শনিবার, জুলাই ৩, ২০২১

হারপিক পানে ব্যর্থ হয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা

  |   শনিবার, ০৩ জুলাই ২০২১ | প্রিন্ট  

হারপিক পানে ব্যর্থ হয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে হারপিক পানে চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে শেষ পর্যন্ত ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করছেন খাদিজা খাতুন (২১) নামের এক গৃহবধু। চিকিৎসাধীন খাদিজা হাসপাতাল থেকে পালিয়ে শনিবার সকালে এ ঘটনা ঘটায়। এর আগে ২৯ জুন দুপুরে ভাতের সাথে হারপিক পান করলে তাকে ওই দিনই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
খাদিজা খাতুন পৌরসভার বাটিকামারা এলাকার জনি শেখের স্ত্রী ও এক সন্তানের জননী। তার মাথা বিচ্ছিন্ন হওয়া লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে রেলওয়ে পুলিশ।
খাদিজা খাতুনের পরিবার, পুলিশ ও হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে, ভোর ৫টায় হাসপাতাল থেকে পালিয়েছিলেন তিনি। সকাল ৬টা ৫০ মিনিটে হাসপাতাল ও থানার পিছন গেট সংলগ্ন রেললাইনে মালবাহী ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দেন। তিনি মানসিক রোগে ভুগছিলেন, পাবনা মানসিক হাসপাতালের ব্যবস্থাপত্রে তার চিকিৎসা চলছিল।
হাসপাতালে ভর্তি ও সেখান থেকে পালিয়ে যাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ আকুল উদ্দিন। জনি শেখ বলেন, আমার স্ত্রী মানসিক রোগী। মাঝেই আত্মহত্যার চেষ্টা করতেন। কয়েকদিন আগে হারপিক খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। গতরাতে (শুক্রবার) হাসপাতালে একসাথে ছিলাম। সকালে আমি ওকে (খাদিজা) হাসপাতালে রেখে বাড়ি চলে আসি। পরে মোবাইলে শুনতে পাই মারা গেছে। খাদিজার বাবা সিদ্দিক আলী বলেন, বাড়িতে থেকে পাবনা মানসিক হাসপাতালে মেয়ের চিকিৎসা চলছিল, কিন্তু সে পাগল না। আমার জামাই একজন নেশাখোর। সব সময় ওদের পরিবারে ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকতো। কুমারখালী থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ওই গৃহবধূ মানসিক রোগী ছিলেন।


Posted ১০:৪৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, ০৩ জুলাই ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]