বুধবার, মে ১৮, ২০২২

সততা লালন করে যে হৃদয়

ডেস্ক রিপোর্ট   |   বুধবার, ১৮ মে ২০২২ | প্রিন্ট  

সততা লালন করে যে হৃদয়

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার গড়াই নদীর পাশে ছোট্ট একটি গ্রাম সারুটিয়া। যেখানে এখনও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। এ গ্রামের সারল্য ও কলুষতাহীন প্রকৃতির মাঝেই বেড়ে উঠেছেন শফিকুল ইসলাম। সম্প্রতি কর্মনিষ্ঠা ও সততার জন্য আলোচনায় আসেন রেলের এই ভ্রাম্যমাণ টিকিট পরিদর্শক (টিটিই)।
নিভৃত পল্লির হতদরিদ্র পরিবারে জন্ম নিয়ে অভাব-অনটনকে নিত্যসঙ্গী করে বেড়ে ওঠা এই মানুষটি আপাদমস্তক সৎ। কিন্তু তাঁর এই সততা এক দিনে তৈরি হয়নি। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়ার সময় গ্রামে তাঁর এক শিক্ষক ছিলেন রবিঠাকুর। তিনি পড়ানোর সময় শফিকুলকে সৎ থাকার দীক্ষা দেন। হতদরিদ্র পরিবারের নিরক্ষর বাবা রজব আলী বিশ্বাস ও মা শুকুরুন নেছা তাঁকে বলতেন, ‘অন্যায়কে প্রশ্রয় দিবি না, সৎ থাকবি, এতেই তুই ভালো থাকবি।’
শিক্ষক ও বাবা-মায়ের এই সৎ থাকার মন্ত্র হৃদয়ে ধারণ করেছেন তিনি। কখনও অন্যায়কে প্রশ্রয় দেননি। কখনও কোনো ক্ষেত্রে অসৎ পথ অবলম্বন করেননি।

প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক বা বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়ার ক্ষেত্রে তিনি সব সময় প্রথম স্থানেই থেকেছেন। সারুটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যেমন সব শ্রেণিতে প্রথম হয়েছেন, তেমনি বনগ্রাম মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে সাতটি বিষয়ে লেটার নম্বর পেয়ে প্রথম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হন। দারিদ্র্যের কারণে এসএসসি পাস করার পর তার পড়ালেখা বন্ধ হয়ে যায়।


Posted ৫:৪৫ অপরাহ্ণ | বুধবার, ১৮ মে ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]