বুধবার ২০শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

৬৯ বছরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের যত ভিসি

ডেস্ক রিপোর্ট   |   মঙ্গলবার, ০৬ জুলাই ২০২১ | প্রিন্ট  

৬৯ বছরে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের যত ভিসি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়। সংক্ষিপ্ত নাম ‘রাবি’। ১৯৫৩ সালের ৬ জুলাই যাত্রা শুরু করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই শিক্ষা গবেষণায় বেশ সুনামের সঙ্গে এগিয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়টি ৬৮ বছর অতিক্রম করে ৬৯ বছরে পদার্পণ করেছে। দীর্ঘ এই সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ প্রশাসনিক পদ উপাচার্য বা ভিসি পদে দায়িত্ব পালন করেছেন ২৩ জন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ। এই পদে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে অনেকেই হয়েছেন আলোচিত-সমালোচিত।

অধ্যাপক ড. ইতরাত হোসেন জুবেরী ছিলেন এই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ভিসি। গত ৬ মে সাবেক ভিসি এম আব্দুস সোবহানের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর বর্তমানে ভিসির রুটিন দায়িত্ব পালন করছেন অধ্যাপক ড. আনন্দ কুমার সাহা।


৬৯ বছরে যারা ছিলেন দায়িত্বে
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর ১৯৫৩ সালে পাকিস্তানের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ইতরাত হোসেন জুবেরী সর্বপ্রথম ভিসি হোন। তিনি ১৯৫৭ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় তার অবদান ছিলো অনন্য। তার অবদানকে স্মরণীয় করে রাখতে বিশ্ববিদ্যালয়ে তৈরি করা হয়েছে ‘জুবেরী ভবন’।

১৯৫৭ সাল থেকে ১৯৬৫ সাল পর্যন্ত দ্বিতীয় ভিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমদ। তার নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘মমতাজ উদ্দিন একাডেমিক ভবন’ রয়েছে। পরবর্তীতে ভিসির দায়িত্ব পালন করেন অধ্যাপক এম শামস-উল-হক।


চতুর্থ ভিসি হিসেবে নিয়োগ পান অধ্যাপক সৈয়দ সাজ্জাদ হোসাইন। তিনি ছিলেন বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ, সাহিত্যে পণ্ডিত এবং লেখক। বাঙ্গালী মুসলমানদের মধ্যে তিনিই প্রথম ব্যক্তি যিনি ইংরেজি সাহিত্যে পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েরও ভিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

পরবর্তীতে অধ্যাপক মোহাম্মদ আবদুল বারী, অধ্যাপক খান সরওয়ার মুরশিদ, অধ্যাপক মযহারুল ইসলাম ভিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। অষ্টম ভিসি হোন বাংলাদেশের একজন খ্যাতনামা সাহিত্যিক, কবি, সাহিত্য সমালোচক, অনুবাদক, প্রাবন্ধিক ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক সৈয়দ আলী আহসান। ১৯৭৭ সালে দ্বিতীয়বার আবারো ভিসি হোন অধ্যাপক মোহাম্মদ আবদুল বারী। তারপর ১৯৮১ সাল থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত ভিসি দায়িত্ব পালন করেন- অধ্যাপক মকবুলার রহমান সরকার (এম আর রহমান), মোসলেম হুদা, মুহম্মদ আবদুর রকীব, আমানুল্লাহ আহমদ, এম আনিসুর রহমান, মু. ইউসুফ আলী ও আবদুল খালেক। আবদুল খালেক রাজশাহীর নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ভিসি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৭তম ভিসি হিসেবে নিয়োগ পান বাংলাদেশী শিক্ষাবিদ ও কূটনীতিক অধ্যাপক এম সাইদুর রহমান খান। তিনি যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার ছিলেন। পরবর্তীতে এই পদে দায়িত্ব পালন করেন অধ্যাপক ফাইসুল ইসলাম ফারুকী, মো. আলতাফ হোসেন। ২০তম ভিসি (ভারপ্রাপ্ত) হিসেবে এক বছরের কম সময় দায়িত্ব পালন করেন অধ্যাপক মামনুনুল কেরামত।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২১তম ভিসি হিসেবে নিয়োগ পান ফলিত পদার্থবিজ্ঞান ও ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান। পরবর্তীতে ২২তম ভিসি হিসেবে ২০১৩ সালের ২০ মার্চ দায়িত্ব গ্রহণ করেন অধ্যাপক মুহাম্মাদ মিজানউদ্দিন। তিনি ১৯৭৮ সালে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক হিসাবে কর্মজীবন শুরু করেন। দ্বিতীয় মেয়াদে অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান ২৩তম ভিসি হিসেবে পুনরায় নিয়োগ পান। তার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর গুরুত্বপূর্ণ এই পদটি বর্তমানে ফাঁকা রয়েছে।

Facebook Comments Box

Posted ৫:২৮ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৬ জুলাই ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১