• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    শুটিংয়ের চাপে হারাতে বসেছে দুব্রোভনিক শহরের সৌন্দর্য

    অনলাইন ডেস্ক | ০৫ এপ্রিল ২০১৭ | ৬:১০ অপরাহ্ণ

    শুটিংয়ের চাপে হারাতে বসেছে দুব্রোভনিক শহরের সৌন্দর্য

    একের পর এক চলচ্চিত্র শুটিংয়ের কারণে হুমকির মুখে পড়েছে ক্রোয়েশিয়ার প্রাচীন শহর দুব্রোভনিক। ইতিহাসবিদরা বলছেন জরুরি ভিত্তিতে শুটিং বন্ধ না করলে ধ্বংস হয়ে যেতে পারে শহরটির প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন।


    দেয়াল ঘেরা শহর দুব্রোভনিক, তেরশো শতক থেকে ভূমধ্যসাগরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল। ‘এড্রিয়াটিকের মুক্তো’ হিসেবে খ্যাত এ শহরের সৌন্দর্য দেখতে ছুটে আসেন অনেকেই।


    সাম্প্রতিক সময়ে দুব্রোভনিক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে হলিউডের জন্য। ‘গেইম অফ থ্রোন্স’, ‘স্টার ওয়ারস’ আর ‘রবিন হুড’এর মতো জনপ্রিয় সিনেমার শুটিং হয়েছে শহরটিতে। তবে বিষয়টি ভাল চোখে দেখছেন না অনেকেই।

    দুব্রোভনিকের বাসিন্দা ওয়েড গডরাড জানান, এটা সত্যি যে শুটিংয়ের ফলে শহরের প্রচার বাড়ছে। কলাকুশলীদের কারণে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের বেচাকেনাও ভাল। কিন্তু আরেকভাবে চিন্তা করলে শুটিংয়ের কারণে রাস্তাঘাট বন্ধ থাকায় লোকজনকে অনেক সমস্যার মুখে পড়তে হচ্ছে।

    সবকিছু ভালোই চলছিল, বিপত্তি বাঁধে ‘রবিন হুড’এর সেটে আগুন ব্যবহারের পর। ইতিহাসবিদেরা মনে করছেন, এভাবে ব্যবহারের ফলে ইউনেস্কো স্বীকৃত ঐতিহাসিক স্থানটি ধ্বংসের মুখে পড়তে পারে।

    ইতিহাসবিদ জভংকো মাকোভিক জানান, আমরা শুটিংয়ের বিরুদ্ধে নই। কিন্তু বেশিরভাগ সময়ই দেখা যাচ্ছে সিনেমাতে কোন কাল্পনিক শহর হয়েই থেকে যায় দুব্রোভনিক। কেউ জানতেও পারে না এর নাম। পাশাপাশি শুটিংয়ের জন্য ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে শহরের সম্পদ। আমরা অবশ্যই এর বিরোধিতা করব।

    ঐতিহাসিক নিদর্শন হিসেবে দুব্রোভনিক শহরকে সংরক্ষণের দায়িত্ব পালন করছে ইউনেস্কো। কিন্তু লাগাতার শুটিং আর পর্যটকদের বাড়তি চাপে শহরের সৌন্দর্য নষ্ট হচ্ছে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4669