সোমবার ১৮ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২রা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

রেকর্ড গড়ে লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস

ডেস্ক রিপোর্ট   |   মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | প্রিন্ট  

রেকর্ড গড়ে লিগ চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস

প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের সবচেয়ে বেশি পয়েন্টের রেকর্ড ভেঙে ড্র করেই লিগ শেষ করলো চার ম্যাচ হাতে রেখে লিগ শিরোপা জেতা বসুন্ধরা কিংস।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে আবাহনী লিমিটেডের বিপক্ষে ১-১ ড্র করে কিংস। ২৪ ম্যাচে ২১ জয়, দুই ড্র ও এক হারে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শেষ করল তারা।


ম্যাচের শুরুতে দুই দলই ছিল সমানে-সমান। ২৮তম মিনিটে তপু বর্মনের আত্মঘাতী গোলে এগিয়ে যায় আবাহনী। ডান দিক থেকে রাফায়েল দি সিলভার ক্রসে বিপদের তেমন কিছু ছিল না। ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের জালে জড়িয়ে দেন তপু।

দুই মিনিট পর এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকোকে একা পেয়েও বাইরে মেরে ব্যবধান দ্বিগুণের সুযোগ নষ্ট করেন সানডে চিজোবা। এই নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড ৩৫তম মিনিটে সিলভার ফ্রি কিকে গোলমুখ থেকে হেডে জিকোর হাতে বল তুলে দেন।
আগের ভুলের ক্ষতে তপু প্রলেপ দেন ৩৭তম মিনিটে। বক্সের বাইরে থেকে রবসন দি সিলভা রবিনিয়োর ফ্রি কিকে হেডে শহিদুল আলম সোহেলকে পরাস্ত করেন এই ডিফেন্ডার। সমতার স্বস্তি ফেরে কিংস শিবিরে।


প্রথমার্ধের শেষ সময়ে দারুণ সেভে আবাহনীর ত্রাতা সোহেল। জোনাথন ফের্নান্দেসের ক্রসে বিশ্বনাথ ঘোষের হেড ঝাঁপিয়ে পড়ে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন তিনি। এরপর রবসনের কর্নার থেকে বক্সের বাইরে বল পেয়ে ফের্নান্দেসের আচমকা শটও আটকান সোহেল।

দ্বিতীয়ার্ধের ষষ্ঠ মিনিটে কেরভেন্স ফিলস বেলফোর্টের পাস ধরে চিজোবার জোরালো কোনাকুনি শট যায় পোস্টের বাইরে। এরপর থেকে দুই দলের আক্রমণের ধার কমতে থাকে।

৮৫তম মিনিটে রায়হান হাসানের লম্বা থ্রো ইনে চিজোবার হেড বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে কোনোমতে কর্নারের বিনিময়ে ফেরান জিকো। বাকিটা সময়ে কেউ পাইনি জয়সূচক গোলের দেখা।

২১ গোল নিয়ে কিংসের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবিনিয়ো সর্বোচ্চ গোলদাতা। তালিকায় সেরা দশে নেই বাংলাদেশের কেউ। ১৯ গোল নিয়ে শেখ জামালের ওমর জোবে দ্বিতীয়, সাইফ স্পোর্টিংয়ের জন ওকোলি ১৮ গোল নিয়ে তালিকায় তৃতীয়।

দেশিদের মধ্যে গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে আবাহনীর জুয়েল রানা; ১০ গোল তার। এরপর আছেন চট্টগ্রাম আবাহনীর রাকিব হোসেন (৮টি)।
২০১৮-১৯ মৌসুমে প্রথম লিগ শিরোপা জয়ের পথে ২৪ ম্যাচে ২০ জয়, তিন ড্র ও এক হারে ৬৩ পয়েন্ট পেয়েছিল কিংস।

২৪ ম্যাচে ৫২ পয়েন্ট নিয়ে লিগে দ্বিতীয় হয়েছে শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব। ৪৭ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় আবাহনী। ৪৪ পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে চতুর্থ সাইফ স্পোর্টিং, পঞ্চম চট্টগ্রাম আবাহনী। ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে থেকে লিগ শেষ করেছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।

Facebook Comments Box

Posted ৪:০০ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১