মঙ্গলবার, জুলাই ২৬, ২০২২

সরেজমিন তদন্ত ছাড়াই প্রতিবেদন দাখিলের অভিযোগ এসআইয়ের বিরুদ্ধে

আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি:   |   মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই ২০২২ | প্রিন্ট  

সরেজমিন তদন্ত ছাড়াই প্রতিবেদন দাখিলের অভিযোগ এসআইয়ের বিরুদ্ধে

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় কোনো প্রকার ঘটনা ছাড়াই মিথ্যে গল্প রচনা করে একটি নিরীহ পরিবারের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে। এদিকে ওই মামলাটি সরেজমিন তদন্ত ছাড়াই আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করার অভিযোগ আলফাডাঙ্গা থানার উপ-পরির্দশক (এসআই) সুমন বাসাকের বিরুদ্ধে।

সোমবার (২৫ জুলাই) দুপুরে গণমাধ্যম কর্মীদের নিকট এমনটাই দাবী করেছেন হয়রানীর শিকার হওয়ার ভুক্তভোগী ওই পরিবারের সদস্যরা। এসময় ওই এলাকার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজনও এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে সঠিক তদন্ত করার দাবী জানান।


এ অভিযোগটি উঠেছে আলফাডাঙ্গা উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের চান্দড়া গ্রামের বাদশা কাজীর পরিবারের বিরুদ্ধে।

সরেজমিন ও আদালতের মামলা সূত্রে জানা গেছে, ওই একই এলাকার বাসিন্দা আহম্মদ কাজী ও দিনো কাজীর পরিবারের সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে শত্রুতা পোষণ করে আসছে বাদশা কাজীর পরিবার। এরই অংশ হিসেবে চলতি বছরের ২৪ মে ফরিদপুর বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৯নং আমলী আদালতে প্রতিপক্ষ বাদশা কাজী বাদী হয়ে ভয়ভীতি, মারপিট, স্বর্ণের চেইন, নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনতাইয়ের অভিযোগ এনে আহম্মদ কাজী ও দিনো কাজীর পরিবারের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালত মামলাটির তদন্ত ভার দেন আলফাডাঙ্গা থানা পুলিশকে। থানা পুলিশের এসআই সুমন বসাক মামলার তদন্তভার গ্রহণ করে ওই মামলার তদন্ত রিপোর্ট আদালতে পাঠায়।


ওই মামলার আর্জিতে ঘটনার যে বিবরণ দেয়া হয়েছে, প্রকৃতপক্ষে এমন কোনো ঘটনাই ঘটেনি। পুলিশ ঘটনাস্থলে না গিয়েই আদালতে তদন্ত রিপোর্ট পাঠিয়েছেন বলে দাবি ভুক্তভোগীদের। তারা সঠিক তদন্তের মাধ্যমে এমন হয়রানির বিচারের দাবি জানান।

সংশ্লিষ্ট এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহাদাৎ সরদার বলেন, ‘মারামারি কিংবা ছিনতাইয়ের কোন ঘটনাই ঘটেনি। অকারণেই বাদশা কাজী আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় তার পরিবারের স্ত্রী, ছেলে-মেয়ে ও জামাতাকে স্বাক্ষী করেছেন। তার ছেলে-মেয়ে ও জামাতা তো এলাকায়-ই থাকে না। তারা থাকেন ঢাকা।’

ওই এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক শামচুদ্দোহা, সাবেক পুলিশ সদস্য মতিয়ার রহমান, ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি শাহাবুল আলম তপুসহ অনেকে অভিযোগ করে বলেন, ‘আমাদের এলাকায় এজাতীয় কোন ঘটনাই ঘটেনি। বাদশা কাজী তার মনগড়া ও কাল্পনিক কাহিনি সাজিয়ে আদালতে মামলা করেছেন। আলফাডাঙ্গা থানার এসআই সুমন বাসাক এলাকায় সরেজমিনে তদন্তে না এসেই মিথ্যা মামলার পক্ষে আদালতে প্রতিবেদন দিয়েছেন।’

এবিষয়ে অভিযুক্ত বাদশা কাজীর বক্তব্য জানতে সরেজমিনে তার বাড়িতে গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে বাড়িতে থাকা তার স্ত্রী সালকা বেগমের সাথে কথা হয়। এসময় তিনি বলেন, ‘আমরা সঠিক ঘটনা নিয়েই মামলা করেছি।’

তবে এ অভিযোগের বিষয়ে আলফাডাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুমন বসাক বলেন, ‘বাদীর আনিত স্বাক্ষীদেরকে জিজ্ঞেসাবাদ করি। ঘটনাটি আমি প্রকাশ্যে ও গোপনে তদন্ত করে প্রাথমিকভাবে সত্য প্রমাণিত হওয়ায় আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেছি।’

আলফাডাঙ্গা থানা অফিসার ইনচার্জ মো. ওয়াহিদুজ্জামান (ওসি) বলেন, ‘দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন তৈরী করে আদালতে প্রেরণ করেছেন। তবে প্রতিবেদনটি আসামীদের পছন্দ না হলে তারা আদালতের শরণাপন্ন হতে পারেন।’

Posted ৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]