• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    সালমানের শাহের মৃত্যুর ২১ বছর পর যা বলল তার স্ত্রী (ভিডিও)

    অনলাইন ডেস্ক | ১৮ আগস্ট ২০১৭ | ১:৫১ পূর্বাহ্ণ

    সালমানের শাহের মৃত্যুর ২১ বছর পর যা বলল তার স্ত্রী (ভিডিও)

    সালমান শাহর মৃত্যু নিয়ে যখন রুবী নামের এক মহিলা ইউটিউবে একটি ভিডিও ছাড়েন তখন থেকে আবারও নতুনভাবে সামনে আসে সালমান শাহের মৃত্যুর বিষয়টি। রুবী তার ভিডিও বার্তায় বলেন, সালমান শাহ আত্মহত্যা করেনি, তাকে হত্যা করা হয়েছে। এরপরই শুরু হয় নতুন বিতর্ক। লন্ডনে সালমান শাহের মা নীলা চৌধুরী এক সাংবাদিক সম্মেলন করে রুবীকে ফিরিয়ে এনে সালমান শাহের মৃত্যুর রহস্য আবার নতুনভাবে তদন্ত করতে বাংলাদেশ পুলিশকে তিনি অনুরোধ জানান। তবে সালমান শাহের মৃত্যুতে যাকে সবচেয়ে বেশি দোষারোপ করা হয়েছিল সেই নারী সালমান শাহর স্ত্রী সামিরা দীর্ঘ ২১ বছর পর মুখ খুলেছেন।


    সামিরা বলেন, আমি পুরো বাংলাদেশকে চ্যালেঞ্জ দিয়ে বলতে পারি সালমান শাহকে হত্যা করা হয়নি। সালমান শাহ আত্মহত্যা করেছিল। বৃহস্পতিবার একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি একথা বলেন।

    ajkerograbani.com

    তিনি বলেন, রুবী সুলতানা ও তার ছেলেকে বাংলাদেশের মাটিতে আনা হোক এবং রুবী চৌধুরীকে ৮নম্বর আসামী থেকে সরানোর জন্য নীলা চৌধুরী(সালমান শাহর মা) এটা ষড়যন্ত্র করেছে।

    সামিরা বলেন, সালমান শাহর আত্মহত্যা করার অনেকগুলো কারণ ছিল। কারণ তখন ইমনের (সালমান শাহ) মা নির্বাচন করতে চেয়েছিল এবং প্রথম দফায় নির্বাচন করে প্রায় ২’শ থেকে ৩’শ ভোটও পেয়েছিল। এর তিনি আবার দ্বিতীয়বার নির্বাচন করতে চাওয়ায় ইমন (সালমান শাহ) তাকে নিষেধ করে। এবং ইমন তার মাকে বলে নির্বাচন করলে মানুষ তোমাকে ভোট দিবে না, মানুষ তোমাকে চিনে না আমাকেই চিনে। সুতরাং আমার সম্মান নষ্ট কর না।

    তিনি আরো বলেন, এরপর শাবনুরকে নিয়েও এক ইস্যু ছিল। তখন শাবনুরকে নিয়ে পত্র-পত্রিকায় অনেক লেখা-লেখি হত।

    সামিরা বলেন, আমার বিয়ের আগে ইমন (সালমান শাহ) চারবার আত্মহত্যা করতে চেয়েছিল।

    নীলা চৌধুরীর সাথে কোনো দ্বন্দ্ব ছিল কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে সামিরা বলেন, অবশ্যই ইমনের মায়ের সাথে আমার দ্বন্দ্ব ছিল। ইমন যে আমাকে ভালবাসত সে কথা তিনি কিছুতেই মানতে পারেননি। কিন্তু আমি আশ্চর্য হয়েছিলাম লন্ডনে নীলা চৌধুরীর বক্তব্য শুনে যে তিনি বলেছিলেন যে আমার(সামিরা) সাথে তার কোনো দ্বন্দ্বই ছিল না।

    এক সময় সামিরা সালমান শাহকে হত্যা করার বিষয়টি প্রমাণ করার জন্য সাংবাদিকদের কাছে দাবি জানান।

    প্রসঙ্গত, মাত্র চার বছরে ২৭টি সিনেমা করে নব্বইয়ের দশকে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে আলোড়ন তুলেছিলেন নায়ক সালমান শাহ। এসব সিনেমার বেশিরভাগই ছিল আলোচিত এবং ব্যবসাসফল। তিনি এমনই এক তারকা যিনি মৃত্যুর ২১ বছর পরও রয়েছেন আলোচনায়।

    ১৯৯৬ সালের ৬ই সেপ্টেম্বর দিনটি ছিল শুক্রবার। সালমান শাহর মা নীলা চৌধুরীকে টেলিফোন করে বলা হলো তার ছেলের বাসায় যেতে। টেলিফোন পেয়ে নীলা চৌধুরী দ্রুত ছেলে সালমান শাহর বাসায় রওনা হন। তবে সালমানের ইস্কাটনের বাসায় গিয়ে ছেলের মৃতদেহ দেখতে পান নীলা চৌধুরী। ১৯৯৬ সালের ৬ই সেপ্টেম্বর ১১/বি নিউ ইস্কাটন রোডের ইস্কাটন প্লাজার বাসার নিজ কক্ষে তাকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। তবে তার এই মৃত্যু ‘আত্মহত্যা নাকি হত্যা’ তা নিয়ে এখনও প্রশ্ন রয়েছে ভক্তদের মাঝে। আমাদের সময়.কম

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755