সোমবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সেনবাগ মন্দীরের সম্পতি ব্যাক্তি মালিকানা দাবী: প্রতিবাদে সভা অনুষ্ঠিত

  |   বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০২০ | প্রিন্ট  

সেনবাগ মন্দীরের সম্পতি ব্যাক্তি মালিকানা দাবী: প্রতিবাদে সভা অনুষ্ঠিত

নোয়াখালীর সেনবাগে উপজেলার ছমির মুন্সির হাট বাজারের সার্বজনীন শ্রীশ্রী আনন্দময়ী রক্ষাকালী মন্দীরের সম্পতি ব্যাক্তি মালিকানা দাবী করে মন্দীরের প্রবেশ গেইটে তালা দেওয়ার ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার রাতে মন্দীরে প্রতিবাদ সভা করেছে মন্দীর কমিটি ও এলাকার সর্বস্তরের সনাতন ধর্মলিম্বী হিন্দু সমাজ।
মঙ্গলবার রাতে মন্দীর কমিটির সভাপতি ডাক্তার অসিম চন্দ্র দের সভাপত্বি ও সেক্রেটারী দুলাল চন্দ্র দাসের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন-সেনবাগ উপজেলা পুজা উদযাপন কমিটি সভাপতি দিলীপ চন্দ্র দাস। বিশেষ অতিথি ছিলেন-সেনবাগ উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ ঐক্য পরিষদের সভাপতি মাষ্টার আশুতোষ ভৌমিক, সেনবাগ উপজেলা পুজা উদযাপন কমিটির সেক্রেটারী উত্তম কুমার সাহা, হিন্দু -বৌদ্ধ ঐক্য পরিষদের সেক্রেটারী শ্যামল কর্মকার,্এ্যাডভোকেট শিমুল কংশ বনিক,মন্দীরের কোষাধক্ষ্য সুমন, রাখাল চন্দ্র চর্মকার, শ্যামল চন্দ্র নন্দী,শ্যামল চন্দ্র কুরী,অর্জুনচন্দ্র সুত্রধর প্রমুখ।
বক্তারা বলেন-একটি কুচক্রী মহল প্রচীনতম মন্দীরটির সম্পত্তি নিজদের দাবী করে এখানকার শাস্তিপূর্ন পরিবেশকে অস্থিশিল করার চেষ্টা করছে। তারা সেনবাগ থানা প্রশসনকে ধন্যবাদ জানান, তারা দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে চারজনকে আটক করে কারাগারে প্রেরণ করার জন্য্
উল্লেখ ঃ১৪/২/১৯৭০ সালে তৎকালীন জমিদার ভঙ্কিম চন্দ্র দাস ও হেম চন্দ্র দাস ছমিম মুন্সির হাট সার্বজনীন শ্রীশ্রী আনন্দময়ী রক্ষাকালী মন্দীরের নামে সম্পত্তি দান করেন। কিন্তু সম্প্রতি বিজন চন্দ্র দাস ও নামের এক ব্যাক্তি মন্দীরের সম্পত্তি তাদেরদাবী করে। গত বৃহস্পতিবার পিংকু নামের সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে মন্দীরের পধান গেইটে তালা ঝুলিয়ে দেয়।পরে খবর পেয়ে সেনবাগ থানা পুলিশ এসে তালা খুলে দেয় ও ৪জনকে আটক করে কারাগারে পাঠায়।

Facebook Comments Box


Posted ৬:০৫ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০