সোমবার ৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নাটকীয় জয়ে ঘুরে দাঁড়াল লিভারপুল

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

নাটকীয় জয়ে ঘুরে দাঁড়াল লিভারপুল

চলতি প্রিমিয়ার লিগ বাজেভাবে শুরু করেছে লিভারপুল। সে অবনতি বদলায়নি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম ম্যাচেও। নাপোলির বিপক্ষে সালাহরা বিধ্বস্ত হয়েছিল ৪-১ গোলে। ড্র হতে পারত আয়াক্সের বিপক্ষেও। তবে জোয়েল মাতিপের শেষ মুহূর্তের নাটকীয় গোলে শেষ পর্যন্ত ঘুরে দাঁড়িয়েছে ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা।

অ্যানফিল্ডে মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাতে ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে ডাচ ক্লাব আয়াক্সকে ২-১ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে ইংলিশ জায়ান্ট লিভারপুল।

ঘরের মাঠে শুরু থেকেই দাপুটে ফুটবল খেলে লিভারপুল। সাফল্য পেতেও খুব বেশি সময় লাগেনি তাদের। প্রতিপক্ষের একটি দুর্বল আক্রমণ সামলে ১৭ মিনিটে উঁচু করে শট নেন লিভারপুল গোলররক্ষক অ্যালিসন বেকার। লুইস দিয়াজ নিয়ন্ত্রিত হেডে পাশে খুঁজে নেন দিয়োগো জটাকে। দুজনের পাশ কাটিয়ে তিনি ডি-বক্সে পাস দেন মোহামেদ সালাহর উদ্দেশে। প্রথম ছোঁয়ায় নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নিখুঁত শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন মিসরের এ ফরোয়ার্ড। পাঁচ মিনিট পরই ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারত ক্লপের শিষ্যরা। তবে দিয়াজের নেয়া শট পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যাওয়ায় সেটি সম্ভব হয়নি।

২৭ মিনিটে স্বাগতিকদের স্তব্ধ করে দিয়ে সমতায় ফেরে আয়াক্স। বাঁ দিক থেকে সতীর্থের বাড়ানো পাস ফাঁকা পেয়ে লক্ষ্যের দিকে না তাকিয়েই বুলেট গতির শট নেন কুদুস। বল ক্রসবারের লেগে জালে জড়ায়। অসহায় আত্মসমর্পণ করে বেকার।

আট মিনিট পর লিডে ফেরার দারুণ সুযোগ পেয়েছিল অলরেডরা। তবে ভার্জিল ফন ডাইকের হেড ঝাঁপিয়ে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক রেমকো পাসফির। ৪২ মিনিটে ডাবল সেভে আবারও দলকে গোল হজম থেকে বাঁচান তিনি। দুরূহ কোনা থেকে ট্রেন্ট অ্যালেকজ্যান্ডার-আর্নল্ডের প্রথম শট বুক দিয়ে ঠেকানোর পর তারই দ্বিতীয় প্রচেষ্টা কোনোমতে কর্নারের বিনিময়ে ফেরান পাসফির।

বিরতির পর একের পর এক আক্রমণে প্রতি পক্ষের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে থাকে লিভারপুল। কিন্তু সুযোগ ঠিক ঠাক কাজে না লাগানোয় দেখা মিলছিল না সাফল্যের। প্রতিপক্ষের প্রবল চাপ সামলে ৭৫ মিনিটে পাল্টা আক্রমণে ভীতি ছড়ায় আয়াক্স। কোনা থেকে হেড করেন ডালে ব্লিন্ড, বল দূরের পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়।

শেষদিকে একটি গোলের জন্য মরিয়া হয়ে থাকা ক্লপ শিষ্যরা কাঙ্ক্ষিত সাফল্য পায় নির্ধারিত সময় শেষ হওয়ার এক মিনিট আগে। কর্নার থেকে আসা উঁচু শট হেডে সাহায্যে জালে পাঠান মাতিপ। পোস্টের ভেতর থেকে অবশ্য আয়াক্সের এক ডিফেন্ডার পাল্টা হেডে বল ক্লিয়ার করেন। কিন্তু লাইন অতিক্রম করায় গোলের বাশি বাজান রেফারি। তাতে আনন্দে মেতে ওঠে অ্যানফিল্ডের সমর্থকরা। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে দুই ম্যাচ পর জয়ের দেখা পেল লিভারপুল।

দুই ম্যাচে এক জয়ে ৩ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে উঠেছে লিভারপুল। আয়াক্স ৩ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে। এক ম্যাচ খেলা নাপোলি ৩ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ ‘এ’র শীর্ষে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৪:০৩ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]