শুক্রবার ৬ই আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ২২শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

লড়াই করে হারলো জিম্বাবুয়ে, সিরিজ বাংলাদেশের

  |   মঙ্গলবার, ০৩ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

লড়াই করে হারলো জিম্বাবুয়ে, সিরিজ বাংলাদেশের

রেকর্ড রান করেও বাজে বোলিংয়ের কারণে নিশ্চিত জয়ের ম্যাচে পরাজয়ের দুশ্চিন্তায় পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। শেষ দিকে ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে যাওয়া ডোনাল্ড ত্রিপোনো শেষ বলে ছক্কা হাঁকাতে না পারায় ৪ রানের জয় পায় বাংলাদেশ।
তামিম ইকবালের রেকর্ড গড়া ম্যাচে জিতে ওয়ানডে সিরিজে নিজেদের করে নিয়েছে টাইগাররা। বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ ১৫৮ রানের ইনিংস খেলেছেন তামিম। দেশসেরা এ ওপেনারের রেকর্ডময় গড়া ম্যাচে ৪ রানে জয়ে এক ম্যাচ হাতে রেখে ২-০ ব্যবধানে সিরিজ নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ।
জয়ের জন্য শেষ দিকে ৩০ বলে জিম্বাবুয়ের প্রয়োজন ছিল ৭৭ রান। রোনাল্ডো ত্রিপানো ও টিনোটেন্ডা মুতুমবাদজি রীতিমতো তাণ্ডব চালান। ৪৬তম ওভারে আল -আমিনের করা ওভারে দুই চার ও এক ছক্কায় ১৬ রান আদায় করে নেন তারা। এরপর শফিউলের করা ৪৭তম ওভারে দুই ছক্কা আর একটি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ২০ রান আদায় করে নেন ত্রিপানো।
শেষ ১৮ বলে প্রয়োজন ছিল ৪১ রান। আগের ওভারে ১৬ রান খরচ করা আলআমিন, রান খরচে সতর্ক হওয়ায় ৪৮তম ওভারে ৭ রানের বেশি নিতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। মূলত এই ওভারেই তাদের জয়ের স্বপ্ন ফিকে হয়ে যায়।
শেষ দুই ওভারে জিম্বাবুয়ের প্রয়োজন ছিল ৩৪ রান। শফিউলের করা ৪৯তম ওভারে ১৪ রান আদায় করে নেন জিম্বাবুয়ের ব্যাটসম্যানরা। শেষ ওভারে জয়ের জন্য জিম্বাবুয়ের প্রয়োজন ছিল ২০ রান। প্রথম বলে সিঙ্গেল আর দ্বিতীয় বলে ওয়াইড দেন আলআমিন। পরের বলে ব্যাটিং তাণ্ড চালানো মুতুমবাদজির উইকেট তুলে নেন আল আমিন। ওভারে তৃতীয় ও চতুর্থ বলে ছক্কা হাঁকান ত্রিপানো। শেষ দুই বলে জয়ে জন্য জিম্বাবুয়ের প্রয়োজন ছিল মাত্র ৬ রান। পঞ্চম বলে ডট দেন আলআমিন। শেষ বলে জিম্বাবুয়ের প্রয়োজন ছিল ৬ রান। স্ট্রাইকে সেট ব্যাটসম্যান তিরিপানো। কিন্তু ওই বলটি আর আকাশে তুলতে পারলেন না তিনি। এক রানেই সন্তুষ্ট থাকতে হলো জিম্বাবুয়েকে।
টাইগারদের দেয়া ৩২৩ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে শুরুতে বিপাকে পড়ে উইলিয়ামসন বাহিনী। দলীয় একশ’ রান করতেই হারায় ৪ উইকেট। এরপর সিকান্দার রাজা-মেদহেভের দলকে এগিয়ে নেন। দু’জনে গড়ে তুলেন ৮১ রানের পার্টনাশিপ। মেদহেভেরে ফিরলেও বাংলাদেশকে চাপে রাখে অলরাউন্ডার সিকান্দার রাজারা। তাকে তুলে নেন অধিনায়ক মাশরাফী।
আউট হওয়ার আগে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৬ রান করেন সিকান্দার রাজা। ওয়েলসি মেদহেভেরে করেন ৫২ রান। এর আগে ওপেনার কামুনহুকামে ৫১ রান করে তাইজুলের বলে বোল্ড হয়েছেন। চারে নামা অধিনায়ক শেন উইলিয়ামস ১৪ রানে ফিরেছেন। রেগিস চাকাভাকে শুরুতে তুলে নেন শফিউল ইসলাম। মিরাজের অসাধারণ ফিল্ডিংয়ে রানআউট হয়ে ১১ রানে সাজঘরে ফেরেন টেইলর। শেষ দিকে থ্রিপানো ও মুতাম্বজি অসাধারণ ইনিংসেও হার এড়াতে পারেনি শন উইলিয়ামস বাহিনী।
এর আগে, বাংলাদেশ দলের হয়ে ১৩৬ বলে ২০ চার ও তিন ছক্কায় গড়া ১৫৮ রান করেন তামিম ইকবাল। এছাড়া মুশফিকুর রহিম খেলেন ৫৫ রানের ইনিংস। মাহমুদুল্লাহর ব্যাট থেকে ৪১ এবং মোহাম্মদ মিঠুনের ব্যাট থেকে আসে ৩২ রান।

Facebook Comments Box


Posted ৯:১৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৩ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১