বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৩, ২০২০

স্ত্রীকে হত্যা করে থানায় এসে দায় স্বীকার স্বামীর!

  |   বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০ | প্রিন্ট  

স্ত্রীকে হত্যা করে থানায় এসে দায় স্বীকার স্বামীর!

রাজধানীর হাজারীবাগে স্ত্রী রোকসানা আক্তারকে হত্যার পরপরই নিজেই থানায় আত্মসমর্পণ করে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন স্বামী ইউসুফ রানা। পারিবারিক কলহকে কেন্দ্র করে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে ময়নাকে জেদের বসে লোহার হামাম দিস্তা দিয়ে মাথায় আঘাত করে বসেন স্বামী ইউসুফ। সেই আঘাতেই মাটিতে লুটিয়ে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান স্ত্রী। আজ বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) বিকেলে ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে ময়নার মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করা হয়।
এই দম্পতির ২ বছরের কন্যা শিশু আলিফা। কিছুক্ষণ পর পরই মাকে খুঁজে বেড়াচ্ছে। ছোট্ট এই শিশুটি জানে না তার মা আর পৃথিবীতে নেই। নিষ্ঠুর বাবাই তার মাকে মেরে ফেলেছে! স্বজনরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক কলহ চলছিল। তার জের ধরেই গতকাল বুধবার (২ ডিসেম্বর) রাতে বাসার ভিতরেই লোহার হামাম দিস্তার আঘাতে ময়নার মৃত্যু হলে তার মরদেহ রুমের ভিতরে রেখেই দরজায় তালা মেরে ২ ছেলে মেয়েকে নিয়ে বেরিয়ে যান ইউসুফ।
হাজারীবাগ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজিদুর রহমান সাজিদ বলেন, ঘটনার পর নিহতের স্বামী তার বড় ভাইকে স্ত্রীকে হত্যার ঘটনা বলেছিলো। পরে তার ভাই থানায় এসে ঘটনা জানালে তাকে চাপ প্রয়োগ করা হলে ছোটভাই ইউসুফ নিজেই থানায় হাজির হয়ে আত্মসমর্পন করে। এই ঘটনায় নিহত ময়নার ভাই ফরহাদ বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এদিকে ঘটনার দায় স্বীকার করে স্বামী আজ আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। পরে আদালত তাকে কারাগারে প্রেরণ করেছেন।


Posted ৯:৫১ পিএম | বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement