডারেশন আর ওয়াডার মুণ্ডপাত করে যাচ্ছেন, ‘‘ডোপিং সব দেশেই হয়। আমেরিকা, চিনে হয় না? ভারতের অ্যাথলিট ধরা পড়ে না? আমার দেশেও হয়েছে। তা বলে পুরো রাশিয়াকেই সাসপেন্ড করতে হবে?’’

    ajkerograbani.com

    শুধু এই একটা মন্তব্য নয়। বিশ্বের সর্বকালের সেরা পোলভল্টার (মেয়েদের) সবথেকে মারাত্মক যে কথাটা বলেছেন তা শুনে মর্মাহত অ্যাথলিটরাও। তিনি বলেছেন, ‘‘রিওতে যে মেয়েটা সোনা জিতেছে তার নামের পাশে একটা ‘স্টার’ চিহ্ন দিয়ে রাখতে হবে। ওই চিহ্নের মানে হচ্ছে, ইসিনবায়েভা ছিল না বলে মেয়েটা সোনা পেয়েছে।’’ বোঝাই যাচ্ছে অলিম্পিক্সে সোনার হ্যাটট্রিক করতে না পেরে অবসর নেওয়ার হতাশা আজও তিনি কাটিয়ে উঠতে পারেননি। আর শারাপোভার মতোই সমালোচিত হচ্ছেন যথেচ্ছ। তাঁর উপর বিরক্ত আন্তর্জাতিক অ্যাথলেটিক্স সংস্থার প্রেসিডেন্ট সেবাস্টিয়ান কো-ও। সবথেকে বড় কথা, অসম্ভব উদ্বিগ্ন তাঁর নিজের দেশের অ্যাথলেটিক্স সংস্থাই। রাশিয়ার নামী অ্যাথলিট তাতিয়ানা লেবেদেভার কথায়, ‘‘ইয়েলেনা একটু বেশিই বলে ফেলছে। ওর শ্রেষ্ঠত্ব প্রশ্নাতীত। এমনকী রিওর পরে আইওএ ওঁকে বড় পদ দিয়েছে। কিন্তু এখন কিছুদিন একটু চুপচাপ থাকলে অসুবিধাটা কোথায়? এসব ক্রমাগত বলে গেলে আমাদের ফেরাটাই তো বিলম্বিত হবে।’’

    তাতিয়ানারা যাই বলুন, শারাপোভার মতোই ইসিনবায়েভাকে চুপ করানো যাচ্ছে না। ঠিক যেভাবে ইউরোপের সমকামীদের তিনি গালাগাল করেন, সেভাবেই সকাল-সন্ধ্যে বলে যাচ্ছেন, ‘‘আমার দেশ আসলে আন্তর্জাতিক চক্রান্তের শিকার।’’[LS]

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757