মঙ্গলবার ৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিদেশি প্রতারকে ভরছে দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক:   |   রবিবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

বিদেশি প্রতারকে ভরছে দেশ

নাইজেরিয়ান নাগরিক উডজি অবিন্না রুবেন। ২০১৭ সালে তিন মাসের ভ্রমণ ভিসা নিয়ে বাংলাদেশে আসেন তিনি। এরপরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মেয়েদের নামে ভুয়া আইডি খুলে টার্গেট করেন বড় বড় ব্যবসায়ী, হাই প্রোফাইল চাকরিজীবী ও উচ্চবিত্ত ব্যক্তিদের।

বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে নিজেকে পশ্চিমা বিশ্বের উন্নত দেশের সামরিক বাহিনী ও পুলিশ বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা পরিচয় দিতেন। আস্থা অর্জনের জন্য পাঠাতেন বিভিন্ন সময়ে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তার ভুয়া ছবি। বিশ্বাস অর্জনের পরই শুরু হয় উডজির ভয়ংকর প্রতারণা।

একের পর এক প্রতারণার মাধ্যমে টার্গেট করা ব্যক্তিদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেন কোটি কোটি টাকা। অবশ্য পরে প্রতারণার শিকার কয়েকজনের অভিযোগে এ চক্রের প্রধান উডজিসহ পাঁচ বিদেশিসহ সাতজনকে গত জানুয়ারি মাসে গ্রেফতারও করে র‌্যাব।

এরপর গত ৬ সেপ্টেম্বর একই ধরনের প্রতারণার অভিযোগে নাইজেরিয়া, অ্যাঙ্গোলা ও কম্বোডিয়ার পাঁচ নাগরিকসহ ১১ জনকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। প্রতারক চক্রটি ‘পার্সেল’ নামে দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে আসছিল বলে জানায় পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। এ চক্রের বিদেশিদের সঙ্গে খোদ বাংলাদেশেরও কিছু নারী ও পুরুষ জড়িত।

পুলিশ ও র‌্যাব কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, অবৈধ অস্ত্র, চোরাচালান, মাদক ব্যবসা, ব্যাংকের বুথ, গার্মেন্ট শিল্প প্রতিষ্ঠান বা গার্মেন্টস পণ্য বিক্রি, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে তারা। এমনকি নারীদের সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সম্পর্ক করে ফাঁদে ফেলে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে জিম্মি করছে। এরপর হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। অবৈধভাবে দেশে অবস্থান করা এসব বিদেশির মধ্যে আফ্রিকান ও নাইজেরিয়ানদের তৎপরতা পাওয়া গেছে।

বিদেশি প্রতারক চক্রটি পড়াশোনা, চাকরি, ব্যবসা কিংবা ট্যুরিজমসহ ৩৪ ক্যাটাগরির ভিসা নিয়ে বাংলাদেশে ঢুকছে। অবৈধ পথে হাতিয়ে নিচ্ছে বিশাল অঙ্কের টাকা। অপরাধে জড়িয়ে কেউ কেউ অস্থিতিশীল করে তুলছে বাংলাদেশকে। এ প্রতারকচক্রটির অনেক সদস্য গুলশানসহ রাজধানীর ভাটারা, উত্তরা, বনানী, ধানমন্ডি, মিরপুরের পল্লবী ও চট্টগ্রামে অবস্থান করছে বলেও জানিয়েছেন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ডিআইজি ইমাম হোসেন জানান, বিদেশি প্রতারক চক্রটি দীর্ঘদিন যাবৎ অবৈধভাবে এখানে থেকে বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছে। আমরা এ চক্রের বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছি। তিনি বলেন, ‘এ চক্রের আরও অনেক সদস্য রয়েছে। আমরা লোকজন তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে তাদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের চেষ্টা করছি।’

সিআইডির কর্মকর্তারা জানান, গত পাঁচ বছরে ৫৭টি মামলা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে শতাধিক। তাদের মধ্যে নাইজেরিয়ানের সংখ্যাই বেশি।
র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, ‘বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে চলতি বছর পর্যন্ত ৩৬টি অভিযান পরিচালনা করেছে র‌্যাব। গ্রেফতার করা হয়েছে ১৬৭ জনকে।’ তিনি বলেন, ‘গত ১২ জানুয়ারি রাজধানীর মিরপুর থেকে সাত বিদেশিসহ ৯ প্রতারককে গ্রেফতার করে র‌্যাব।’

তিনি বলেন, ‘গ্রেফতার ব্যক্তিরা ছিল ভয়ংকর প্রতারক। তারা বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পরিচয় ও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক স্থাপন করে দামি উপহার পাঠানোর লোভ দেখিয়ে বিভিন্ন পদ্ধতিতে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নেয়। এ চক্রের অনেক সদস্য সক্রিয় রয়েছে। আমাদের গোয়েন্দা নজরদারিতে রয়েছে তারা।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৭:৪৪ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]