বুধবার ৫ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২০শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এই ফটোফ্রেমে দাঁড়িয়ে দুবাই শহর দেখা যায়

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শনিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

এই ফটোফ্রেমে দাঁড়িয়ে দুবাই শহর দেখা যায়

এই ফটোফ্রেমে দাঁড়িয়ে আপনি দুবাইয়ের বুর্জ খলিফা দেখতে পাবেন! বিশ্বাস করতে পারছেন না তো! অনেকেরই হয়তো জানা নেই দুবাই-তে রয়েছে পৃথিবীর সবথেকে বড় আকাশচুম্বী এক ‘ফ্রেম’।

ব্যাপারটা হলো এই ‘ফটোফ্রেম’ দেখতে বড় হলেও এতে কোনো ছবি রাখা যায় না। এটা আসলে একটি বাড়ি। ৫০ তলা বাড়িটির গ্লাস টাওয়ারটি প্রায় ৫০০ ফুট লম্বা দুটি ফ্রেম দিয়ে তৈরি। এটি বিশ্বের বৃহত্তম ফ্রেমও। একটি কাচের সেতুর মাধ্যমে দুটি টাওয়ার সংযুক্ত করা হয়েছে।

এই ফটোফ্রেমে দাঁড়িয়ে দুবাই শহর দেখা যায়

এই ফটোফ্রেমে দাঁড়িয়ে দুবাই শহর দেখা যায়

এই টাওয়ার থেকে পুরনো ও নতুন দুবাই শহরের ৩৬০ ডিগ্রি ভিউ দেখা যায়। টাওয়ারটি থেকে দক্ষিণে তাকালেই দেখা যায় দুবাইয়ের সবচেয়ে আধুনিক সব ভবন। এর মধ্যে রয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভবন ও বুর্জ খলিফার মতো স্থাপনা। এর বিপরীত দিকে তাকালে ঠিক যেন বিপরীত দৃশ্য দেখা যাবে। সেখানে রয়েছে দুবাইয়ের পুরাতন শহর আল- কারামা, দেরা দুবাই, বার-দুবাই এবং এমিরেটস টাওয়ারও।

এই ফটোফ্রেমে দাঁড়িয়ে দুবাই শহর দেখা যায়

এই ফটোফ্রেমে দাঁড়িয়ে দুবাই শহর দেখা যায়

দুবাইয়ের এই বাড়িটিকে সরকারি ভাবে বলা হয়, ‘দুবাই ফ্রেম’। এই বাড়িটি দুবাইয়ের জাবিল পার্ক এলাকায় অবস্থিত। এটির ছাদ থেকে নতুন ও পুরনো দুইরকমভাবে দুবাই শহরকে দৃশ্যত উপভোগ করা যায়। বিল্ডিংয়ের অবজারভেশন ডেক-এ যেতে চাইলে টিকিট কাটতে হয়। সাধারণের জন্য সকাল ১০টা থেকে সন্ধা ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকে এটি।

এই বাড়ি নির্মাণে খরচ হয়েছিল প্রায় ৫২৭ কোটি টাকা। বিল্ডিংটি উচ্চতায় ১৫০.২৪ মিটার। ৫০তলা বাড়িটির গ্লাস টাওয়ারটি প্রায় ৫০০ ফুট লম্বা দু’টি ফ্রেম দিয়ে তৈরি। এভাবেই এটি হয়ে উঠেছে বিশ্বের বৃহত্তম ফ্রেম।

দুইটি টাওয়ার সংযুক্ত রয়েছে একটি কাচের সেতুর মাধ্যমে। এর ফলে পুরো শহরের ‘প্যানোরামিক ভিউ’ পাওয়া যায়। দেখা যায় কারামা, দেইরা, বুর দুবাই এবং এমিরেটস টাওয়ারও।

এই ফটোফ্রেমে দাঁড়িয়ে দুবাই শহর দেখা যায়

এই ফটোফ্রেমে দাঁড়িয়ে দুবাই শহর দেখা যায়

স্থপতি ফার্নান্দো দোনিস এই বিল্ডিংয়ের নকশা করেন। তিনি আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে পুরস্কৃতও হয়েছেন এর জন্য। তবে ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে মার্কিন আদালতে দুবাই মিউনিসিপ্যালিটির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন দোনিস। কপিরাইট, খরচ-সহ বিভিন্ন অভিযোগ আনেন তিনি। পরে দোনিস সংবাদ সংস্থাকে বলেছিলেন, তারই প্রকল্প চুরি করে, নকশা বদলে তাকে বাদ দিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই ফ্রেম। সেসব সমস্যা অবশ্য সমাধান হয়েছে। ২০১৯-এর ৩০ এপ্রিল দুবাই মিউনিসিপ্যালিটি ফটোফ্রেমের মতো দেখতে এই বাড়িটির জন্যই পেয়ে গিয়েছেন ‘গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে’র প্রশংসাপত্র।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১:০৮ অপরাহ্ণ | শনিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]