• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ২৪ কোটিতে কুমারীত্ব বিক্রি তরুণীর

    অনলাইন ডেস্ক | ২৩ নভেম্বর ২০১৭ | ৪:১২ অপরাহ্ণ

    ২৪ কোটিতে কুমারীত্ব বিক্রি তরুণীর

    পশ্চিমা বিশ্বের অনেক মেয়েই গত কয়েক মাসে ‘কুমারীত্ব’ বিক্রির ঘোষণা দিয়ে আলোচনায় এসেছেন। এবার সেই কাতারে নাম লেখালেন মার্কিন তরুণী গিসেলে। পড়াশুনার পাশাপাশি পার্ট টাইম মডেলিং করা গিসেলে সম্প্রতি দাবি করেছেন যে, আবুধাবির এক ব্যবসায়ীর কাছে ৩০ লাখ ডলারে নিজের কুমারীত্ব বিক্রি করেছেন তিনি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ২৪ কোটি টাকা। আর তিনি এটা করেছেন পড়াশুনার খরচের পাশাপাশি দেশ-বিদেশ ঘুরে বেড়ানোর অর্থ জোগাড় করতে।


    অর্থের পরিমাণ শুনে অনেকে আকাশ থেকে পড়লেও বিশ্বে এমন ভুরি ভুরি ধনকুবের আছেন যারা কোন নারীর কুমারীত্ব কিনে নিতে নিলামে শত কোটি টাকা ‘দর’ হাকাতেও কার্পণ্য করেন না। আর ওই নারী যদি হয় কোন তারকা, অভিনেত্রী বা মডেল, তাহলে তো কথাই নেই; ‘দাম’ ওঠে তরতরিয়ে।


    পড়াশোনার খরচ চালাতেই কুমারীত্ব বিক্রি করছেন বলেও দাবি করেন এই মার্কিন তরুণী। জার্মানির একটি এসকর্ট ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তিনি নিলামে তোলেন তার কুমারীত্ব। পরে আবুধাবির ওই ব্যবসায়ী সবচেয়ে বেশি দাম দিয়ে কিনে নেন। দ্বিতীয় সর্বাধিক মূল্য দিতে চেয়েছিলেন হলিউডের এক অভিনেতা। তার দাম ছিল ২৪ লাখ ডলার আর তৃতীয় সর্বাধিক দাম ১৮ লাখ ডলার দিতে চেয়েছিলেন এক রাশিয়ান রাজনীতিবিদ।

    গিসেলে বলেন, ‘আমি ভাবিনি যে নিলামে এত দাম উঠবে। স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মত ঘটনা। যারা কুমারিত্ব বিক্রি করার বিরোধিতা করেন, তাদের ব্যবহারে আমি অবাক। আমি যদি ভালোবাসার মানুষ ছাড়া অন্য কারও সঙ্গে নিজেকে শেয়ার করতে চাই, সেটা আমার সিদ্ধান্ত। ‘

    ১৯ বছরের ওই মডেল নিজেই একটি ভিডিও আপলোড করেছেন। সেখানেই তিনি ব্যাখ্যা দিয়েছেন যে নিজের স্কুলের পড়াশোনা চালানোর জন্য ও ভবিষ্যতে বিভিন্ন জায়গায় ঘোরার জন্য ওই টাকা তুলেছেন। তিনি আরও বলেছেন, নিজের শরীর নিয়ে তিনি কী করবেন না করবেন সেটা সম্পূর্ণ তার ব্যাপার।

    এর আগে ইউলিয়া নামের ইউক্রেনের এক তরুণী নিজের কুমারীত্ব বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপন দিয়েছিলেন। ১৮ বছরের ওই তরুণী বলেছিলেন, একটি ভালো কাজ করার জন্য তার ১ হাজার ৫০০ পাউন্ড (প্রায় ১ লাখ ৫৭ হাজার টাকা) প্রয়োজন। তা সহজে জোগাড় করতে না পারায় নিজের কুমারীত্ব বিক্রির ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

    ইউলিয়া বলেন, ‘আজ হোক বা কাল, আমাকে কুমারীত্ব বিসর্জন দিতেই হবে। কোনো মদের উৎসবে কুমারীত্ব হারানোর চেয়ে একটি ভালো কাজের উদ্দেশ্যে তা বিক্রি করাই ভালো।’

    এ পর্যন্ত যারা এই কাজ করেছেন তাদের কেউ ঋণ শোধ করতে, কেউ বাবা-মায়ের পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষা করতে, কেউ লেখাপড়ার খরচ জোগাতে নিজের কুমারীত্ব নিলামে তুলেছেন।

    এর আগে ঘোষণা দিয়ে নিজের কুমারীত্ব বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রোমানিয়ার ১৮ বছর বয়সী মডেল আলেজান্দ্রা খেফরেন। ঋণগ্রস্ত মা-বাবার বন্ধকি বাড়ি বাঁচাতে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার খরচ জোগাতে গত বছরের শেষের দিকে নিজের কুমারীত্ব বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। সিনড্রেলা এসকর্টের মাধ্যমে নিজের কুমারীত্ব নিলামে তুলেছিলেন তিনি। সেখানে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হংকংয়ের এক ব্যবসায়ী সর্বোচ্চ দর ২০ লাখ ডলার (প্রায় ১৬ কোটি ১২ লাখ টাকা) হেঁকে আলেজান্দ্রা খেফরেনের কুমারীত্ব কিনে নেন।

    ইনডিপেনডেন্টের খবরে বলা হয়েছে, সিনড্রেলা এসকর্টস নামের জার্মানিভিত্তিক একটি ওয়েবসাইট এই বাণিজ্যের মধ্যস্থতা করে। ওয়েবসাইটটি গত বছর রোমানিয়ার ১৮ বছর বয়সী মডেল আলেকজেন্ড্রা কেফরেনের ‘কুমারীত্ব’ বিক্রির ঘটনার মধ্য দিয়ে আলোচনায় আসে। ওই মডেল হংকংয়ের এক ব্যবসায়ীর কাছে ‘কুমারীত্ব’ বিক্রি করেছিলেন।

    ওয়েবসাইটটির মালিক জার্মানির ডর্টমুন্ডের ২৭ বছরের যুবক জ্যঁ জ্যাকবিলস্কি। ফোর্বসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, এই বেচাকেনায় যে লাভ হয়, তার ২০ শতাংশ তাঁর প্রতিষ্ঠান পায়। একই সঙ্গে তিনি জানান, যে মেয়ে মানসিকভাবে যথেষ্ট পরিপূর্ণ নন, কিংবা মানসিকভাবে সুস্থ নন, তাঁকে এই সুযোগ দেন না।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিয়ে করাই তার নেশা!

    ২১ জুলাই ২০১৭

    কে এই নারী, তার বাবা কে?

    ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673