বৃহস্পতিবার, জুন ২৩, ২০২২

সিলেটে ত্রাণে সমন্বয়হীনতা, উত্তরাঞ্চলে নেই নজর

ডেস্ক রিপোর্ট   |   বৃহস্পতিবার, ২৩ জুন ২০২২ | প্রিন্ট  

সিলেটে ত্রাণে সমন্বয়হীনতা, উত্তরাঞ্চলে নেই নজর

সিলেট বিভাগের বন্যাকবলিত চার জেলায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সংখ্যা অন্তত ৫০ লাখ। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের হিসাবে এ চার জেলার জন্য এখন পর্যন্ত বরাদ্দ হয়েছে ৩ কোটি ৩১ লাখ টাকা, ৩ হাজার ২০ টন চাল ও ৫৬ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার। ত্রাণের এই তথ্য পর্যালোচনা করে দেখা যায়, বন্যাকবলিত ৫০ লাখ মানুষের বিপরীতে জনপ্রতি বরাদ্দ দাঁড়ায় ৬ টাকা ৬২ পয়সা ও ৬০৪ গ্রাম চাল।

তবে সরকারি এ বরাদ্দের বাইরেও অনেক ব্যক্তি ও সংগঠন সিলেট অঞ্চলের বন্যাদুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। এই ত্রাণ বিতরণে নেই সমন্বয়। অঞ্চলভিত্তিক বানভাসি মানুষের তালিকা হয়নি এখনও। যে যাঁর মতো ত্রাণ বিলিয়ে যাচ্ছেন। কেউ ত্রাণ পাচ্ছেন একাধিকবার, আবার কারও হাতে একবারের জন্যও ওঠেনি খাদ্য সহায়তার প্যাকেট।


স্থানীয়রা বলছেন, বানভাসি মানুষের জন্য ত্রাণ নিয়ে অনেকেই এগিয়ে আসছেন। কেন্দ্রীয়ভাবে সেগুলো সংগ্রহ করে বিতরণের ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করাটাই এখন জরুরি।
সুনামগঞ্জের বেশ কয়েকটি গ্রাম ঘুরে দেখা যায়, এখনও পানির নিচে শত শত ঘরবাড়ি। আশ্রয়কেন্দ্রে ঠাঁই নিয়েছেন দুর্গত মানুষ। প্রত্যন্ত গ্রামে যাঁরা অবস্থান করছেন, তাঁদের অনেকের কাছে এখনও পৌঁছেনি ত্রাণ। শহর ও বাজারের কাছাকাছি এলাকার আশ্রয়কেন্দ্রে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে ত্রাণ গেলেও দূর-দূরান্তের লোকজন রয়েছে বেশি কষ্টে। অনেক এলাকায় যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন থাকায় ত্রাণবাহী যান এসব এলাকায় পৌঁছাতে পারছে না। ব্যক্তিগত, স্বেচ্ছাসেবী অধিকাংশ সংগঠন সড়কের কাছাকাছি এলাকায় দুর্গত লোকজনকে ত্রাণ বিতরণ করে চলে যাচ্ছেন।


Posted ৯:৩৯ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৩ জুন ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]