• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    হেরে যাচ্ছে বিজেপি, দিল্লি ফের কেজরিওয়ালের

    ডেস্ক | ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১০:১৫ পূর্বাহ্ণ

    হেরে যাচ্ছে বিজেপি, দিল্লি ফের কেজরিওয়ালের

    ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির বিধানসভা নির্বাচনে হারতে বসেছে নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহর বিজেপি। ভারতের ক্ষমতাসীন এই দলটি এবার দিল্লি দখল করতে না পারলেও খুব ভালো ফল করবে বলে আশা করা হচ্ছিল। কিন্তু বুথফেরত জরিপে যে তথ্য উঠে এসেছে তাতে মোদি-শাহ জুটির আশার ফানুস একেবারে চুপসে গেছে। বিধানসভা নির্বাচনে ৫৩ আসনের জয় নিয়ে হ্যাটট্রিক করছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি (এএপি)। শনিবার নয়াদিল্লির ভোট শেষে বুথ ফেরত জরিপে বিজেপিকে হারিয়ে ফের কেজরিওয়ালের এএপির ক্ষমতায় আসার ইঙ্গিত মিলেছে।


    বুথ ফেরত জরিপে আম আদমি পার্টির এগিয়ে থাকার খবরে দেশটির ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) এমপিদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করেছেন দলটির নেতা অমিত শাহ।


    শনিবার ভোট শেষ হওয়ার পর অন্তত চারটি সংস্থা তাদের বুথ ফেরত জরিপের ফলাফল প্রকাশ করেছে। এনডিটিভির বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে, দিল্লি বিধানসভার ৭০ আসনের ৫৩টিতে জয় পেয়ে ফের মসনদে বসতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন আম আদমি পার্টি। অন্যদিকে, ২০ বছর ধরে দিল্লির মসনদের বাইরে থাকা বিজেপি মাত্র ১৬টি এবং দেশটির প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেস মাত্র একটি আসনে জয় পেতে যাচ্ছে।

    দেশটির প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম টাইমস নাউয়ের বুথ ফেরত জরিপ বলছে, দিল্লির নির্বাচনে ৪৭টি আসনে জয়ী হতে যাচ্ছে আম আদমি পার্টি। বিজেপি ২৩টি আসনে জয় পেতে পারে।

    এবিপি নিউজ-সি ভোটারের বুথ ফেরত সমীক্ষায় আম আদমি পার্টি ৪৯ থেকে ৬৩ আসনে এবং বিজেপি ৫ থেকে ১৯ আসনে জয় পেতে পারে বলে পূর্বাভাষ দেয়া হয়েছে।

    রিপাবলিক টিভি-জন কি বাতের সমীক্ষা বলছে, আম আদমি পার্টি ৪৮ থেকে ৬১টি আসন এবং বিজেপি ৯ থেকে ২১টি আসনে জয় পাবে।

    দিল্লি বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় যেতে হলে কমপক্ষে ৩৬টি আসনে জয় দরকার। ২০১৫ সালের নির্বাচনে আম আদমি পার্টি ৬৭ আসনে জয় নিয়ে ক্ষমতায় আসে। ওই বছর বিধানসভা নির্বাচনে মোট ভোটের ৫৪ দশমিক ৩ শতাংশ ভোট পেয়েছিল আম আদমি পার্টি। বিজেপি পায় ৩২ শতাংশ এবং ৯.৬ শতাংশ ভোট পায় কংগ্রেস।

    প্রসঙ্গত যে, ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে টানা বিক্ষোভের মাঝেই গতকাল শনিবার নয়াদিল্লি বিধানসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনের ফলে এই আইন প্রভাব ফেলবে বলে মনে করা হচ্ছে।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673