সোমবার, এপ্রিল ১৯, ২০২১

সিলেটে অনুপ্রবেশকারী ভারতীয় খাসিয়াকে অপহরণের পর উদ্ধার

  |   সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১ | প্রিন্ট  

সিলেটে অনুপ্রবেশকারী ভারতীয় খাসিয়াকে অপহরণের পর উদ্ধার

সিলেটের জৈন্তাপুরে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে অবৈধভাবে আসা এক চোরাকারবারিকে অপরহরণ করেছিল চোরাকারবারিরা। বিষয়টি জানার পর অপহরণের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই পুলিশ ও বিজিবি অভিযান চালিয়ে ওই ভারতীয় নাগরকিকে উদ্ধার করে।
অবৈধ অনুপ্রবেশের কারণে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর আদালতের মাধ্যমে গত শনিবার কারাগারে পাঠানো হয়েছে। জৈন্তাপুরের ঘিলাতৈল সীমান্ত এলাকায় শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় ভারতের জৈন্তিয়া হিলসের জোয়াই জেলার আমলারেম গ্রামের চোরাকারবারি অড্রিল মাউরা ওরফে বাটু চোরাকারবার করার জন্য জৈন্তাপুর উপজেলার ১২৮৭নং ঘিলাতৈল সীমান্ত দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে। এ সময় বাউরভাগ মল্লিফৌদ গ্রামের চোরাকারবারি তাজউদ্দিন এবং বাতেন মিয়াসহ কয়েকজনের সঙ্গে লেনদেন নিয়ে কথা কাটাকাটি হয় অড্রিলের। চোরাকারবারিরা তাকে  অপহরণ করে অজ্ঞাতস্থানে আটকে রাখে। ভারতীয় নাগরিক অপহরণের খবর পেয়ে জৈন্তাপুর থানার এসআই পার্থ রঞ্জন চক্রবর্তী ও ১৯ বিজিবির জৈন্তাপুর রাজবাড়ী ক্যাম্পের কমান্ডার হাবিলদার মো. জুয়েল আকন্দের নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা উদ্ধার অভিযান চালায়।

রাতে তারা উপজেলার মল্লিফৌদ গ্রাম থেকে উদ্ধার করে ক্যাম্পে নিয়ে আসে। তবে অপরহরণকারী চোরাকারবারিদের আটক করা সম্ভব হয়নি। স্থানীয়রা জানিয়েছেন- চোরাকারবার লেনদেনের জন্য হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে যোগাযোগ করে ভারতীয় খাসিয়া অবৈধভাবে জৈন্তাপুর উপজেলার ১২৮৭নং পিলার এলাকা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। পরে চেরাকারবারিদের সঙ্গে তার কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে তাকে অপহরণ করে উপজেলার মল্লিফৌদ গ্রামে নিয়ে যায়।
এদিকে, এ ঘটনায় রাজবাড়ী ক্যাম্পের কমান্ডার হাবিলদার মো. জুয়েল আকন্দ বাদী হয়ে পৃথক পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করেছেন। জৈন্তাপুর উপজেলার স্থানীয় বাসিন্দা নুর উদ্দিন, ইব্রাহিম আলী, হানিফ আলী, রুস্তম মিয়া জানান, ১৯ বিজবির আওতাভুক্ত এলাকার ঘিলাতৈল, টিপরাখলা, কমলাবাড়ী, ফুলবাড়ী, গোয়বাড়ী এবং ১৯ বিজিবির লালাখালের আওতায় প্রতিদিন সংশ্লিষ্ট বাহিনীর সদস্যদের সামনেই চোরাকারবারিরা বিনা বাধায় ভারতীয় বিড়ি-সিগারেট, মদ-মাদক, এবং গরু-মহিষ নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। রহস্যজনক কারণে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা গ্রহণ করে না। ফলে সীমান্তের চোরাকারবারিরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। উপজেলার সেরা  চোরাকারবারি রুট হিসাবে লালাখাল চিহ্নিত হয়ে উঠেছে। জৈন্তাপুর থানার ওসি গোলাম দস্তগীর আহমদ জানান, বিজিবির হাবিলদার মো. জুয়েল আকন্দ বাদী হয়ে ভারতীয় নাগরিক অন্ড্রিল মাউরা ওরফে বাটু অবৈধ অনুপ্রবেশ এবং তাকে অপহৃত হওয়ার ঘটনায় এজাহার দাখিল করে। এজাহারগুলো মামলা হিসাবে রেকর্ড করে অন্ড্রিল মাউরা ওরফে বাটু আদালতের মাধ্যমে হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।


Posted ৮:৩৩ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১