• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ৫৩০০ বছর আগে বরফ মানবকে কে মারলো?

    অগ্রবাণী ডেস্ক | ০৫ জুন ২০১৭ | ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ

    ৫৩০০ বছর আগে বরফ মানবকে কে মারলো?

    উত্তর ইতালির ওয়েজতালের আল্পস পর্বতের একটি উঁচু জায়গায় প্রায় ৫,৩০০ বছর আগে খুন হয়েছিলেন এই বরফ মানব। বরফমানব ওয়েতজির পিঠে তীর মারা হয়েছিল। এতে তার প্রধান ধমনী কেটে যায় এবং রক্তপাতের কারণে কয়েক মিনিটের মধ্যেই হয়তো মারা যান। তার মৃতদেহটি বরফে সংরক্ষিত হতে থাকে। তাকে বলা হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে প্রাচীন সংরক্ষিত মমি। অবশ্য এই বরফমানব প্রাকৃতিকভাবেই সংরক্ষিত হয়ে আসছিলেন।


    বিবিসির একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায় ওয়েতজিকে প্রথম পাওয়া গিয়েছিল ১৯৯১ সালে। বিজ্ঞানীরা গবেষণা করে দেখেন তার কাঁধে তীরের অগ্রভাগ । সম্প্রতি একদল বিজ্ঞানী ও গবেষকদল ওয়েতজি খুন নিয়ে আরও কিছু নতুন তথ্য যোগ করেন।

    ajkerograbani.com

    এটা কি খুন ছিল আর কেই বা সে খুন করতে পারে সেটা নিয়ে পাঁচ হাজার তিনশো বছর পরে ভাবছেন একদল গবেষক। সাউথ টাইরল মিউজিয়াম ও আর্কেওলজির পরিচালক এঞ্জেলিকা ফ্লেকিংগার একদল পেশাদার গবেষককে তদন্ত পরিচালনা করতে বলেছিলেন। উল্লেখ্য, ওয়েতজির লাশটি সাউথ টাইরল মিউজিয়াম ও আর্কেওলজিতে প্রদর্শিত হয়ে আসছিল।

    মিউনিখ পুলিশ বিভাগের এক উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাকে যখন এ তদন্ত পরিচালনার অনুরোধ জানানো হয় তিনি অবাক হয়ে যান। তাদেরকে সাধারণত ২০ বা ৩০ বছরের পুরনো হত্যা মামলার তদন্ত করতে অনুরোধ করা হতো। কিন্তু পাঁচ হাজার তিনশো বছর পুরনো হত্যা মামলার তদন্ত করতে বলা হলো সেটা অবাক করার মতোই ব্যাপার।

    তবে তাদের বড় চ্যালেঞ্জ ছিল লাশটির অবস্থা এত বছর পর কেমন আছে? কিন্তু তারা অবাক হলেন- অন্য মামলায় যেসব লাশ নিয়ে তারা কাজ করেন সে তুলনায় এ লাশটি অনেক ভালোভাবে সংরক্ষিত। হত্যাকাণ্ডটি সংঘঠিত হওয়ার স্থান আল্পস পর্বতে পরিদর্শন চালিয়ে আরও বেশ খানিকটা আগান তদন্তকারী দল।

    গবেষক দল মনে করছেন ৩০ মিটার (১০০ ফুট) দূর থেকে হয়তো তীর মারা হয়েছিল। সে সময় ওয়েতজি হয়তো বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। কারণ ওয়েতজির পাকস্থলীতে খাবারের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। এবং ওয়েতজি পেট ভরে খেয়েছিলেন। খেয়েদেয়ে বিশ্রাম নেওয়ার সময় শত্রু তীর মেরে তাকে ঘায়েল করেছিল। নিজের ধনুকটি হয়তো হাতে নেওয়ার সময় পাননি।

    আরও চমকপ্রদ তথ্য হলো ওয়েতজির হাতে কয়েকদিন পুরনো একটি ছুরির দাগ ছিল। বোঝাই যাচ্ছে কোন একটি যুদ্ধে হয়তো তিনি বেঁচে ফিরে আসতে পেরেছিলেন। হয়তো আল্পস উপত্যকায় প্রাচীন কোন যুদ্ধফেরত বরফমানব ছিল এই ওয়েতজি। কিন্তু প্রতিপক্ষ হয়তো কয়েকদিন পর তাকে দেখতে পেয়ে তাকে হত্যা করেছিল।

    সরাসরি মুখোমুখি দ্বন্দ্বে পারবে না মনে করে তাকে অনুসরণকারী এক বা একাধিক প্রতিপক্ষ হয়তো তাকে দূর থেকেই তীর মেরে হত্যাকাণ্ডটি ঘটায়।

    বরফমানবটি হয়তো বেশ সেয়ানা লোক ছিল। বা আল্পসের কোন বীর। তাকে নিয়ে পাঁচ হাজার তিনশো বছর পরেও ভাবছে একদল গবেষক। আমরাও কি ভাবছি না? কে ছিলেন ওয়েতজি? কেমন ছিলেন ওয়েতজি আর কেমন ছিলোই বা ওয়েতজির জামানা?

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিয়ে করাই তার নেশা!

    ২১ জুলাই ২০১৭

    কে এই নারী, তার বাবা কে?

    ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757