সোমবার, মার্চ ৯, ২০২০

সাধারণ শিক্ষকদের হস্তক্ষেপে জিম্মিদশা থেকে মুক্ত হলেন বশেমুরবিপ্রবি চলতি ভিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   সোমবার, ০৯ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

সাধারণ শিক্ষকদের হস্তক্ষেপে জিম্মিদশা থেকে মুক্ত হলেন বশেমুরবিপ্রবি চলতি ভিসি

দীর্ঘ ৪ ঘন্টার বেশি সময় ধরে অবরুদ্ধ থাকার পর সাধারণ শিক্ষকদের হস্তক্ষেপে অবশেষে জিম্মিদশা থেকে মুক্ত হলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) চলতি ভিসি প্রফেসর ড. মোঃ শহজাহান।
সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে জিম্মিদশা থেকে মুক্ত হোন চলতি ভিসি।
এর আগে দুপুর একটার পর উপাচার্যসহ শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী একাডেমিক ভবনের ৫০১নং রুমে মিটিংয়ে বসলে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা তাদেরকে অবরুদ্ধ করে রুমের সামনে অবস্থান করে। এসময় বিষয়টি নিয়ে শিক্ষক ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে বাক বিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। পরে সেখানে বসে পড়ে বিক্ষোভ শুরু করেন তারা। এর আগে চলতি ভিসি প্রফেসর ড. মোঃ শহজাহান শিক্ষার্থীদের সাথে ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলন নিয়ে কথা বলার এক পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কর্মচারী আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের জামাত-শিবির বলে আক্ষায়িত করলে শিক্ষক ও কর্মচারিদের উপর বিক্ষুব্ধ হয় সাধারণ শিক্ষার্থীরা। কার্যত দুপুর ১টার দিকে ৫০১নং রুমে উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শহজাহানসহ প্রায় ৪০ জন শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন।
সাধারণ শিক্ষার্থীদের এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে তারা বলেন,সাধারণ শিক্ষার্থীদের কথায় কথায় জামাত শিবির বলে আক্ষায়িত করা, বর্তমান প্রসাশনের হাতিয়ার হয়ে দাড়িয়েছে।এর তীব্র নিন্দা জানান তারা।
এসময় রুমে বাহিরে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের নানান স্লোগান দিতে দেখা গেছে। এদিকে, বেলা সাড়ে ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারন শিক্ষকরা ৩১ মার্চের মধ্যে ইউজিসি ইতিহাস বিভাগের অনুমোদন না দিলে শিক্ষার্থীদের সাথে যুগপৎ আন্দোলনে যাবে মর্মে লিখিত অঙ্গিকার করলে শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নেন এবং জিম্মিদশা থেকে মুক্ত হন উপচার্যসহ শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।
উল্লেখ্য, বর্তমান চলমান পরিস্থিতিতে সেশনজটের আশংকায় ভুগছে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা।


Posted ১০:৪৯ পিএম | সোমবার, ০৯ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement